অকৃতকার্য হওয়ায় শিক্ষকদের পেটালেন অভিভাবক

বাঁকড়া (ঝিকরগাছা) প্রতিনিধি :
যশোরের ঝিকরগাছার তৃতীয় শ্রেণির এক শিক্ষার্থী অকৃতকার্য হওয়ায় শিক্ষকদেরকে পিটিয়েছে এক বখাটে অভিভাবক। এ ঘটনায় শিক্ষকরা উপজেলা শিক্ষা অফিসারের কাছে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।
অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে, ঝিকরগাছা উপজেলার জগদানন্দকাটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণির ছাত্র মহিন হোসেন বার্ষিক পরীক্ষায় অকৃতকার্য হয়। এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার তার পিতা জগদানন্দকাটি গ্রামের শহিদুল ইসলাম ও মা লাবনী খাতুন বিদ্যালয়ের অফিস কক্ষে আসেন। এসময় শহিদুল ইসলাম শিক্ষকদের উপর চড়াও হয়। বিদ্যালয়ের পরিচালনা পর্ষদের সহ-সভাপতি শাহাজাহান আলী এসময় শহিদুল ইসলামকে ঠেকানোর চেষ্টা করে। এক পর্যায়ে শহিদুল ইসলাম বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক সালমা খাতুনকে চড় থাপ্পড় মারেন। একই সাথে প্রধান শিক্ষক হামিদা খাতুন, সহকারী শিক্ষক মিজানুর রহমান ও হাবিবুর রহমানকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে বেরিয়ে যান।
এ ঘটনায় প্রধান শিক্ষক ও অন্যান্য শিক্ষকগণ উপজেলা শিক্ষা অফিসারের নিকট একটি অভিযোগ দায়ের করেন। যার অনুলিপি শিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক, উপ-পরিচালক (খুলনা বিভাগ), যশোর জেলা প্রশাসক, ঝিকরগাছা উপজেলা নির্বাহী অফিসার, জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার, সহকারী শিক্ষা অফিসার (বাঁকড়া ক্লাস্টার) প্রেরণ করা হয়েছে। এছাড়া বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা ঝিকরগাছা প্রেসক্লাবে অভিযোগের অনুলিপি প্রদান করেন।
শিক্ষকরা জানান, হামলার ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করা হবে।
পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি নুরুল হুদা বলেন, অভিযুক্ত শহিদুল ইসলামের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নিতে প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকদেরকে বলা হয়েছে।
তবে অভিযুক্ত শহিদুল ইসলাম বলেন, সেখানে মারামারির কোন ঘটনা ঘটেনি। তার ছেলেকে বই না দেয়ায় প্রধান শিক্ষকের সাথে কথা কাটাকাটি হয়েছে।
ঝিকরগাছা উপজেলা সহকারী শিক্ষা অফিসার (বাঁকড়া ক্লাস্টার) শামছুর আলম অভিযোগের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আগামী রোববার ঘটনা তদন্তের জন্য ঘটনাস্থলে যাওয়া হবে।