যশোর ২৫০ শয্যা হাসপাতালে যুক্ত হচ্ছে আইসিইউ

বিল্লাল হোসেন : যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে যুক্ত করা হবে আইসিইউ । একই সাথে উন্নয়ন করা হবে ডেন্টাল চিকিৎসা বিভাগ। গতকাল শনিবার জেলা হাসপাতাল ব্যবস্থাপনা কমিটির সভায় এ কথা বলেন কমিটির সভাপতি পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী স্বপন কুমার ভট্টাচার্য্য। আইসিইউ চালু ও ডেন্টাল বিভাগের উন্নয়নের বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাকে আশ্বস্ত করেছেন। তিনি জানান, বিষয়টি নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সাথে আলোচনার সময় যশোরের ৫ এমপি, খুলনা বিভাগীয় কমিশনার ও যশোরের জেলা প্রশাসক উপস্থিত ছিলেন।

হাসপাতালের নিজস্ব মিলনায়তন কক্ষে অনুষ্ঠিত সভায় সভাপতিত্ব করেন প্রতিমন্ত্রী স্বপন কুমার ভট্টাচার্য্য। তিনি আরো বলেন, ডা. আবুল কালাম আজাদ লিটু মানেই উন্নয়ন। ১ বছর ৮ মাস তত্ত্বাবধায়কের দায়িত্ব পালনে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালের বর্তমান রূপ তার প্রমাণ। নানা উন্নয়ন ও চিকিৎসাসেবা নিশ্চিত করার মাধ্যমে তিনি একজন আদর্শ চিকিৎসক কর্মকর্তার দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন। ডা. লিটুর আন্তরিক প্রচেষ্টায়  অবকাঠামো উন্নয়ন, পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতা নিশ্চিত, সৌন্দর্য বৃদ্ধিসহ স্বাস্থ্যসেবার সার্বিক দিকে বিশেষ অবদান রাখার কারণে সারাদেশের জেলা পর্যায়ে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতাল ৩য় স্থানে ছিলো। এটা অত্যন্ত গর্বের বিষয়। এক কথায় ডা. লিটুর আপ্রাণ চেষ্টায় যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতাল পূর্ণ যৌবন লাভ করেছে। ডিজিটাল এক্সরে ও আল্ট্রাসনো মেশিনসহ আধুনিক চিকিৎসা সরঞ্জামের সুফল পাচ্ছে রোগীরা। প্রতিমন্ত্রী স্বপন কুমার ভট্টাচার্য্য আরো বলেন, ডা. আবুল কালাম আজাদ লিটু ছিলেন আমাদের পারিবারিক চিকিৎসক। যে কারণে তার সম্পর্কে অনেক কিছু জানা। যশোরবাসীর কাছে তিনি জনপ্রিয় মানুষ হিসেবে আস্থা অর্জন করেছেন।

অন্যান্যের বক্তব্য রাখেন যশোর মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ ডা. গিয়াস উদ্দিন, যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. আবুল কালাম আজাদ লিটু, যশোরের সিভিল সার্জন ডা. দিলীপ কুমার রায়, যশোর মেডিকেল কলেজের সহযোগী অধ্যাপক ডা. আখতারুজ্জামান, ডা. রবিউল ইসলাম, হাসপাতালের সহকারী পরিচালক ডা. হারুন অর রশিদ, মেডিসিন ব্যাংকের অর্থসচিব জহুরুল আলম, উপসেবা তত্ত্বাবধায়ক সুফিয়া খানম, প্রেসক্লাব যশোরের সভাপতি জাহিদ হাসান, সেবিকা তহমিনা খাতুন প্রমুখ। উপস্থিত ছিলেন যশোরের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সার্বিক রফিকুল হাসান, সহকারী পুলিশ সুপার জামাল আল নাসের, যশোর মেডিকেল কলেজের সহযোগী অধ্যাপক ডা. ডা. গোলাম ফারুক, হাসপাতালের সার্জারি বিভাগের সিনিয়র কনসালটেন্ট ডা. আব্দুর রহিম মোড়ল, কার্ডিওলজি বিভাগের সিনিয়র কনসালটেন্ট ডা. তৌহিদুল ইসলাম, হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও)  ডা. আরিফ আহমেদ ও ডা. আব্দুস সামাদ প্রমুখ।