ভিটামিন এ ক্যাপসুল খাওয়ানো হলো শিশুদের

স্পন্দন ডেস্ক:
যশোরসহ বিভিন্নস্থানে ভিটামিন এ প্লাস ক্যাম্পেইন উদযাপিত হয়েছে। শনিবার সকাল ৮টায় যশোর শিশু হাসপাতালে এক শিশুকে ভিটামিন এ ক্যাপসুল খাওয়ায়ে ক্যাম্পেইনের উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ শফিউল আরিফ। উদ্বোধন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়ের আইসিটি কর্মকর্তা রেজাউল হক, যশোরের সিভিল সার্জন ডা. দিলীপ কুমায় রায়, মেডিকেল অফিসার ডা. মীর আবু মাউদ, জেলা স্বাস্থ্য তত্ত্বাবধায়ক শিশির কান্তি পাল প্রমুখ।
সিভিল সার্জন জানিয়েছেন, এবার জেলায় মোট ৩ লাখ ১৮ হাজার ৯৪০ শিশুকে ভিটামিন এ প্লাস ক্যাপসুল খাওয়ানোর লক্ষ্যমাত্রা নেয়া হয়। মোট ৯টি স্থায়ী কেন্দ্র, ২ হাজার ২৬৮টি আউটরীচ সেন্টার, অতিরিক্ত ১১ টি কেন্দ্রে সকাল ৮ টা থেকে বিকেল ৪ টা পর্যন্ত ৪ হাজার ১শ ২৫ জন কর্মী দায়িত্ব পালন করেন। জেলা স্বাস্থ্য তত্ত্বাবধায়ক জানান, লক্ষ্যমাত্রার ৯৯ ভাগের বেশি শিশুকে ভিটামিন এ ক্যাপসুল খাওয়ানো হয়েছে।
খুলনা : খুলনা সিটি কর্পোরেশনের উদ্যোগে মহানগরী এলাকায় শনিবার জাতীয় ভিটামিন ‘এ’ পাস ক্যাম্পেইন পালিত হয়। সিটি মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক সকাল ৯ টায় নগরীর ১২নম্বর ওয়ার্ডের সূর্যের হাসি ক্লিনিকে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে একটি শিশুকে ভিটামিন ক্যাপসুল খাওয়ানোর মধ্য দিয়ে ক্যাম্পেইনের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন।
কাউন্সিলর মনিরুজ্জামানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন প্যানেল মেয়র আলী আকবর টিপু, কাউন্সিলর মুন্সী আব্দুল ওয়াদুদ, শেখ মোহাম্মদ আলী, শেখ শামসুদ্দিন আহম্মেদ প্রিন্স, ডালিম হাওলাদার, সংরক্ষিত আসনের কাউন্সিলর পারভীন আক্তার, মনিরা আক্তার, সাহিদা বেগম ও মাজেদা খাতুন।
অন্যান্যের মধ্যে পরিবার পরিকল্পনা খুলনার উপ-পরিচালক আব্দুল আলিম, ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. সাঈদুল ইসলাম, ইউনিসেফ-খুলনার প্রতিনিধি আদি সুচ্যান, স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. স্বপন কুমার হালদার, সহকারী স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. শরীফ শাম্মীউল ইসলাম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। স্বাগত বক্তৃতা করেন কেসিসি’র প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. একেএম আব্দুল্লাহ।
কর্মসূচি সফল করতে নগরীর ৩১টি ওয়ার্ডের ৫৮০টি কেন্দ্র, ৮০টি মোবাইল টিম এবং বেসরকারি সংস্থা কর্তৃক পরিচালিত ৫০টি কেন্দ্রের মাধ্যমে ৬২ জন সুপারভাইজারের তত্ত্বাবধানে ১ হাজার ৪’শ ২০ জন স্বেচ্ছাসেবী ক্যাম্পেইনে নিয়োজিত ছিলেন।
ঝিনাইদহ : ঝিনাইদহে ভিটামিন এ প্লাস ক্যাম্পেইনের উদ্বোধন করা হয়েছে। শনিবার সকালে শহরের গীতাঞ্জলী সড়কে সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কেন্দ্রে শিশুকে ক্যাপসুল খাইয়ে এ ক্যাম্পেইনের উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক সরোজ কুমার নাথ।
এসময় সিভিল সার্জন ডা: সেলিনা বেগম, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বদরুদ্দোজা শুভ, সদর হাসপাতালের তত্বাবধায়ক ডা. আয়ুব আলী, সদর উপজেলা স্বাস্থা ও পরিবার পরিকল্পনা কার্যালয়ের স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. সাজ্জাৎ হোসেনসহ স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মকর্তারা জানান, এ বছর জেলার ৬ উপজেলায় ৬ মাস থেকে ১১ মাস বয়সী ২৮ হাজার ৩’শ ৫০ জন শিশুকে সবুজ রংয়ের ক্যাপসুল ও ১২ থেকে ৫৯ মাস বয়সী ১ লাখ ৯৮ হাজার শিশুকে লাল রংয়ের ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে।
পাইকগাছা : পাইকগাছায় ২৫ হাজার শিশুকে ভিটামিন এ প্লাস খাওয়ানো হয়েছে। শনিবার সকালে টাউন মাধ্যমিক বিদ্যালয় মিলনায়তনে জাতীয় ভিটামিন এ প্লাস ক্যাম্পেইন (২য় রাউন্ড) এর উদ্বোধন করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার জুলিয়া সুকায়না। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি বিভিন্ন শিশুদের ভিটামিন এ প্লাস খাওয়ান। উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ নীতিশ চন্দ্র গোলদারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, কাউন্সিলর এসএম তৈয়েবুর রহমান, প্রধান শিক্ষক নারায়ণ চন্দ্র শিকারী, এমটিইপিআই শাহানারা খাতুন, স্বাস্থ্য পরিদর্শক নূর আলী মোড়ল ও চায়না সরকার। ২৪১টি টিকাদান কেন্দ্রে ৬-১১ মাস বয়সী ২ হাজার ৬৯৫ ও ১২-৫৯ মাস বয়সী ২২ হাজার ৮৬৫ শিশুকে ভিটামিন এ প্লাস খাওয়ানো হয়।
কালীগঞ্জ : ঝিনাইদহের কালীগঞ্জেও জাতীয় ভিটামিন এ প্লাস ক্যাম্পেইনের মাধ্যমে ২য় রাউন্ডের ভিটামিন এ প্লাস ট্যাবলেট শিশুদের খাওয়ানো হয়েছে। এ উপলক্ষে সকাল ৭ টায় শহরের মেইন বাসস্ট্যান্ডের অস্থায়ী ক্যাম্পে শিশুদের মুখে ট্যাবলেট তুলে দিয়ে এ কার্যক্রমের শুভ উদ্বোধন ঘোষণা করেন সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজিম আনার। এ সময় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার সূবর্ণা রানী সাহা, কালীগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আশরাফুল আলম আশরাফ, দৈনিক নবচিত্রের প্রধান সম্পাদক আলহাজ শহিদুল ইসলাম, উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা শামীমা শিরিন লুবনা, কালীগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তা ড.মামুনুর রশিদ, উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা তরুন কুমার দাস, কালীগঞ্জ পৌর সভার স্যানেটারী ইন্সপেক্টর আলমগীর হোসেন, এছাড়াও সাংবাদিক, সুধীজনসহ কালীগঞ্জ পৌরসভার কর্মকর্তা কর্মচারী ও সকল কাউন্সিলরবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
মাগুরা : মাগুরায় জাতীয় ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইনে ১ লাখ ৭ হাজার ১০৫ শিশুকে শনিবার দিনব্যাপী ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানো হয়েছে।
সকাল ৮ টায় সদর উপজেলার ধলহরা কমিউনিটি ক্লিনিকে এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক আশরাফুল আলম। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সিভিল সার্জন ডাক্তার প্রদীপ কুমার সাহা, সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আবু নাসির বাবলু, চাউলিয়া পরিষদ চেয়ারম্যান হাফিজার রহমান প্রমুখ। একই সাথে ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন থেকে শিশুদের ৬ মাস বয়স পর্যন্ত মায়ের বুকের দুধ পান করানোর পরামর্শ দেয়ার পাশাপাশি ঘরে তৈরি পুষ্টি সমৃদ্ধ সুষম খাবার খাওয়ানোর বিষয়ে প্রচারণা চালানো হয়।
এই কর্মসূচি সফল করতে জেলার ১টি পৌরসভাসহ ৩৬টি ইউনিয়নের ৯৪১টি কেন্দ্রে ১৩২ জন সুপারভাইজার, ১ হাজার ৮৮২জন স্বেচ্ছাসেবক ও ২৪৩ জন মাঠ কর্মী কাজ করে।
ফকিরহাট : বাগেরহাটের ফকিরহাটে শনিবার প্রায় ১৫ হাজার শিশুকে ভিটামিন এ ক্যাপসুল খাওয়ানো হয়েছে। ভিটামিন এ প্লাস ক্যাম্পেইন উদ্বোধন করেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান স্বপন কুমার দাশ। এসময় উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ অসিম কুমার সমাদ্দার, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান তহুরা খানম, মূলঘর ইউপি চেয়ারম্যান অ্যাডঃ হিটলার গোলদার, ডাঃ তানভীর আহম্মেদ রাসেল উপস্থিত ছিলেন।
উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান স্বপন কুমার দাশ বিভিন্ন ভিটামিন এ ক্যাম্পেইন পরিদর্শন করেন।
কালিগঞ্জ : ‘ভিটামিন এ খাওয়ান শিশু মৃত্যুর ঝুঁকি কমান’ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে কালিগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে শনিবার সকালে জাতীয় ভিটামিন এ প্লাস ক্যাম্পেইন’র উদ্বোধন করা হয়েছে। উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. শেখ তৈয়েবুর রহমানের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে ক্যাম্পেইনের উদ্বোধন করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোজাম্মেল হক রাসেল।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন মেডিকেল অফিসার ডা. গোলাম মোস্তফা, ডা. মৃত্যুঞ্জয় সরদার, ডা. সানজানা উলফাত চাঁদনী, ডা.তাহাজ্জুত হোসেন, ডা. মোয়াজ আবরার, ডা. মোহাম্মদ শাহিনুর ইসলাম, ডা. মোহাম্মদ সাফায়েত দোজা, ডা. মোহাম্মদ আমিনুল ইসলাম, ডা. রনজিত কুমার মন্ডল প্রমুখ।
উপজেলার ২৯০ টি কেন্দ্রে ৬ থেকে ১১ মাস বয়সী ৩ হাজার ৬’শ ৩১ জন শিশুর মধ্যে ৩ হাজার ৫’শ ৯৪ শিশুকে একটি করে নীল রঙের ক্যাপসুল খাওয়ানো হয়। এছাড়া ১২ মাস থেকে ৫৯ মাস বয়সী ২৭ হাজার ৯’শ ৮ জন শিশুর মধ্যে ২৭ হাজার ৬’শ ৩৩ জন শিশুকে একটি করে লাল রঙের ভিটামিন এ ক্যাপসুল খাওয়ানো হয়।