যশোরে ১২ কেজি গাঁজাও ইয়াবাসহ আটক ৯

নিজস্ব প্রতিবেদক : যশোরে পুলিশ, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতর ও র‌্যাব-৬ এর সদস্যরা আলাদা অভিযানে বিপুল পরিমাণ মাদকদ্রব্য উদ্ধার করেছে। এই ঘটনায় মোট ৯ জনকে আটক করা হয়েছে। তবে এদের মধ্যে যশোর সদর ফাঁড়ি পুলিশ মাদক উদ্ধারে বড় ধরনের সাফল্য দেখিয়েছে। তারা ১০ কেজি গাঁজাসহ ৫ জনকে আটক করেছে। কোতয়ালি থানাও  ২কেজি গাঁজাসহ দুইজনকে আটক করে।

আটককৃতরা হলো, সদর উপজেলার বলরামপুর গ্রামের হায়দার আলীর স্ত্রী ছাবিনা বেগম (২৮), রামনগর রেললাইনের পশ্চিমপাশের রুবেল হোসেন বাবু এবং তার স্ত্রী পারভীনা খাতুন (৩০), বেনাপোল পোর্ট থানাস্থ দুর্গাপুর গ্রামের মৃত ইসরাফিল মন্ডলের ছেলে ইফতিয়ার মন্ডল (৫০), মৃত দেলোয়ার মন্ডলের ছেলে সাইফুল ইসলাম (২৫), সদর উপজেলার পোলতাডাঙ্গা গ্রামের মশিয়ার বিশ্বাসের ছেলে বিপুল হোসেন (৩৫), উপশহর সি ব্লক ১৩ নম্বর বাড়ির আব্দুল মতিনের ছেলে নাসির হোসেন (৩০), বি ব্লক এলাকার মৃত গোলাম মোস্তফার ছেলে মুরাদ হোসেন (৪৪) এবং চৌগাছার সাঞ্চাডাঙ্গা মাঠপাড়ার তোফাজ্জেল হোসেনের ছেলে শাহিনুর রহমান (৪০)।

সোমবার জেলা পুলিশ সুপারের সভাকক্ষে এক প্রেসব্রিফিংয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) তৌহিদুল ইসলাম জানিয়েছেন, যশোর সদর ফাঁড়ির ইনচার্জ ইন্সপেক্টর তুষার কুমার মন্ডলের নেতৃত্বে একটি টিম গত রোববার বিকেলে শহরের বারান্দী মোল্লাপাড়া বাঁশতলা কমিউনিটি পুলিশিং ফোরামের অফিসের সামনে থেকে সাবিনা বেগম, রুবেল হোসেন এবং পারভীনা খাতুনকে আটক করা হয়েছে। পরে তাদের কাছ থেকে ২ কেজি গাঁজা উদ্ধার করা হয়।

তিনি জানিয়েছেন, মূলত এই তিনজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করে বাকি দুইজনের সংবাদ পায় পুলিশ। সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে চাঁচড়া চেকপোস্ট এলাকা থেকে বেনাপোল থেকে আসা ইফতিয়ার মন্ডল ও সাইফুল ইসলামকে আটক করা হয়। পরে তাদের কাছ থেকে  ৮ কেজি গাঁজা উদ্ধার করা হয়। এই ঘটনায় আলাদা দুইটি মামলা হয়েছে।

প্রেসব্রিফিংয়ে আরো জানানো হয়, কোতয়ালি থানার এসআই সাইফুল মালেক ও এএসআই ফোরকানের নেতৃত্বে একটি টিম রোববার রাত ৯টার দিকে সদর উপজেলার সরদার বাগডাঙ্গা গ্রাম থেকে ২ কেজি গাঁজাসহ বিপুল হোসেনকে আটক করা হয়। এই ঘটনায় আলাদা একটি মামলা হয়েছে।

অন্যদিকে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের উপ-পরিচালক বাহাউদ্দিন জানিয়েছেন, সোমবার বিকেলে উপশহর বি ব্লক বাজারের ইলেক্ট্রিক ম্যাকানিক নাসিরের দোকান থেকে তাকে এবং মুরাদকে আটক করা হয়েছে। তাদের কাছ থেকে ৭৫ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট এবং নগদ ৬৩ হাজার ৫৯০ টাকা জব্দ করা হয়েছে। তবে আটক নাসির বলেছেন, ওই ইয়াবা ট্যাবলেটের মালিক তিনি নন। মুরাদ তার দোকানে বসেছিল। মাদকদ্রব্য অধিদফতরের লোকজন মুরাদকে আটক করে। সেই সাথে তাকেও নিয়ে আটক করেছে।

র‌্যাব-৬ ঝিনাইদহ ক্যাম্পের এক প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, রোববার বিকেল তিনটার দিকে চৌগাছার সাঞ্চাডাঙ্গা বটতলার মোড় থেকে শাহিনুর রহমানকে আটক করা হয়। সে সময় তার কাছ থেকে আধাকেজি গাঁজা উদ্ধার করা হয়েছে।