আমরা বঙ্গবন্ধুর আদর্শের রাজনীতি করি : মিলন

নিজস্ব প্রতিবেদক : যশোরে আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ বলেছেন, স্বচ্ছ রাজনীতির কোনো বিকল্প নেই। অপরাজনীতি পরিহার করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের অগ্রযাত্রা অব্যাহত রাখতে আওয়ামী লীগসহ সহযোগী সংগঠনের সকল পর্যায়ের নেতাকর্মীকে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে। আমাদের আদর্শ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান  আর নেত্রী শেখ হাসিনা এর মাঝে আর কেউ নেই।

শুক্রবার বিকেলে শহরে ৮ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর সন্তোষ দত্তের ব্যবস্থাপনায় স্থানীয় আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগের উদ্যোগে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তারা এসব কথা বলেন।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকীর ক্ষণগণনা উপলক্ষে বেজপাড়া পূজামন্দির প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি, মুক্তিযোদ্ধা শহিদুল ইসলাম মিলন এবং প্রধান বক্তা ছিলেন যশোর ৩ আসনের (সদর) সংসদ সদস্য কাজী নাবিল আহমেদ। বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি মুক্তিযোদ্ধা হায়দার গনি খাঁন পলাশ, অ্যাড. আলী রায়হান ও সাংগঠনিক সম্পাদক মোস্তফা ফরিদ আহমেদ চৌধুরী।

আওয়ামী লীগ নেতা অ্যাড. মোস্তাফিজুর রহমান মুকুলের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন পৌর কাউন্সিলর সন্তোষ দত্ত, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান মিন্টু, শহর আওয়ামী লীগ নেতা কামাল হোসেন, জেলা যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সৈয়দ মুনির হোসেন টগর, সহসভাপতি সৈয়দ মেহেদী হাসান, আওয়ামী লীগ নেতা লুৎফুল কবীর বিজু, যুব মহিলা লীগের সভাপতি মঞ্জুন্নাহার নাজনীন সোনালী, যুবলীগের দফতর সম্পাদক হাফিজুর রহমান, ছাত্রলীগ নেতা ইমরান হোসেন প্রমুখ।

সভাটি পরিচালনা করেন যুবলীগ নেতা গোপীনাথ দাস। এসময় কাউন্সলর সন্তোস দত্ত নেতাকর্মীকে সাথে নিয়ে নেতৃবৃন্দকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান।

সভায় প্রধান অতিথি শহিদুল ইসলাম মিলন বলেন, সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। তাঁর জন্ম না হলে আমরা স্বাধীনতা পেতাম না। আমরা বঙ্গবন্ধুর আদর্শের রাজনীতি করি। আমাদের নেত্রী শেখ হাসিনা। আগে বঙ্গবন্ধু এবং জননেত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে আমাদের স্লোগান। পরে অন্য ভাইয়ের নাম।

প্রধান বক্তা সংসদ সদস্য কাজী নাবিল আহমেদ বলেন, ১৭ মার্চ থেকে সমগ্রজাতি পালন করবে মুজিববর্ষ। বছর জুড়ে থাকবে নানা কর্মসূচি। তিনি আরো বলেন, ২১ সালে বাংলাদেশের স্বাধীনতার ৫০ বছর  পূর্ণ হবে। এরই মধ্যে জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এই দেশ বিশ্বে উন্নয়নের রোল মডেলে পরিণত হয়েছে। তিনি দলীয় নেতাকর্মীকে ঐক্যবদ্ধ থাকার আহবান জানান।