কমরেড অমল সেন ছিলেন কমিউনিস্ট ঐক্যের প্রতীক : মেনন

নিজস্ব প্রতিবেদক,বাঘারপাড়া : বাংলাদেশ ওয়ার্কাস পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি রাশেদ খান মেনন এমপি বলেছেন, কমরেড অমল সেন ছিলেন কমিউনিস্ট ঐক্যের প্রতীক। তার সারাজীবনের স্বপ্ন গণতান্ত্রিক বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার সংগ্রাম। সেই সংগ্রাম থেকে পার্টি এক চুল পরিমাণ বিচ্যুত হবে না। পার্টির মূল পতাকা আমরাই আকড়ে আছি, অন্যরা (মার্কসবাদী) ফেসবুক নেতা। সকলকে দীপ্ত শপথ নিতে হবে বিভাজনের বিরুদ্ধে, ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে, চক্রান্তের বিরুদ্ধে। আমাদের সকলকে ঐক্যবদ্ধ থেকে মোকাবেলা করতে হবে।

শুক্রবার দুপুরে যশোরের বাঘারপাড়ার বাঁকড়ী মাধ্যমিক বিদ্যালয় মাঠে কমরেড অমল সেনের ১৭ তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে স্মরণ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

মেনন আরও বলেন, অমল সেন সব সময় কৃষকের ন্যায্য অধিকার আদায়ের সংগ্রামসহ শোষিত-বঞ্চিত মানুষের পক্ষে কাজ করে গেছেন। কৃষক তার ধানের নায্য মূল্য না পায় তাহলে কঠোর আন্দোলনে নামবে। ধর্মঘট করে, হরতাল করে তাদের দাবি আদায় করবে। এই পথ আমাদের দেখিয়ে গেছেন অমল সেন।

অমল সেন স্মৃতি রক্ষা কমিটির সহসভাপতি কমরেড অ্যাডভোকেট নজরুল ইসলামের সভাপতিত্বে স্মরণ সভায় বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক ও সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা, সাতক্ষীরার সংসদ সদস্য ও ওয়ার্কার্স পার্টির পলিট ব্যুরোর সদস্য মোস্তফা লুৎফুল্লাহ, সংগঠনের সাবেক সম্পাদক কমরেড আনিসুর রহমান মল্লিক, সুশান্ত দাস, মাহমুদুল হাসান মানিক, নূর আহম্মদ বকুল, কমরেড কামরুল হাসান, অধ্যাপক নজরুল ইসলাম নিলু, যশোর জেলা কমিটির সভাপতি অ্যাডভোকেট আবু বক্কার সিদ্দীকি, সাধারণ সম্পাদক ছবদুল হোসেন খাঁন প্রমুখ।

এর আগে অতিথিবৃন্দ বাঁকড়ীতে দলের সাবেক সভাপতি ও উপমহাদেশের কমিউনিস্ট আন্দোলনের অন্যতম পুরোধা কমরেড অমল সেনের সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদন ও পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করেন। সেই সাথে সমাধিতে ফুল দেন ওর্য়ার্কাস পার্টির গোপালগঞ্জ, সাতক্ষীরা, নড়াইল, মাগুরা জেলাসহ বিভিন্ন এলাকার বাম সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

এদিকে, কমরেড অমল সেনের সমাধিস্থল ঘিরে দুই দিনের লোকজ মেলা শুরু হয়েছে। প্রতিবছরের মত এবারও অমল সেনের মৃত্যুবার্ষিকীতে স্মরণসভার পাশাপাশি মেলার আয়োজন করা হয়েছে। মেলা ঘিরে মিলন মেলায় পরিণত হয় গোটা বাঁকড়ী এলাকা।

প্রসংঙ্গত, বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির দলে বিভক্ত থাকায় আজ শনিবার একই স্থানে (মার্কসবাদী) পক্ষের নেতৃবৃন্দ কমরেড অমল সেনের মৃত্যুবার্ষিকী পালন করবে বলে জানা গেছে।