গ্রামীণফোনের নতুন সিএমও সাজ্জাদ হাসিব

 

স্পন্দন নিউজ ডেস্ক : গ্রামীণফোনের নতুন চিফ মার্কেটিং অফিসার (সিএমও) হয়েছেন সাজ্জাদ হাসিব। আগামী ১ ফেব্রুয়ারি (শনিবার) থেকে এই দায়িত্ব কার্যকর হবে তার।

সম্প্রতি গ্রামীণফোনের সিইও হিসেবে নিয়োগ পাওয়া ইয়াসির আজমানের স্থলাভিষিক্ত হবেন সাজ্জাদ হাসিব। আজমানের পরে দ্বিতীয় বাঙালি হিসেবে গ্রামীণফোনের সিএমও’র দায়িত্ব পালন করবেন সাজ্জাদ।

গ্রামীণফোন মঙ্গলবার (২৮ জানুয়ারি) এক বিজ্ঞপ্তিতে জানায়, সিএমও হিসেবে সাজ্জাদ গ্রামীণফোনের সমন্বিত বিপণন বিভাগ পরিচালনা করবেন। এর মধ্যে রয়েছে ব্র্যান্ড স্ট্র্যাটেজি, মার্কেট কমিউনিকেশন্স, ডিজিটাল মার্কেটিং, বিজনেস ইনটেলিজেন্স ও কাস্টমার সার্ভিস। উদ্ভাবনী ডিজিটাল পণ্য ও সেবার উন্নয়নের মাধ্যমে গ্রাহকদের গুণগত সেবা দেওয়ার পাশাপাশি গ্রামীণফোনের প্রবৃদ্ধি বাড়াতে তিনি একসঙ্গে তার চলতি দায়িত্ব- দেশব্যাপী পাঁচটি সার্কেলের সেলস ও মার্কেটিং কার্যক্রমেরও দায়িত্ব পালন করবেন।

এক দশকেরও বেশি সময় ধরে সাজ্জাদ গ্রামীণফোনের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে দায়িত্ব পালন করেছেন। গ্রামীণফোনে যোগদানের আগে তিনি দেশে ও দেশের বাইরে ব্যাংকিং ও এফএমসিজি খাতে কাজ করার পাশাপাশি টেলিকম প্রতিষ্ঠানেও কাজ করেছেন। তিনি নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বিবিএ সম্পন্ন করেছেন এবং যুক্তরাজ্যের ইউনিভার্সিটি অব বেডফোর্ডশায়ার থেকে এমবিএ ডিগ্রি সম্পন্ন করেছেন।

গ্রামীণফোনে যোগ দেওয়ার পর তিনি প্রতিষ্ঠানটির মানোন্নয়নে বেশ কয়েকটি রূপান্তরমূলক কর্মকাণ্ডের নেতৃত্ব দিয়েছেন। এর মধ্যে রয়েছে এশিয়ায় অন্যতম বৃহৎ টেলকো ডিস্ট্রিবিউশন অপারেশন্স এর রি-মডেলিং অ্যান্ড বিল্ডিং, বিভিন্ন অঞ্চলে সেলস অ্যান্ড মার্কেটিংয়ের বিকেন্দ্রীকরণ এবং ডিজিটাইজেশন ও অ্যানালিটিকসের মাধ্যমে কার্যক্রমের আধুনিকায়ন।

ভবিষ্যৎ সক্ষমতা অর্জন, নেতৃত্বের বিকাশ, এবং প্রতিষ্ঠানের ভেতর সহযোগিতা বাড়ানোতে দৃঢ় বিশ্বাস রাখেন সাজ্জাদ।

এ প্রসঙ্গে ইয়াসির আজমান বলেন, সাজ্জাদ একজন অনুপ্রেরণামূলক নেতৃত্বের উদাহরণ। দক্ষতার সঙ্গে সঠিক দিকনির্দেশনা ও মনোভাব নিয়ে একটি বড় টিম পরিচালনা করার সক্ষমতা রয়েছে তার। প্রবৃদ্ধির মানসিকতা নিয়ে কাজ করার পাশাপাশি গ্রাহকদের গুণগত ও টেকসই মানের সেবা দিতে তিনি প্রতিষ্ঠানে নেতৃস্থানীয় ভূমিকা পালন করছেন। আমি আমার সিএমও’র দায়িত্বটি এমন একজন সঠিক মানুষের কাছে তুলে দিতে পেরে অত্যন্ত আনন্দিত। সাজ্জাদ তার দলের সদস্যের, গ্রাহকদের ও প্রতিষ্ঠান সম্পর্কে খবু ভালো ধারণা রাখেন। সাজ্জাদ এই গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্বটি নিতে রাজি হওয়ায় আমরা অত্যন্ত আনন্দিত।

দায়িত্ব পাওয়া প্রসঙ্গে সাজ্জাদ বলেন, নতুন এই দায়িত্বশীল পদে আমার ওপর বিশ্বাস রাখার জন্য আমি গ্রামীণফোনের ম্যানেজমেন্টের প্রতি কৃতজ্ঞ। গত ১৪ বছর ধরে পুরো প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে আমি যে ভালোবাসা, সম্মান ও সহযোগিতা পেয়েছি তাতে আমি অভিভূত।

তিনি আরও বলেন, আমি আমাদের কর্মাশিয়াল টিম নিয়ে অত্যন্ত গর্বিত। তারা প্রবৃদ্ধি, উদ্ভাবন এবং সর্বোপরি, বিশ্বসেরা মেধা দিয়ে সক্ষমতা অর্জনে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। এই চমৎকার টিম নিয়ে আমরা আমাদের গ্রাহকদের সেবা দেওয়ার পাশাপাশি ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণের উদ্দেশ্যে সামাজিক ক্ষমতায়ন, গ্রামীণফোন ব্র্যান্ডটিকে আরো এগিয়ে নেওয়া এবং গ্রাহকদের প্রয়োজনভিত্তিক মানসম্মত পন্য এ সেবা নিয়ে কাজ করবো।

নতুন এ দায়িত্বের আগে, সাজ্জাদ সিনিয়র ডিরেক্টর এবং অপারেশনস এর প্রধান হিসাবে দায়িত্ব পালন করেছেন। তার পেশাদারিক সাফল্যের মধ্যে রয়েছে ক্রমবর্ধমান মার্কেট শেয়ার, রাজস্ব বৃদ্ধি এবং গ্রাহকসেবার মানোন্নয়ন।