অভয়নগরে বৃদ্ধা জোসনা মন্ডল হত্যা মামলায় ভাইপো ধ্রুব অভিযুক্ত

নিজস্ব প্রতিবেদক : যশোর অভয়নগরের চলিশিয়া গ্রামের মৃত রাজেন্দ্র নাথ মন্ডলের স্ত্রী নিঃসন্তান বৃদ্ধা জোসনা মন্ডল হত্যা মামলায় ভাইপো ধ্র“ব মন্ডলকে অভিযুক্ত করে চার্জশিট দিয়েছে পিবিআই। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই শরিফুল ইসলাম তদন্ত শেষে আদালতে এ চার্জশিট জমা দিয়েছেন। ধ্র“ব মন্ডল অভয়নগরের ডুমুরতলা গ্রামের মৃত সুবল মন্ডরের ছেলে।

মামলার অভিযোগে জানা গেছে, ২০১৯ সালের ২৩ মার্চ অভয়নগর থানা পুলিশ ঘর থেকে জোসনা মন্ডলের লাশ উদ্ধার করে। জোসনা মন্ডলকে শ্বাসরোধ ও আঘাত করে হত্যা করা হয়েছে বলে অভয়নগর থানার এসআই জিয়াউর রহমান অপরিচিত ব্যক্তিদের আসামি করে হত্যা মামলা করেন। মামলাটি প্রথমে থানা পুলিশ পরে পিবিআই তদন্তের দায়িত্ব পায়।

মামলার তদন্ত সূত্রে জানা গেছে, ধ্র“ব মন্ডলের ফুফু জোসনা মন্ডল নিঃসন্তান হওয়ায় তাকে মানুষ করেছিল। স্বামী রাজেন্দ্রনাথ মন্ডলের মৃত্যুর পর জোসনা মন্ডল সাত শতক জমি পায়। এ জমিতে তিনি বসবাস করতেন। ধ্র“ব  ফুফু জোসনা মন্ডল প্রায় তাকে তার জমিতে ঘর বানিয়ে বসবাস করতে বলতো। এ জমি ধ্র“বর নামে লিখে না দেয়ায় সে তার বসবাস করতে রাজি হয়নি। এ নিয়ে ফুফুর সাথে বিরোধ চলছিল ধ্র“বর। ২২ মার্চ ফুফুর বাড়ি যায় ধ্র“ব মন্ডল। জমি লিখে না দেয়ায় ফুফুর সাথে কথাকাটাকাটির এক পর্যায়ে শাড়ি দিয়ে গলায় পেঁচিয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে। এরপর লাশ খাটের উপর ফেলে রেখে ধ্র“ব পালিয়ে যায় ।

পরে পুলিশ ধ্র“বকে আটক করে আদালতে সোপর্দ করলে হত্যার সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে জবানবন্দি দেয়। তার দেয়া জবানবন্দির তথ্য যাচাই-বাছাই ও স্বাক্ষীদের বক্তব্যে হত্যার সাথে জড়িত থাকায় ধ্র“ব মন্ডলকে অভিযুক্ত করে আদালতে এ চার্জশিট জমা দিয়েছেন তদন্তকারী কর্মকর্তা। চার্জশিটে ধ্র“ব মন্ডলকে আটক দেখানো হয়েছে।