অভিষেক নড়াইলের আরেক মাশরাফি  

ফরহাদ খান, নড়াইল : বাংলাদেশ ক্রিকেটদলের জীবন্ত কিংবদন্তি মাশরাফি বিন মর্তুজা এমপি’র জেলার আরেক উজ্জ্বল নক্ষত্র ‘অভিষেক দাস’। তবে বাবা-মা, পরিবার-পরিজন ও বন্ধুদের কাছে ‘অরণ্য’ নামে বেশি পরিচিত। সেই অরণ্য বা ক্রিকেট বিশ্বের ‘অভিষেক’ই ৩ ইউকেট ফেলে যুব বিশ্বকাপ বিজয়ে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখেছেন। তার বাড়ি নড়াইল শহরের চিত্রা নদীর পাড়ে বাঁধাঘাট চত্বরে। যে চিত্রা নদীতে সাঁতার কেটে, দুরন্তপনায় বেড়ে উঠেছেন ক্রিকেট বিশ্বের আরেক কিংবদন্তি নড়াইলের ‘কৌশিক’ তথা মাশরাফি বিন মর্তুজা। সেই চিত্রাপাড়ের ছেলে অভিষেক। যিনি যুব বিশ্বকাপে ভারতের বিপক্ষে গুরুত্বপূর্ণ ৩ উইকেট শিকার করে দলের জন্য ব্যাপক অবদান রাখেন। তার এই অবদানের জন্য আনন্দিত অভিষেকের বাবা-মা, পরিবার-পরিজন ও বন্ধুবান্ধবসহ নড়াইলবাসী। অভিষেককে অভিনন্দন জানিয়েছে ফেসবুকেও ঝড় তুলছেন নড়াইলসহ দেশের ক্রিকেটপ্রেমীরা।

অরণ্য তথা অভিষেকের বাবা অসিত দাস ও মা করুনা দাস বলেন, আমরা ভীষণ খুশি হয়েছি। যা ভাষায় প্রকাশ করা যায় না। ও দলের জন্য ভবিষ্যতে আরো ভালো করবে-এই কামনা করি। অরণ্য (অভিষেক) আমাদের সোনার সন্তান মাশরাফির আদর্শে অনুপ্রাণিত। ও ক্রিকেটে বাংলাদেশের মুখ আরো উজ্জ্বল করবে বলে আমরা আশাবাদী।

অভিষেকের বাবা-মা আরো বলেন, রোববার (৯ ফেব্রুয়ারি) অনুষ্ঠিত যুব বিশ্বকাপ ক্রিকেট খেলা শেষ পর্যন্ত দেখেছি আমরা। আমাদের বাড়ির পাশে বাঁধাঘাট চত্বরে বড় পর্দায় সবাই খেলা দেখেছেন। আমরাও তাদের সাথে এই খেলা উপভোগ করেছি। বাংলাদেশ জয়ী হওয়ায় আমরা ভীষণ আনন্দিত। অভিষেক এবার নড়াইল সরকারি ভিক্টোরিয়া কলেজে থেকে ‘ব্যবসায় শিক্ষা’ শাখায় উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করবে। এসএসসিতে ‘এ’ পেয়েছিল।

এদিকে ভারতের বিপক্ষে যুব বিশ্বকাপ বিজয়ের পর থেকে প্রতিদিন অভিষেকদের বাড়িতে বিভিন্ন পেশার মানুষের ভিড় লক্ষ্য করা যাচ্ছে। জেলা শহরসহ গ্রামাঞ্চলে সর্বত্র চলছে ’অভিষেক বন্ধনা’। সবার মুখে একটিই কথা-ক্রিকেট বিশ্বের ‘জীবন্ত কিংবদন্তি মাশরাফি’র উত্তরসূরি ’আমাদের অভিষেক’।