যশোর সদর ও মণিরামপুরে শতভাগ বিদ্যুতায়নের উদ্বোধন

নিজস্ব প্রতিবেদক : ৭ জেলার সাথে যশোরের সদর ও মণিরামপুর উপজেলায় শতভাগ বিদ্যুতায়নের উদ্বোধন হয়েছে। ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এর উদ্বোধন করেন। বুধবার সকালে যশোরের জেলা প্রশাসকের সম্মেলনকক্ষে প্রশাসন ও বিদ্যুৎ বিভাগের উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তাবৃন্দসহ বিভিন্ন শ্রেণিপেশার প্রতিনিধি উপস্থিত ছিলেন। সেখান থেকে তারা এই ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে দুই উপেজেলার শতভাগ বিদ্যুতায়নের উদ্বোধনে অংশ নেন।

উদ্বোধনী বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, দেশের ৬৪টি জেলার মধ্যে ৪০টি পুরোপুরি বিদ্যুতের আওতায় এসেছে। বাকি জেলা ও উপজেলা গুলোও শতভাগ বিদ্যুতের আওতায় নিয়ে এসে মুজিববর্ষে প্রতিটি ঘর আলোকিত করা হবে। এই লক্ষ্যপূরণে কাজ চলমান রয়েছে।

গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ৭ জেলা ও ২৩ উপজেলায় শতভাগ বিদ্যুতায়ন এবং ফেনীতে ভারি জ্বালানি তেলচালিত ১১৪ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ কেন্দ্রের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী। একই অনুষ্ঠান থেকে রাজশাহীতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব হাইটেক পার্কে শেখ কামাল আইটি ইনকিউবেটর অ্যান্ড ট্রেনিং সেন্টারেরও উদ্বোধন করা হয়।

শতভাগ বিদ্যুতায়ন নিশ্চিতের লক্ষ্যে যশোর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১’র অধীনে সদর উজেলায় ২ হাজার ১০০ কিলোমিটার নতুন লাইন বসানো হয়েছে। এছাড়া নির্মাণ করা হয়েছে ৭৫ এমভি ক্ষমতার ৫টি বৈদ্যুতিক উপকেন্দ্র। আর কাজে ব্যয় করা হয়েছে ২৫৫ কোটি টাকা। সদরের ৫২টি গ্রামে মোট সংযোগ হলো ১ লাখ ২২ হাজার ১৯১টি।

এদিকে মণিরামপুর উপজেলায় ২ হাজার ১৯৩ কিলোমিটার জুড়ে লাইন নির্মাণ করা হয়েছে। পাশাপাশি উপজেলাতে নির্মাণ করা হয়েছে ৪০ এমভি ক্ষমতার ৪টি উপকেন্দ্র। আর এই কাজে ব্যয় হয়েছে ৩৫১ কোটি টাকা। উপজেলার ২৪৮টি গ্রামে গ্রাহকের সংখ্যা ১ লাখ ২২ হাজার ৮৩৩।

ভিডিও কনফারেন্সের সময়  জেলা প্রশাসকের সম্মেলনকক্ষে উপস্থিত ছিলেন যশোরের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ শফিউল আরিফ, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) রফিকুল হাসান, বিদ্যুৎ মন্ত্রণালয়ের ডেপুটি চিফ তানিয়া খান, যশোর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সাইফুজ্জামান পিকুল, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) শাম্মি ইসলাম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার গোলাম রব্বানী শেখ,ওয়েস্টজোন পাওয়ার ডিসটিবিউশন কোম্পানি লিঃ মিঃ এর প্রিপেইড মিটারের প্রজেক্ট ডাইরেক্টর শহিদুল আলম.পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ড যশোরের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী বিশ্বনাথ শিকদার, মুক্তিযোদ্ধা রাজেক আহমেদ, মণিরামপুর পৌর মেয়র অধ্যক্ষ কাজী মাহামুদুল হাসান, সিনিয়র তথ্য কর্মকর্তা এএসএম কবীর, যশোর সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোহিত কুমার নাথ, সাধারণ সম্পাদক ইউপি চেয়ারম্যান শাহারুল ইসলাম প্রমুখ।