রমজান সামনে রেখে তেল-চিনি কিনছে সরকার

মুর্শিদুল আজিম হিরু : আসন্ন রমজানে চাহিদা ও সরবরাহের যোগান ঠিক রাখতে ২৫ হাজার মেট্রিকটন চিনি এবং ৩০ হাজার মেট্রিকটন সয়াবিন তেল কেনার প্রস্তাবে অনুমোদন দিয়েছে সরকার।

অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের সভাপতিত্বে বুধবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) সচিবালয়ে অনুষ্ঠিত সভায় স্থানীয়ভাবে সরাসরি কেনার মাধ্যমে এসব চিনি ও সয়াবিন তেল কেনার প্রস্তাব অনুমোদন করেছে সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি।

সভা শেষে অর্থমন্ত্রী বলেন, রমজান মাসে আমাদের নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র যেগুলো লাগে সরকারের সিদ্ধান্ত হচ্ছে- অ্যাট এনি কস্ট আমাদের ডিমান্ড ও সাপ্লাইয়ের মধ্যে যেন কোনো রকম মিসম্যাস না আসে। আমাদের সাপ্লাই চেইন যেন শক্তিশালী থাকে। সাপ্লাই চেইনের মধ্যে আমাদের মূল সাপ্লাই চেইন ব্যবহার করবে টিসিবি, সরকারি প্রতিষ্ঠান। টিসিবির মাধ্যমে যখন কোনো জিনিস প্রকিউর করবো এবং ডিস্ট্রিবিউট করবো, এগুলোর জন্য আমরা খুব লিবারেল ওয়েতে তাদের বিষয়গুলো বিবেচনায় নেবো।

‘আমরা দেশ ও জনগণের স্বার্থে কিছু ওয়েবার দিতে পারি। কখনও কখনও জরুরি প্রকিউরমেন্ট লাগে, আমরা জরুরিভিত্তিতে সব নিয়ম-নীতি নাও মানতে পারি, না মেনেও হয়তো আমাদের সিদ্ধান্ত নিতে হতে পারে। আমাদের কাছে দেশ ও দেশের মানুষ অবশ্যই অগ্রাধিকার পাবে।’

অর্থমন্ত্রী বলেন, রমজান মাস সামনে। আমরা আশা করবো আল্লাহর রহমতে যে বিপর্যয় এখন সারা বিশ্ব সহ্য করছে, সেগুলো সব শেষ হয়ে যাবে। আমরা স্বাভাবিক ও সুন্দরভাবে রমজান মাস শেষ করে ঈদের প্রত্যাশায় আছি।

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব নাসিমা বেগম জানান, সর্বনিম্ন দরদাতা হিসেবে সিটি সুগার ইন্ডাট্রিজের কাছ থেকে ৬১ দশমিক ২৫ টাকায় প্রতি কেজি চিনি কেনা হবে। গুদাম পর্যন্ত পৌঁছে দেওয়ায় এই মূল্য প্রযোজ্য হবে।

সভায় ৩০ হাজার মেট্রিকটন সয়াবিন তেল কেনারও প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয় জানিয়ে তিনি বলেন, ২ লিটার এবং ৫ লিটারের বোতলে কেনা হবে। ২ লিটার বোতলের প্রতি লিটারের দাম ৯১ দশমিক ৯৫ টাকা এবং ৫ লিটার বোতলের প্রতি লিটারের দাম পড়বে ৯০ দশমিক ৯৫ টাকা।

বসুন্ধরা গ্রুপ ও সুপার অয়েল রিফাইনারি লিমিটেডের কাছ থেকে সয়াবিন তেল কেনা হবে বলে জানান নাসিমা বেগম।

বাংলাদেশ সময়: ১৯২১ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০২০