ডা. খোরশেদ আলমের মৃত্যুবার্ষিকীতে কর্মশালা

নিজস্ব প্রতিবেদক : যশোর হোমিওপ্যাথিক মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের প্রাক্তন অধ্যক্ষ ডা. খোরশেদ আলমের ৬ষ্ঠ মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে ‘হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসার গুরুত্ব ও প্রয়োজনীয়তা শীর্ষক কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার হোটেল ওরিয়নে অনুষ্ঠিত এই কর্মশালায় প্রধান অতিথি ছিলেন স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য্য। তিনি বলেন, খোরশেদ আলম একজন বিশিষ্ট হোমিওপ্যাথি চিকিৎসক হিসেবে খ্যাতি অর্জন করেছিলেন। তিনি গরিবের চিকিৎসক হিসেবেও সুনাম কুড়িয়েছিলেন। তার গুণগুলো প্রত্যেক চিকিৎসকের কাছে আদর্শ হতে পারে।

বাংলাদেশ পাবলিক সার্ভিস কমিশনের সাবেক মনোবিজ্ঞানী রওশন আরা জামানের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন যশোরের জেলা প্রশাসক শফিউল আরিফ, যশোর মেডিকেল কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ প্রফেসর ডা. মোহাম্মদ গিয়াস উদ্দিন, যশোর সরকারি সিটি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর আবু তোরাব মোহাম্মদ হাসান, যশোর সরকারি মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর ড. আহসান হাবীব, যশোর ক্যান্টনমেন্ট কলেজের অধ্যক্ষ লেঃ কর্ণেল আমিনুর রহমান, প্রেসক্লাব যশোরের সভাপতি জাহিদ হাসান টুকুন, যশোরের সিভিল সার্জন ডা. শেখ আবু শাহীন, যশোর টিটিসি কলেজের অধ্যক্ষ কাজী বরকুতুল ইসলাম, যশোর হোমিওপ্যাথিক মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের অধ্যক্ষ হাফিজুর রহমান ও  যশোর রেল স্টেশন মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা  আনোয়ারুল করিম।

হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসার গুরুত্ব ও প্রয়োজনীয়তার মূল বিষয়বস্তু আলোচনা করেন যশোর পুলিশ হসপিটালের সাবেক মেডিকেল অফিসার ও বিশিষ্ট হোমিওপ্যাথ  ডা. এসএম রবিউল আলম। ডা. খোরশেদ আলম স্মৃতি সংঘ এই কর্মশালার আয়োজন করে।