যশোর লকডাউনের মত পরিস্থিতি তৈরি হয়নি

নিজস্ব প্রতিবেদক : যশোর লকডাউনের মতো কোনো পরিস্থিতি তৈরি হয়নি। সোমবার থেকে দোকান পাট হচ্ছে এ খবর সঠিক নয় বলে জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ শফিউল আরিফ। রোববার বিকেলে যশোর কালেক্টরেট সভা কক্ষে ব্যবসায়ীদের সাথে মতবিনিময় শেষে এ কথা জানান।

এর আগে দুপুরে ব্যবসায়ীদের সাথে পৌর মেয়র জহিরুল ইসলাম চাকলাদার রেন্টু মতবিনিময় করেন। ওই সভায় জরুরি প্রয়োজন ছাড়া দোকানপাট বন্ধ রাখার পক্ষে মত দেন ব্যবসায়ীরা। এ মতামত মুহূর্তের মধ্যে বাজারে ছড়িয়ে পড়ে। ক্রেতারাও বাজারে অযথা ভিড় বাড়ায়। পরে জেলা প্রশাসন আর এক দফা ব্যবসায়ীদের সাথে বসে। ওই সভায় জেলা প্রশাসক যশোরের বাজারে নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসের দাম না বাড়ানোর জন্য ব্যবসায়ীদের প্রতি আহবান জানান। তিনি বলেন করোনা ভাইরাস নিয়ে আতঙ্কিত হওয়া যাবে না। সচেতন হতে হবে। শুধু নিজে সচেতন হলে হবে না, অন্যকে সচেতন করতে হবে।

যশোরের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ শফিউল আরিফের সভাপতিত্বে  উপস্থিত ছিলেন ও বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের উপসচিব কামরুল আরিফ, পৌর মেয়র জহিরুল ইসলাম চাকলাদার রেন্টু, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক ( সার্বিক) রফিকুল হাসান, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আবুল লাইচ, এনডিসি প্রীতম সাহা, প্রেস ক্লাব যশোরের সভাপতি জাহিদ হাসান টুকুন, সাধারণ সম্পাদক আহসান কবীর বাবু, সাবেক সাধারণ সম্পাদক এসএম তৌহিদুর রহমান, সংবাদপত্র পরিষদের সভাপতি একরাম উদ দ্দৌলা, যশোর সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি সাজেদ রহমান বকুল, সাবেক সভাপতি সাজ্জাদ গণি খান রিমন, সিটি ক্যাবলের চেয়ারম্যান মীর মোশারেফ হোসেন বাবু, কাপড় ব্যবসায়ী বিশ^নাথ বিশ^াস, আবু হোসেন, বজলুর রহমান, আব্দুস সালাম প্রমুখ।

যশোর পৌরসভায় ব্যবাসয়ীদের সাথে মতবিনিময় সভায় পৌর মেয়র জহিরুল ইসলাম চাকলাদার রেন্টু সভাপতিত্ব করেন। বক্তব্য রাখেন সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কামরুজ্জামান, প্রকল্প কর্মকর্তা ফিরোজ আহমেদ, কাউন্সিলর রাশেদ আব্বাজ রাজ, পৌরসভার সচিব আজমল হোসেন, সিটি ক্যাবলের চেয়ারম্যান মীর মোশারেফ হোসেন বাবু, ব্যবসায়ী তুষার মজিদ, আবু হোসেন প্রমুখ।