ওষুধের দাম নিয়ে কালীগঞ্জে মতবিনিময় সভা

কালীগঞ্জ (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি : অবশেষে দাম কমলো সেই ঔষধের। আলোচিত ১’শ ৯০ টাকায় ইনজেকশন এখন থেকে ১০৫ টাকা রেটে বিক্রি করবে ফার্মেসির মালিকরা। তারা ক্লিনিক্যাল ওষুধে ক্রয় মূল্যে থেকে ১০ পার্সেন্ট মুনাফা এবং সাধারণ ঔষধ ক্রয়ে দামের পর শতকরা ৩%. ও হারবাল আয়ুর্বেদ ঔষধে ৫০% কম নেবার চুড়ান্ত সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছে। বুধবার সকালে কালীগঞ্জ পৌরসভাতে এমপি আনোয়ারুল আজিম আনার, মেয়র আশরাফুল আলম আশরাফ, সাংবাদিক ও ফারিয়া নেতৃবৃন্দের উপস্থিতিতে ওষুধ ব্যবসায়ীদের সাথে ওষুধের প্রকৃত মূল্য নিধারণে এক সমঝোতা বৈঠকে ওইসব সিদ্বান্ত গৃহিত হয়। বুধবার থেকে তা কার্র্যকর করবে বলে কালীগঞ্জ ঔষধ ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দগণ সভাতে ঘোষণা দিয়েছেন।

কালীগঞ্জ পৌরসভার আয়োজনে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় মেয়র আশরাফ জানান, গত ৬ মাস ধরে কালীগঞ্জের ঔষধ ব্যবসায়ীরা সমিতির অজুহাতে এমআরপি রেটের ঔষধ বিক্রয় করছিল। নিত্যপ্রয়োজনীয় ওইসব ঔষধ কিনতে গিয়ে সাধারণ মানুষ নাজেহাল ও সর্বশান্ত হচ্ছিল। সর্বশেষ গত সোমবার ইনসেপটা কোম্পানির ৯৫ টাকার এক্্িরফিন ১ গ্রাম আইভি ইনজেকশনটি ১’শত ৯০ টাকা বিক্রি নিয়ে বিরোধ চরমে আসে। শেষঅবধি এ নিয়ে পত্রিকায় খবর বের হলে বিষয়টি আরো জটিলতায় পৌঁছে। এরপর ঔষধ ব্যবসায়ীগণ পৌর মেয়রের স্মরণাপন্ন হলে তিনি এমপি মহোদয়ের সাথে আলোচনা করে তা নিরসনের এক মতবিনিময় সভা আয়োজন করেন।

বুধবার অনুষ্ঠিত এ মতবিনিময়ে ঔষধ ব্যবসায়ীগণ পূর্বের ন্যায় উপরোক্ত ছাড়ে ঔষধ বিক্রির প্রতিশ্রুতি দেন। এ মতবিনিময়ে উপস্থিত ছিলেন কালীগঞ্জ ঔষধ ড্রাগ সমিতির সভাপতি সাখাওয়াৎ হোসেন, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল জব্বার, লিটন ফার্মেসির লিটন মিয়া, সাহা ফার্ম্মেসীর বাবলু সাহা, উপজেলা কৃষকলীগের সভাপতি আবুল কালাম আজাদ, কালীগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি জামির হোসেন, সাধারণ সম্পাদক সাবজাল হোসেন, সাংবাদিক টিপু সুলতান, তারেক মাহমুদ, হাবিব ওসমান, আরিফ মোল্ল্যা ও রিয়াজ মোল্ল্যা, ঔষধ পরিবেশক ফারিয়ার সভাপতি আশিকুর রহমান সোহাগসহ বিভিন্ন ঔষধ কোম্পানির প্রতিনিধি ও পৌরসভার কাউন্সিলরগণ।