করোনা : সরকারি সহায়তা পাচ্ছে অসহায় মানুষ, যশোরে বরাদ্দ ১শ মেট্রিকটন চাল ও ১০ লাখ টাকা


মিরাজুল কবীর টিটো:
করোনা ভাইরাস পরিস্থিতি মোকাবেলার লক্ষে যশোরে সাধারণ খেটে খাওয়া অসহায় মানুষের খাদ্য সহায়তা দেবে সরকার। এ লক্ষে যশোরের আট উপজেলা ও আট পৌরসভার জন্য ১শ  মেট্রিকটন চাল ও ১০ লাখ টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। প্রাথমিকপর্যায়ে যশোর জেলায় ১০ হাজার অসহায় মানুষকে খাদ্য সহায়তা দেয়া হবে। বরাদ্দকৃত চাল ও টাকার মধ্যে ১শ মেট্রিকটন চাল ও ৬ লক্ষ টাকা উপজেলা ও পৌরসভায় পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে বলে জানান জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা সানোয়ার হোসেন। তবে ইউনিয়ন গুলোতে এ কার্যক্রম শুরু করা হয়েছে বলে জানান সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ কামরুজ্জামান।
ত্রান ও পুনর্বাসন শাখা জানায় ১০০ মেট্রিকটন চাল ও ছয় লক্ষ টাকার মধ্যে যশোর সদরে ২৫ মেটিকটন চাল, ১ লাখ ৪০ হাজার টাকা,মনিরামপুরে ১৫ মেট্রিকটন চাল, ১ লক্ষ টাকা, কেশবপুরে ১০ মেট্রিকটন চাল, ৬০ হাজার টাকা, শার্শায় ১০ মেট্রিকটন চাল, ৬০ হাজার টাকা, ঝিকরগাছায় ১০ মেট্রিকটন চাল, ৬০ হাজার টাকা, অভয়নগরে ১০ মেট্রিকটন চাল, ৬০ হাজার টাকা, বাঘারপাড়ায়১০ মেট্রিকটন চাল, ৬০ হাজার টাকা, চৌগাছায় ১০ মেট্রিকটন চাল, ৬০ হাজার টাকা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে। সেখান থেকে দেয়া হয়েছে প্রত্যেক ইউনিয়ন ও পৌরসভায়। তবে চালর সাথ ২ কেজি আলু, ১ কেজি তেল ১ কেজি লবন,ও ১ কেজি ডাল ও সাবান প্যাকেট করে বাড়িতে বাড়িতে পৌঁছে দেয়া হবে জনপ্রতিনিধিদের মাধ্যমে। কাউকে এজন্য বাইরে আসতে হবে না।
এ ব্যাপারে যশোরের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ শফিউল আরিফ জানান, মানুষকে করোনা ভাইরাস থেকে রক্ষা করতে বাড়ি বের হতে নিরুৎসাহিত করা হচ্ছে। এসব খেটে খাওয়া অসহায় মানুষের খাদ্য সহায়তা দিচ্ছে সরকার। খাদ্য সহায়তা ঘরে ঘরে পৌঁছে দেয়া হবে।
এদিকে এ সংক্রান্ত বিষয়ে যশোর পৌরসভায় শনিবার আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। যশোরের পৌর মেয়র জহিরুল ইসলাম চাকলাদার রেন্টুর সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন প্যানেল মেয়র হাবিবুর রহমান চাকলাদার মনি,মুস্তাফিজুর রহমান মুস্তা, গ্রামের কাগজের সম্পাদক মবিনুল ইসলাম মবিন,দৈনিক স্পন্দনের নির্বাহী সম্পাদক মাহাবুব আলম লাবলু, কাউন্সিলর মোকসিমুল বারী অপু, সন্তোষ দত্ত,গোলাম মোস্তফা, রাসেদ আব্বাস রাজ,রোকেয়া পারভিন ডলি , আজিজুর রহমান, প্রিপারেটরী স্কুলের প্রধান শিক্ষক আব্দুস সবুর খান,পৌর সচিব আজমল হোসেন, প্রশাসনিক কর্মকর্তা উত্তম কমুার কুন্ডু প্রমুখ। সভায় ২০ সদস্য বিশিষ্ট করোনা প্রতিরোধ কমিটি প্রকাশ করা হয়। কমিটির সভাপতি পৌর মেয়র জহিরুল ইসলাম চাকলাদার রেন্টু, সদস্য সচিব পৌরসভার সচিব আমল হোসেন,সদস্য হাবিবুর রহমান চাকলাদার মনি,মুস্তাফিজুর রহমান মুস্তা, গ্রামের কাগজের সম্পাদক মবিনুল ইসলাম মবিন, কাউন্সিলর মোকসিমুল বারী অপু, সন্তোষ দত্ত,গোলাম মোস্তফা, রাসেদ আব্বাস রাজ,রোকেয়া পারভিন ডলি , নাসিমা পারভিন জলি,আজিজুর রহমান, প্রিপারেটরী স্কুলের প্রধান শিক্ষক আব্দুস সবুর খান,যশোর সরকারি এমএম কলেজের সহযোগী অধ্যাপক খন্দকার আমিনুর রহমান, প্রভাষক আজহার হোসেন স্বপন, স্যানিটেশন ইন্সপেক্টর ওহিদুজ্জামান, মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম প্রমুখ।এদিকে, দুপুর ১টায় যশোর পৌরসভার ৭নম্বর ওয়ার্ডে খাদ্য দেয়ার কার্যক্রম উদ্বোধন করেন পৌর মেয়র জহিরুল ইসলাম চাকলাদার রেন্টু।