খুঁজে খুঁজে নিম্ন আয়ের মানুষুকে খাদ্যসামগ্রি দিচ্ছেন চৌগাছার ইউএনও

 

 

 

চৌগাছা (যশোর) প্রতিনিধি : যশোরের চৌগাছা শহরে নিন্ম আয়ের মানুষের মাঝে খাদ্য সামগ্রি বিতরণ করেছেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার জাহিদুল ইসলাম। তিনি খাদ্য সামগ্রি নিয়ে খুঁজে খুঁজে ভ্যান-রিক্সা চালক ও নিম্ন আয়ের ব্যবসায়ীদের চাল, ডাল, আলু ও সাবান বিতরণ করেছেন। মঙ্গলবার দুপুরে শহরের বিভিন্ন স্থানে খুঁজে খুঁজে প্রত্যেককে ১০ কেজি চাল, ২ কেজি গোলআলু, হাফ কেজি মসুর ডাল ও একটি করে লাইফবয় সাবান প্রদান করেন। একইসাথে তাদেরকে আগামী কয়টা দিন শহরে না বেরিয়ে বাড়িতে থাকার জন্য পরামর্শ দিচ্ছেন। দিন আনা দিনখাওয়া এসব ব্যক্তিরা রোজগারের আশায় শহরে এলেও তেমন কোন উপার্জন হচ্ছিল না। হঠাৎ করেই ইউএনওর কাছ থেকে এভাবে চাল ডাল পেয়ে খুশি হয়েছেন এসব মানুষ।

খাদ্য দ্রব্য পাওয়া ভ্যান চালক মিন্টু  হোসেন বলেন, ইউএনও সাহেব ডেকে এই খাবার গুলো দিলেন আর বললেন ‘আর কয়েকটা দিন বাজারে বেরোবেন না’। বাজারে তো ভাড়াই হচ্ছে না। এমনকি ইঞ্জিন ভ্যানে চার্জ দিতে যে খরচ তাও ওঠছে না। খুব শুশি হয়েছি, কদিন খেয়ে বাঁচতে পারবো।

ভ্রাম্যমাণ ভ্যানে শসা বিক্রেতা আব্দুল আলিম বলেন, ইউএনও সাহেব গাড়িতে করে এসে এটা আমাকে দিয়েছেন। আর বলেছেন যে শসাগুলো আছে ওগুলো বেঁচে বাড়িতে চলে যাবেন। আর এই ব্যাগটাতে খাবার আছে। এগুলো বাড়ি নিয়ে যাবেন। আগামি সাতটা দিন আর বাজারে না এসে বাড়িতে থাকবেন। এগুলো দিয়ে এ কয়দিন একটু কষ্ট করে চলবেন।

আলীম আরো বলেন, আমরা দিন আনা দিন খাওয়া মানুষ পেটের দায়েই বাজারে আসি। আগামি কটা দিনের তো ব্যবস্থা হয়েছে। এ কদিন বাড়িতেই থাকবো।

ফুটপথে ফল বিক্রেতা আব্দুল আজিজ, কাঠালপাতা বিক্রেতা বৃদ্ধশরিফ উদ্দীনসহ  খুঁজে খুঁজে শহরের ৪০/৫০ ব্যক্তিকে খাদ্যদ্রব্য বিতরণ করেন নির্বাহী কর্মকর্তা। এসময় উপস্থিত ছিলেন সহকারী কমিশনার (ভূমি) নারায়ণ চন্দ্র পাল ও উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা ইশতিয়াক আহমেদ।

ইউএনও জাহিদুল ইসলাম বলেন, আজ কিছু ভ্যান চালক ও ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের খাবার দেয়া হয়েছে। অন্যদেরও তালিকা করা হয়েছে। আমি নিজে সরকারি খাদ্য বিতরণ কাজ মনিটরিং করছি। কর্মহীন হয়ে পড়া এসব দিনমজুরদের সবাইকেই খাদ্য দেয়া হবে। আমাদের খাদ্যদ্রব্যের কোন সংকট নেই। সামনের যে দিনগুলো বাড়িতে থাকতে বলা হয়েছে সেইদিন গুলো অবশ্য বাড়িতে থাকা নিশ্চিত করতে হবে। আল্লাহর রহমতে কেউ না খেয়ে থাকবে না।