সৌদিতে করোনায় মৃত্যু হওয়া চিকিৎসক আফাকের দাফন

নিজস্ব প্রতিবেদক : করোনা ভাইরাসে মৃত্যু হওয়া যশোরের বাঘারপাড়ার সন্তান চিকিৎসক আফাক হোসেন মোল্লার দাফন সম্পন্ন হয়েছে। শনিবার জোহর বাদ সৌদি আরবের মসজিদে নববীতে জানাজা শেষে জান্নাতুল বাকিতে সরকারের পক্ষ থেকে নিহতের লাশ দাফন করা হয়।

নিহত আফাক যশোরের বাঘারপাড়া উপজেলার পুকুরিয়া গ্রামের আমজাদ হোসেন মাস্টারের ছেলে ও যশোরের শার্শা উপজেলার বাগআঁচড়া এলাকার সাবেক চেয়ারম্যান আবু দাউদের বড় জামাই।

গত মঙ্গলবার সৌদি আরবের মদিনার একটি হাসপাতালে বাংলাদেশ সময় সকাল ৬ টায় তার মৃত্যু হয়। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, দুই মেয়ে, এক ছেলেসহ অসংখ্য গুনাগ্রহী রেখে গেছেন। এর আগে সৌদি আরবে করোনা মোকাবেলায় তিনি রোগীদের নিয়মিত চিকিৎসা সেবা দিয়ে আসছিলেন। বর্তমানে তার স্ত্রী জেসমিন জাহান শিরিন সৌদি আরবে বিশেষ নজরদারিতে রয়েছে।

ডাক্তার আফাক হোসেন ঝিনাইদহ ক্যাডেট কলেজের ছাত্র ছিলেন। এরপর স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজের পঞ্চম ব্যাচের শিক্ষার্থী হয়ে এমবিবিএস পাস করেন তিনি। পরে চিকিৎসা সেবায় অর্থপেডিক্স বিভাগে বিশেষ প্রশিক্ষণে তিনি দীর্ঘদিন ইরানে ডাক্তারি প্রাকটিস করেন। যশোর এসে রেলরোডে বুশরা অর্থপেডিক্স ক্লিনিক নামের একটি প্রতিষ্ঠান খোলেন। সর্বশেষ ২০০০ সালে তিনি স্বপরিবারে সৌদিতে পাড়ি জমান। মৃত্যুর আগ পর্যন্ত তিনি মদিনায় সাফা আল-মদিনা ক্লিনিকে অর্থপেডিক্স বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক হিসেবে কর্মরত ছিলেন। স্ত্রী আর তিনি মদিনার একটি ফ্লাটে বসবাস করতেন। তিনি অসংখ্য করোনা রোগীকে সেবা দিয়ে সুস্থ করে তুললে সর্বশেষ তিনি নিজেই করোনার কাছে অসহায় আত্মসমর্পণ করেন।