১০ টাকায় চাল: উপকৃত হবে ৫ কোটি মানুষ

স্পন্দন নিউজ ডেস্ক  : ১০ টাকায় চাল বিক্রির এক কোটি রেশন কার্ডের আওতায় প্রায় পাঁচ কোটি মানুষ উপকৃত হবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

সোমবার (২০ এপ্রিল) সকালে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে ঢাকা বিভাগের কিশোরগঞ্জ, টাঙ্গাইল, গাজীপুর ও মানিকগঞ্জ জেলা এবং ময়মনসিংহ বিভাগের জেলাগুলোর মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে একথা জানান প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ৫০ লাখ লোকের রেশন কার্ড আছে যারা যারা ১০ টাকায় চাল কিনতে পারেন। আমরা এখন ওএমএস চালটাও ১০ টাকায় করে দিয়েছি। সেখানেও আমরা আরও ৫০ লাখ পরিবারের জন্য কার্ড করে দেবো। সেই তালিকাও আমরা করতে বলেছি যেটা একেবারে ডাটাবেজ করা থাকবে।

‘যারা কিছু পাচ্ছেন না, বা যারা হাত পাততেও পারছেন না, কারো কাছে চাইতেও পারছেন না তাদের জন্য এই ব্যবস্থাটা আমরা নিয়েছি। তাতে আমরা হিসাব করে দেখেছি প্রায় ৫ কোটি মানুষ- অর্থাৎ একটা পরিবারকে আমরা যদি ৪/৫ জন করে ধরি তাহলে ৫ কোটি মানুষই কিন্তু এই উপকার পাবে। অর্থাৎ প্রত্যেকটা মানুষ যেন খেতে পারে।’

১০ টাকায় চালের রেশন কার্ডের তালিকা যথাযথভাবে করতে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা যে অতিরিক্ত ৫০ লাখ কার্ড দেবো, যারা ১০ টাকায় চাল পাবে সেই তালিকাটা করা, এই তালিকাটা যাতে যথাযথভাবে হয়। যারা সত্যিকারের দুস্থ, যাদের প্রয়োজন তারা যেন পায়। যারা বয়স্ক ভাতা-বিধবা ভাতা অন্য কিছু পাচ্ছে তারা পাবে না। আমাদের সামাজিক সুরক্ষা বা অন্য সুযোগ সুবিধা থেকে যারা বাইরে তাদের জন্য এটা করতে হবে।

ভিডিও কনফারেন্স সঞ্চালনা করেন প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব ড. আহমদ কায়কাউস।

গণভবন প্রান্তে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব মো. তোফাজ্জল হোসেন মিয়া, প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম।