যশোরে দুর্বৃত্তদের গুলিতে মটর শ্রমিক নেতা মিন্টু গাজী আহত

নিজস্ব প্রতিবেদক : জুয়া খেলা ও মাদকদ্রব্য কেনাবেচা নিয়ে বিরোধের জেরে যশোর মটর শ্রমিক ইমদাদুল হক ইমাদুলকে মারতে গিয়ে দুর্বৃত্তদের ছোড়া গুলিতে আহত হয়েছেন শ্রমিক নেতা মিন্টু গাজী। সোমবার বিকেলে শহরের বকচর হুশতলা কপোতাক্ষ নামক প্লটের কাছে এ ঘটনা ঘটে। মিন্টু গাজী বকচর হুশতলা এলাকার হামিদ গাজীর ছেলে এবং পরিবহন সংস্থা শ্রমিক ইউনিয়নের সহসাধারণ সম্পাদক। মটর শ্রমিক ইমাদুলও আহত হয়েছেন। গুরুতর আহত মিন্টু গাজীকে খুলনায় নেয়া হয়েছে।

আহত ইমাদুল জানিয়েছেন, ওই এলাকার চিহ্নিত দুর্বৃত্ত বিল্লাল ওরফে চোর বিল্লাল, লিটন, সাইফুল, লাল্টুসহ বেশ কয়েকজন হুশতলা এলাকায় জুয়া খেলে থাকে। এই নিয়ে ওই এলাকার নয়নের সাথে বিরোধ তৈরি হয়। তিনি (ইমাদুল) বিষয়টি জেনে মিমাংসারও প্রস্তাব দেয়। কিন্তু সোমবার বিকেল তিনটার দিকে ইমাদুল ইফতার সামগ্রী নিয়ে বাড়িতে ফিরছিলেন। পথে তাদের সাথে দেখা হলে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে মিন্টু গাজী তার হাত ধরে রাখে এবং চোর বিল্লাল গুলি ছোড়ে। তিনি সরে গেলে ওই গুলি মিন্টু গাজীর পেটে লাগে। একটি গুলি তার হাতেও লাগে। পরে দুর্বৃত্তরা চলে গেলে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এসে তাদের উদ্ধার করে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে। হাসপাতালের চিকিৎসক আব্দুর রশিদ জানিয়েছেন, মিন্টু গাজীর পেটের মধ্যে গুলি রয়ে গেছে। তাকে জরুরি ভিত্তিতে ঢাকায় রেফার্ড করা হয়েছে।

এ বিষয়ে পরিবহন সংস্থ শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মোর্ত্তজা হোসেন জানিয়েছেন, সোমবার বিকেলে মিন্টু গাজীর বাড়ির সামনে গোলাগুলি হচ্ছিল। একটি গুলি তার পেটে  লাগে বলে জানতে পেরেছি। তাকে খুলনায় নেয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে কোতয়ালি থানার ওসি মনিরুজ্জামান জানিয়েছেন, বকচর হুশতলায় গুলিতে এক শ্রমিক নেতা আহত হওয়ার সংবাদ শুনেছি। পুলিশ ওই এলাকায় গিয়ে দুর্বৃত্তদের ধরতে অভিযান চালাচ্ছে।