যশোরে আসামি ছাড়ানোর কথা বলে টাকা নেয়ার অভিযোগে দুই যুবক আটক


নিজস্ব প্রতিবেদক:
যশোরে পুলিশের কাছ থেকে আসামি ছাড়িয়ে নেয়ার মিথ্যা প্রলোভন দেখিয়ে টাকা হাতিয়ে নেয়ার ঘটনায় পুলিশ শাহরিয়ার রাসেল ও মোর্শেদ নামে দু’যুবককে আটক করেছে। রাসেল যশোর শহরের পানি উন্নয়ন বোর্ড এলাকার খোরশেদ আলী ভুইয়ার ছেলে। আর মোর্শেদের বাড়ির শহরের শেখহাটি এলাকায়। এই ঘটনায় দুইজনের নামে মামলা হয়েছে।
বেনাপোল পোর্ট থানাস্থ বড় আঁচড়া গ্রামের শুকুর আলীর ছেলে রাজু আহম্মেদ কোতয়ালি থানায় দায়ের করা এজাহারে উল্লেখ করেছেন, গত ৫ মে রাতে তার ভাই কাজল হোসেন যশোর চাঁচড়া-পালবাড়ি সড়কের ইউনিক পেট্টোল পাম্পের সামনে প্রাইভেটকার দুর্ঘটনায় আহত হয়। প্রাইভেটের যাত্রী নিহত ও আহতের ঘটনায় কোতয়ালি থানা পুলিশ তার ভাই কাজল শেখকে আটক করে এবং তার বিরুদ্ধে মামলা হয়। যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালের চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি আটক হন এবং পুলিশ প্রহরায় তিনি চিকিৎসা নেন। গত ৬ মে সন্ধ্যা সোয়া ৬ টার দিকে হাসপাতালের জরুরি বিভাগের সামনে পরিচয় হয় ওই প্রতারকের সাথে। তারা প্রস্তাব দেয় ৫ হাজার টাকা হলে তারা তার ভাইকে পুলিশের কাছ থেকে ছাড়িয়ে নিতে পারবেন। তিনি প্রস্তাবে রাজি হয়ে ৫ হাজার টাকা দেন। এরপর রাজু আহম্মেদ জানতে পারেন তার ভাইয়ের নামে কোতয়ালি থানায় মামলা হয়েছে। তিনি মামলার কপি নিয়ে দুই প্রতারকের কাছে গেলে তারা রাজুর কাছ থেকে মামলার কপি কেড়ে নিয়ে আরো ২ হাজার টাকা দাবি করে। বিষয়টি তিনি পুলিশকে জানালে পুলিশ শাহারিয়ার রাসেলকে আটক করে। অবস্থা বেগতিক দেখে সহযোগী নেওয়াজ মোর্শেদ পালিয়ে যায়। গত বুধবার মোর্শেদকে আটক করে গত বৃহস্পতিবার আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠিয়েছে।