ডুমুরিয়ায় বসতঘর ভাঙচুর লক্ষাধিক টাকার মালামাল লুট

ডুমুরিয়া (খুলনা) সংবাদদাতা  : খুলনার ডুমুরিয়ায় জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধকে কেন্দ্র করে ফিল্মি স্টাইলে এক কৃষকের বসতবাড়ি ভাঙচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে। বুধবার সকালে উপজেলার শিবপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাশে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

ভুক্তভোগী ও পুলিশ সুত্রে জানা যায়, উপজেলার শোভনা ইউনিয়নের দক্ষিণ শিবপুর গ্রামের কৃষক আজিজুল হালদারের সাথে দীর্ঘদিন যাবত রুহুল আমীন মোল্যা ও ছাকোয়াত হোসেন ছাকিদের সাথে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছে। একপর্যায়ে গত ৬ মাসের আগে ওই জমির উপর ১৪৪ জারি হয়। সেই জমিতে বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে প্রতিপক্ষরা ভাড়াটিয়া গুন্ডা আজিজুল হালদারের বসত বাড়ি ভাংচুর ও লুটপাট করে। এসময়ে স্থানীয় লোকজন ভয়ে আতঙ্কিত হয়ে পড়ে।

ভুক্তভোগী আজিজুলের স্ত্রী সুমনা সুলতান বলেন, তারা অতর্কিতভাবে আমাদের বাসা বাড়িতে হামলা চালায়। আমাকে লাঠি দিয়ে মারপিট করে ঘরে থাকা নগদ টাকা, সোনার অলংকারসহ লক্ষাধিক টাকার মালামাল নিয়ে চলে গেছে।

ইউপি চেয়ারম্যান সুরঞ্জিত বৈদ্য বলেন, রুহুল আমীন ও সাখাওয়াৎ হোসেন ছাকিদের নেতৃত্বে প্রকাশ্যে আজিজুলের বসতবাড়ি ভাঙচুর ও লুট করে। পরে এলাকার লোকজন ধাওয়া দিলে তারা দা লাঠি ফেলে পালিয়ে যায়।

থানার ওসি আমিনুল ইসলাম বিপ্লব বলেন, বিরোধপূর্ণ ওই জমিতে ৬ মাস আগে থেকে আদালতের ১৪৪ ধারা বলবৎ রয়েছে। তাই উভয় পক্ষকে বিজ্ঞ আদালতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হয়ে শান্তি শৃংখলা বজায় রাখার নির্দেশ দেয়া হয়। কিন্তু আইনকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে আজিজুল হালদার গত ৬ মাস আগে এক রাত্রে বাঁশের খুটি ও টিনের ছাউনি দিয়ে গাড়িঘর ঘর নির্মাণ করে সেখানে বসবাস করে আসছে। বুধবার সকালে ওই জমির উপর নির্মিত ঘরটি ভাংচুর করা হয়েছে। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। থানায় অভিযোগ দিলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।