যশোরে বিএনপি নেতা ফেরদৌস হত্যা মামলায় অভিযুক্ত ৫

নিজস্ব প্রতিবেদক : যশোরে বিএনপি নেতা ফেরদৌস হোসেন হত্যা মামলায় ৫ জনকে অভিযুক্ত করে চার্জশিট দিয়েছে ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)। হত্যার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগ না পাওয়ায় মোতালেব হোসেন টুটুলের অব্যহতির আবেদন করা হয়েছে চার্জশিটে। মামলার তদন্ত শেষে আদালতে এ চার্জশিট জমা দিয়েছেন তদন্তকারী কর্মকর্তা ¯েœহাশিষ দাস।

অভিযুক্তরা হলো, শহরের লোহাপট্টির মৃত আনসার আলী বিশ্বাসের ছেলে ফারুক আহম্মেদ, ফারুকের স্ত্রী শিউলি বেগম, আবুল হোসেন ও তার স্ত্রী মমতাজ বেগম এবং ঝিকরগাছার কৃষ্ণনগর গ্রামের মৃত আব্দুল ওহাবের স্ত্রী ছালেহা খাতুন।

মামলার অভিযোগে জানা গেছে, নিহত ফেরদৌস হোসেনের বাড়ি সদর উপজেলার বিরামপুর গ্রামে। তিনি শহরের লোহাপট্টিতে ফারুক আহমেদের বাড়িতে ভাড়া থাকতেন। ২০১৬ সালের ২৩ মার্চ রাতে জেলা বিএনপির সাবেক সহ সাংগঠনিক সম্পাদক ফেরদৌস হোসেনকে শহরের লোহাপট্টিতে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রী নাজমুন নাহার মুক্তি বাদী হয়ে কোতোয়ালি মডেল থানায় অপরিচিত ব্যক্তিদের আসামি করে হত্যা মামলা করেন। পরবর্তীতে নিহতের স্ত্রী আসামিদের শনাক্ত করতে পেরে তিনি আদালতে একটি অভিযোগে দেন।

মামলাটি প্রথমে থানা পুলিশ পরে সিআইডি পুলিশ তদন্তের দায়িত্ব পায়। সর্বশেষ এ মামলাটি পিবিআই তদন্ত করে আসামির দেয়া তথ্য ও সাক্ষীদের বক্তব্যে হত্যার সাথে জড়িত ওই ৫ জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে এ চার্জশিট জমা দিয়েছেন। চার্জশিটে অভিযুক্ত মমতাজ ও ছালেহাকে পলাতক দেখানো হয়েছে।