চোখের সামনেই মারা গেলো দুটি গাভী, অল্পের জন্য রক্ষা কৃষকের


কালীগঞ্জ (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি :
বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে ঝিনাইদহ কালীগঞ্জের এক কৃষকের দুটি গাভী মারা গেছে। এ সময় অল্পের জন্য প্রাণে রক্ষা পেয়েছে অন্য আরেকটা গাভী ও কৃষক নিজেও। ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার বিকেল ৫ টার দিকে উপজেলার সুন্দরপুর দূর্গাপুর ইউনিয়নের ভাটপাড়া গ্রামের মাঠের মধ্যে। গাভী দুটির আনুমানিক মূল্য প্রায় ২ লক্ষ টাকা। মাঠের মধ্য স্থাপিত বিদ্যুতের পোলের সাপোর্টের জন্য টানা বাধা তার বৃষ্টির পানিতে ডুবে গিয়ে টানাতেও বিদ্যুতে পরিণত হয়। গরু দুটি এ টানার স্পর্শ করা মাত্রই স্পৃস্ট হয়ে মারা যায়। ক্ষতিগ্রস্থ কৃষককে সান্তনা দিতে স্থানীয় সাংসদ আনোয়ারুল আজিম আনার, পিডিবি’র কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।
গাভী দুটির মালিক হারুন অর রশিদ জানান, তিনি মাঠে গরু চরিয়ে বিকেল ৫ টার দিকে গরু নিয়ে বাড়ি ফিরছিলেন। মাঠ থেকে ভাটপাড়া নলডাঙ্গা মাঠের মধ্যের একটি বিদ্যুতের পোলের নিকট উঠলে আগে যাওয়া দুটি গাভি তারের স্পর্শে হঠাৎ ছটফট করে মাটিতে পড়ে যায়। তিনি কোন কিছু বুঝে ওঠার আগেই অন্য গরুটি নিয়ে সামনের দিকে এগিয়ে আসলে গরুর সাথে তিনিও কাঁপতে থাকেন। এরপর গরুটি নিয়ে তাড়াহুড়া করে পেছনের দিকে সরে গিয়ে গরুটির সাথে তিনি রক্ষা পান। তবে আগে যাওয়া গাভী দুটি তার চোখের সামনেই ছটফট করতে করতে মারা যায় বলতে বলতে তিনি কান্নায় ভেঙে পড়েন।
ঘটনাস্থলে উপস্থিত ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ইলিয়াস রহমান মিঠু জানান, ক্ষতিগ্রস্থ কৃষক হারুন অর রশিদ দরিদ্র কৃষক। একজন কৃষকের গোয়ালের গরু মারা গেলে সান্তনা দেয়ার ভাষা থাকে না।