যশোরের  আল মামুন নিহতের ঘটনায় ১৩ জনের বিরুদ্ধে মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক : যশোর শহরের স্টেডিয়াম পাড়ায় প্রতিপক্ষের ছুরিকাঘাতে আল মামুন (১৯) নিহতের ঘটনায় কোতয়ালি থানায় মামলা হয়েছে। নিহতের পিতা আবুল বাসার ১৩ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরো ৭/৮জনের নামে মামলাটি করেছেন। এ ছাড়া পুলিশ শুক্রবার রাতে বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৫জনকে আটক করেছে বলে শোনা গেলেও পুলিশ তা স্বীকার করেনি।

কোতয়ালি থানার ওসি মনিরুজ্জামান জানিয়েছেন, নিহতের পিতা শনিবার সন্ধ্যার দিকে একটি এজাহার দিয়েছেন। সেখানে ১৩ জনের নাম উল্লেখ আছে। অবশ্য তিনি আসামিদের নাম পরিচয় জানাতে রাজি হননি। আসামি আটকের কথাও স্বীকার করেননি।

গত শুক্রবার সন্ধ্যার দিকে এলাকায় অধিপত্য ও পূর্ব শক্রতার জেরে প্রতিপক্ষের ছুরিকাঘাতে মারাত্মক জখম হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন আল মামুন। পরে রাত নয়টার দিকে তিনি মারা যান। খড়কী হাজাম পাড়ার রকিকুল ইসলামের ছেলে সাব্বির, আরবপুর এলাকার ব্লাক সিয়াম, মাহিন, খোলাডাঙ্গার জয়, মিশু, এমএম কলেজপাড়ার রফিক, রসুল, তাসিম, হৃদয়, বক্কার, আরিফসহ ১৮/২০জন ওই হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িত বলে সংবাদ পায় পুলিশ। তবে বিপ্লবসহ ৫জনকে পুলিশ আটক করেছে বলে সংবাদ পাওয়া গেলেও পুলিশের কোনো সূত্র থেকে আটকর তথ্য নিশ্চিত করেনি।