বাবার মতোই পুলিশ অফিসার হতে চায় সামির

ফরহাদ খান, নড়াইল : বাবা মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন নড়াইলের পুলিশ সুপার। পেয়েছেন দুইবার ‘রাষ্ট্রপতি পুলিশ পদক’ (পিপিএম)। খুলনা রেঞ্জের মধ্যে নড়াইলের পুলিশ সুপার হিসেবে দায়িত্ব-কর্তব্যে শ্রেষ্ঠত্বের প্রমাণ দিয়েছেন কয়েকবার। ওয়ারেন্ট তামিলে অর্জন করেছেন হ্যাট্রিকের গৌরব। পাশাপাশি মামলা নিষ্পত্তিতেও কয়েকবার প্রথম স্থান অর্জন করেছেন। নড়াইলের বিভিন্ন এলাকায় অন্তত ১৭০টি গ্রাম্য কাইজ্যা, দাঙ্গা-হাঙ্গামা নিরসন করে এলাকায় শান্তি ফিরিছেন।

বাবা মোহাম্মদ জসিম উদ্দিনের মতোই যোগ্য পুলিশ অফিসার হতে চায় এসএসসি পরীক্ষায় গোল্ডেন এ প্লাস প্রাপ্ত ফাইজুম সালেহীন সামির।

সামির এ বছর যশোর ইংলিশ স্কুল থেকে বিজ্ঞান বিভাগে গোল্ডেন এ প্লাস পেয়েছে। এর আগে প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী (পিএসসি) ও জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) পরীক্ষায় এ প্লাস পেয়েছিল।

সামির বলে, বাবার মতো দক্ষ ও যোগ্য পুলিশ অফিসার হতে চাই। দেশ ও জনগণের কল্যাণে কাজ করতে চাই। সবাই দোয়া করবেন।

প্রসঙ্গত, ২০১৮ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারি নড়াইলের পুলিশ সুপার হিসেবে যোগদান করেন মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন পিপিএম (বার)। ফেনী সদর উপজেলার শর্শদী ইউনিয়নের মধ্যম জাহানপুর গ্রামের মোহাম্মদ মফিজ উদ্দিনের ছেলে তিনি।

পারিবারিক জীবনে মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন দুই সন্তানের জনক। স্ত্রী নাহিদা আক্তার চৌধুরী ম্যানেজমেন্ট বিষয়ের শিক্ষক। ছেলে ফাইজুম সালেহীন সামির। মেয়ে সামিহা মুবাশ্বিরা রোজ।

এদিকে, নড়াইলের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিনের আপন ভাই মুফতি কামাল উদ্দিনের মেয়ে নুসরাত জাহানও এ বছর এসএসসি পরীক্ষায় গোল্ডেন এ প্লাস পেয়েছে।

চাচাতো ভাইবোন সামির ও নুসরাতের সাফল্যে খুশি তাদের পরিবারের সবাই। তাদের অভিনন্দনসহ ফেসবুকে ‘শুভকামনা’ জানিয়েছেন পরিবারের সদস্যসহ আত্মীয় স্বজনেরা।