যেভাবে করোনামুক্ত করবেন বাজার সদাই

স্পন্দন নিউজ ডেস্ক :  মহামারি করোনা ভাইরাসের ছোবলে পুরো বিশ্বজুড়ে আতঙ্ক। এপর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে লাখো মানুষের, আক্রান্ত কোটি ছুঁই ছুঁই। প্রতিদিনই আমাদের দেশেও বাড়ছে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা।

আমাদের জীবনযাপনে অনেক পরিবর্তন এসেছে করোনার কারণে। সীমিত হয়েছে চাহিদা, প্রয়োজনীয় এবং মৌলিক চাহিদার বাইরে কেনাকাটা নেই বললেই চলে। সব কিছু কমিয়ে আনলেও খেতে তো হয়। আর এই অদৃশ্য ভাইরাস কোথায় লুকিয়ে থেকে আমাদের আক্রান্ত করে বসে সে শঙ্কা সবখানেই। যেমন বাজার থেকে প্রয়োজনীয় পণ্য কিনে আনার পর, চিন্তা থাকে এসবের ভেতরেই আবার করোনার জীবাণু নেই তো!

বিশেষজ্ঞরা বলেন সারাসরি খাবারের ভেতরে করোনা ভাইরাস থাকার সম্ভবনা নেই। তবে বাজার থেকে খাবারের পণ্যের সঙ্গে চলেও আসতে পারে। শাক-সবজি ও মাছ-মাংস আমাদের দৈনন্দিন খাবারের চাহিদার মেটায়। এগুলো নিয়মিত কিনে আনতেই হয়, তাহলে উপায়?

এমন পরিস্থিতিতে করোনাকে সঙ্গে রেখেই চলতে হচ্ছে, মাথায় রাখতে হচ্ছে এই অদৃশ্য জীবাণু যেকোনো কিছু থেকেই আমাদের শরীরে প্রবেশ করতে পারে। এজন্য চাই বাড়তি সতর্কতা।

আসুন জেনে নেওয়া যাক বাজারে থেকে কিনে আনা ফল শাক-সবজি ও মাছ-মাংস কীভাবে করোনা ভাইরাসমুক্ত করা যায়।

সম্প্রতি হার্বাল হেলথ, এফটিএ, সিডিসি এবং এফএসএ-এর পরামর্শের আলোকে নির্ভরযোগ্য তথ্য তুলে ধরেছেন অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী তাসনিম যারা, তিনি করোনার শুরু থেকেই যুক্তরাজ্যে সামনের সারিতে থেকে করোনা রোগীদের চিকিৎসা দিয়ে যাচ্ছেন।

যারা বলেন,
• শাক-সবজি ও ফল-মূল বাজার থেকে আনার পর প্রথমে কল ছেড়ে পানি দিয়ে ধুয়ে নিতে হবে
• এক্ষেত্রে একটু সময় নিয়ে কচলিয়ে ধুয়ে নেওয়া উচিত
• মাছ-মাংস একটা নির্দিষ্ট পরিমাণ তাপ দিয়ে রান্না করলে তাতে জীবাণু বেঁচে থাকা সম্ভব
• রান্না করার সময় লক্ষ্য রাখতে হবে খাবার যেন ভালোভাবে সেদ্ধ হয়।
• মাছ-মাংস ধোয়ার সময় আশেপাশে যেন ফল-মূল, শাক-সবজি বা সেগুলো কাটার যন্ত্রপাতি কিংবা সেগুলোর থালা-বাসন না থাকে
• এগুলো আশেপাশে রাখলে জীবাণু ছিটে সেখানে চলে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

• আমরা অনেকে কঁাচা সবজির সালাদ খেতে পছন্দ করি। সেক্ষেত্রে ওপরের আবরণ ফেলে এরপর পছন্দমেতা কেটে সালাদ তৈরি করুন।
• মাছ মাংস একবারে অনেক বেশি পরিমাণে কিনবেন না, সপ্তাহে অন্তত একদিন ফ্রেশ বাজার করুন
• আর ফ্রিজে সংরক্ষণ করতে চাইলে অবশ্যই আলাদা প্যাটেক বা বক্স ব্যবহার করুন।

এসব বাজার গোছানোর সময় মুখে মাস্ক ও হাতে গ্লাভস ব্যবহার করুন। কাজ শেষে হাত খুব ভালো করে সাবান পানি দিয়ে ধুয়ে নিন।

সচেতন থেকে করোনা থেকে দূরে থাকুন।