পাটকল বন্ধের সিদ্ধান্ত বাতিলের দাবি

প্রেসবিজ্ঞপ্তি : রাষ্ট্রায়ত্ব পাটকল বন্ধ করার এবং গোল্ডেন হ্যান্ডশেকের মাধ্যমে শ্রমিকদের চাকুরিচ্যুতি ও পিপিপি(পাবলিক প্রাইভেট পার্টনারশীপ)-এর মাধ্যমে মিল পরিচালনার মত জাতীয় ও জনস্বার্থ বিরোধী সরকারি সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে দেশব্যাপী কর্মসূচির অংশ হিসেবে যশোর প্রেসক্লাবের সামনে বাংলাদেশ ট্রেড ইউনিয়ন সংঘের উদ্যোগে এক শ্রমিক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। মঙ্গলবার সকাল ১১ টায় সংগঠনের জেলা সভাপতি আশুতোষ বিশ্বাসের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন জাতীয় গণতান্ত্রিক ফ্রন্টের যশোর জেলা সাধারণ সম্পাদক হাফিজুর রহমান, কৃষক সংগ্রাম সমিতি যশোর জেলা সাংগঠনিক সম্পাদক সমীরণ বিশ্বাস, বাংলাদেশ ট্রেড ইউনিয়ন সংঘের জেলা সম্পাদক কৃষ্ণা সরকার, দপ্তর সম্পাদক কামরুজ্জামান রাজেস, বাংলাদেশ হোটেল রেস্টুরেন্ট মিষ্টি বেকারী শ্রমিক ইউনিয়ন যশোর জেলা সাধারণ সম্পাদক তাইজুল ইসলাম ও জাতীয় ছাত্রদল যশোর জেলার অন্যতম নেতা মধু মঙ্গল বিশ্বাস প্রমূখ। সমাবেশে বক্তারা বলেন, এক সময়ে এই দেশের মানুষের দাবির প্রেক্ষাপটে কৃষিজমিতে উৎপাদিত পাটকে ভিত্তি করে গড়েছিলো পাটকল। বাংলাদেশের অভ্যূদয়ের পর পাটকলসমূহকে রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন শিল্প হিসেবে ঘোষণা করা হয়। বন্ধের এই সিদ্ধান্ত বাতিল করে এর চেয়ে কম খরচে মিলগুলিকে আধুনিকায়ন এবং শ্রমিকদের পাওনা পরিশোধ করে চাকরি অব্যাহত রাখা যাবে।

নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, আমরা দেখেছি সরকার ব্যক্তিমালিকানাধীন আমদানিকৃত কাঁচা মালের ভিত্তিতে পরিচালিত নানা শিল্পকে জনগণের টাকায় প্রণোদনা ও আর্থিক সুযোগসুবিধা দিয়ে চললেও জাতীয় শিল্প হিসেবে পাটশিল্পের যে সম্ভাবনা তাকে আমলে না নিয়ে জাতীয় ও জনস্বার্থ বিরোধী সিদ্ধান্ত কার্যকর করে সাম্রাজ্যবাদ ও তাদের সংস্থাসমূহের নীতি নির্দেশ ও তাদের দালালপুঁজির মালিকদের মুনাফার স্বার্থে পদক্ষেপ অব্যাহত রাখছে।