মণিরামপুরে এক দিনে ৭জন করোনা পজেটিভ

মণিরামপুর প্রতিনিধি : মণিরামপুরে আবারও একদিনে ৭জন করোনা পজেটিভ রির্পোট এসেছে। বৃহস্পতিবার সকালে যশোর সিভিল সার্জন অফিস থেকে এ তথ্য জানা গেছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ শুভ্রারানী দেবনাথ।

ইতোপূর্বে গত মঙ্গলবার ১জন স্বাস্থ্য কর্মীসহ ৭ জনের করোনা পজেটিভ রিপোর্ট এসেছিল। উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাক্তার শুভ্রারানী দেবনাথ জানান। করোনা পজেটিভ রিপোর্ট আসা ৭ সবাই জ্বর বা সর্দি-কাশি উপসর্গ নিয়ে গত ২৮, ২৯ ও ৩০ জুন মণিরামপুর হাসপাতালে এসে নমুনা দেন। পরে সিভিল সার্জন অফিসের মাধ্যমে তাদের নমুনাগুলো যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের জেনোম সেন্টারে পাঠানো হয়। গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে তাদের করোনা পজেটিভ রিপোর্ট এসেছে। আক্রান্তরা হলেন উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের স্বাস্থ্যকর্মী পৌর এলাকার তাহেরপুর গ্রামের সুচন্দা খাতুন (৪২), হাকোবা গ্রামের মিলন কুন্ডু (৫৯), জুড়ানপুর গ্রামের সুশান্ত দাস (৪৫), পাতন গ্রামের বজলুর রহমান (৬৫), উপজেলার মুন্সি খানপুর গ্রামের জুলফিকার আলী (৫৫), উত্তর লাউড়ি গ্রামের আবু সাঈদ (২৯) ও মণিরামপুর পল্লীবিদ্যুৎ সমিতির লাইনম্যান সিদ্দিকুল ইসলাম (৪২)। এ নিয়ে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ৩৮ জনে।

ডাক্তার শুভ্রারানী দেবনাথ জানান, আক্রান্ত সকলকেই নিজ-নিজ বাড়িতে আইসোলেশনে রেখে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। এই মুহূর্তে সকলেই সুস্থ ও স্বাভাবিক রয়েছেন। তাদের সবাইকে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা ও পরামর্শ দেয়া হচ্ছে। এছাড়া আক্রান্তদের বাড়ি লকডাউন করার জন্য তাদের নাম-ঠিকানা উপজেলা প্রশাসনকে দেয়া হয়েছে। উপজেলা প্রশাসন সরেজমিন খোঁজ-খবর নিয়ে সার্বিক সহযোগিতাসহ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করার আশ্বাস প্রদান করেছেন।

উল্লেখ্য করোনা পরীক্ষা করার জন্য এই পর্যন্ত মণিরামপুর হাসপাতাল থেকে ২৮৯ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়। এছাড়া এই উপজেলার অনেকেই যশোর জেনারেল হাসপাতাল, খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালসহ বিভিন্ন চিকিৎসা কেন্দ্রে নমুনা দিয়েছেন। তারমধ্যে এই উপজেলায় মোট ৩৮ জনের করোনা পজেটিভ রিপোর্ট এসেছে। ইতোমধ্যে ১৩ জন সুস্থ হয়ে স্বাভাবিক জীবনে ফিরেছেন।