ক্লপের অধীনে সালাহ-মানে-ফিরমিনোর নতুন মাইলফলক

স্পন্দন স্পোর্টস ডেস্ক : স্বপ্নের মতো সময় কাটছে লিভারপুলের। ৩০ বছরের প্রতীক্ষার অবসান ঘটিয়ে প্রিমিয়ার লিগের শিরোপা জিতেছে ইংলিশ জায়ান্টরা, তাও ৭ ম্যাচ হাতে রেখেই। ক্লাবের পাশাপাশি কোচ ইয়ুর্গেন ক্লপের অধীনে ক্যারিয়ারে সুবর্ণ সময় কাটাচ্ছেন ক্লাবটির আক্রমণভাগের তিন সেনানী মোহামেদ সালাহ, সাদিও মানে ও রবার্তো ফিরমিনোও।

জার্মান কোচের অধীনে সালাহ-মানে-ফিরমিনো সম্মিলিতভাবে ২৫০ গোলের মাইলফলক গড়েছেন। বুধবার রাতে ব্রাইটনের বিপক্ষে লিভারপুলের ৩-১ গোলে জেতা ম্যাচে সালাহ জোড়া গোল করার পরই মাইলফলক গড়া হয়ে যায়।

২০১৫ সালের অক্টোবরে লিভারপুলের দায়িত্ব নেন ক্লপ। দায়িত্ব নেওয়ার মাত্র ৫ বছরের মধ্যে দলটিকে আমূল বদলে দিয়েছেন সাবেক ডর্টমুন্ড কোচ। সর্বশেষ দুই মৌসুমে তার হাত ধরে চ্যাম্পিয়নস লিগ এবং প্রিমিয়ার লিগের শিরোপা জেতার স্বাদ পেয়েছে অল রেডরা।

ক্লপ লিভারপুলের দায়িত্ব নেওয়ার সময় থেকেই আছেন ব্রাজিলিয়ান স্ট্রাইকার ফিরমিনো। ২০১৬ সালে সাউদাম্পটন থেকে আসেন সেনেগালিজ ফরোয়ার্ড মানে। আর ২০১৭ সালে পা রাখার পর থেকে রেকর্ড বইয়ে আঁকিবুঁকি শুরু করে দেন মিশরীয় ফরোয়ার্ড সালাহ।

ফিরমিনো এবং মানে’র পর পাড়ি জমিয়েও সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে লিভারপুলের জার্সিতে সালাহ’র গোলসংখ্যা ৯৪টি। মানের গোলসংখ্যা ৭৯টি এবং ফিরমিনোর ৭৭টি। ক্লপের অধীনে তিনজনের সম্মিলিত গোলসংখ্যা ২৫০টি।

দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকেই লিভারপুলের খেলার ধরনে পরিবর্তন আনেন ক্লপ। যার ফল হাতেনাতে পেয়েছে দলটি। আক্রমণাত্মক ফুটবলের এই ধারার কারণেই সাফল্য পেয়েছেন লিভারপুল ত্রয়ী।

ব্রাইটনের বিপক্ষে জোড়া গোল করার পাশাপাশি জর্ডান হেন্ডারসনের গোলে অ্যাসিস্টও করেছেন সালাহ। এই নিয়ে লিভারপুলের হয়ে প্রিমিয়ার লিগে মাত্র ১০৪ ম্যাচেই ১০০ গোলে (৭৩ গোল, ২৭টি অ্যাসিস্ট) ভূমিকা রাখার কীর্তি গড়েছেন তিনি।