ক্ষমা চেয়ে রক্ষা পেলেন মুক্তিযোদ্ধাকে ধমক দেয়া প্রকৌশলী

চৌগাছা (যশোর) প্রতিনিধি : যশোরের চৌগাছার সেই মুক্তিযোদ্ধা রওশন আলীর কাছে ক্ষমা চেয়ে রক্ষা পেয়েছেন উপজেলা প্রকৌশলী আব্দুল মতিন।  বৃহস্পতিবার চৌগাছা উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা ঐক্য পরিষদ নেতৃবৃন্দের উপস্থিতিতে নিজের দফতরের এক সমঝোতা বৈঠকে তিনি মুক্তিযোদ্ধা রওশন আলীর নিকট দুঃখ প্রকাশ করেন এবং তার বৈরি আচরণের জন্য ক্ষমা প্রার্থনা করেন।

এ বিষয়ে উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা ঐক্য পরিষদের আহবায়ক আব্দুস সালাম বলেন প্রথমেই চৌগাছা প্রেসক্লাবের সাংবাদিকদের ধন্যবাদ জানাই। চৌগাছা প্রেসক্লাবের সাংবাদিকদের বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ প্রকাশের কারণে একজন বীর মুক্তিযোদ্ধারা সম্মানিত হলেন। তিনি বলেন উপজেলা প্রকৌশলী আব্দুল মতিন মুক্তিযোদ্ধাদের কাছে দুঃখ প্রকাশ করেছেন এবং তার বৈরি আচরণের কারণে ক্ষমা চেয়েছেন। এছাড়াও তিনি মুক্তিযোদ্ধা রওশনের বাড়ির রাস্তার সমস্যা সমাধানের আশ্বাস দিয়েছেন। আমরা এতে সন্তষ্ট হয়ে তার বিরুদ্ধে সকল অভিযোগ প্রত্যাহার করেছি।

উপজেলা প্রকৌশলী আব্দুল মতিন মোবাইল ফোনে জানান, মুক্তিযোদ্ধা রওশন আলীর সাথে ভুল বোঝাবুঝির অবসান হয়েছে। তিনি আরো বলেন, আসলে এই মহামারির কারণে আমি সকলের সাথে একটু দূরত্ব বজায় রেখে কথা বলি। কিন্তু সেদিন তিনি আমার কথা বুঝতে পারেননি অথবা আমি তাকে বোঝাতে পারিনি। তিনি আরো বলেন, মুক্তিযোদ্ধা রওশন আলীর বাড়ির সামনের রাস্তার সমস্যা খুব শিগরিই সমাধান করে দেয়ার চেষ্টা করব।

উল্লেখ্য ২০১৬ সালে মুক্তিযোদ্ধা রওশন আলী একটি সরকারি বাড়ি উপহার পান। কিন্তু তাঁর বাড়ির সংযোগ রাস্তাটি যাতায়াতের অযোগ্য হয়ে গেলে রাস্তাটি মেরামতের টেন্ডার হয়। সেখানে ইট-বালিও ফেলা হয়। কিন্তু অদৃশ্য কারণে রাস্তার কাজ বন্ধ করে ইট-বালি উঠিয়ে নেয়া হয়।

এব্যাপারে খোঁজখবর নেয়ার জন্য উপজেলা প্রকৌশলীর দফতরে গেলে তার সাথে অসৌজন্যমূলক আচরণ করেন উপজেলা প্রকৌশলী আব্দুল মতিন। এ বিষয়ে ওইদিনই ‘দৈনিক স্পন্দন’পত্রিকায় একটি সংবাদ প্রকাশিত হলে বিষয়টি নিয়ে সমালোচনার ঝড় ওঠে।