পথে লাঠি খেলা বৃদ্ধাকে নিয়ে স্কুল খুলছেন সোনু সুদ

স্পন্দন বিনোদন ডেস্ক : রাস্তার পাশে এক বৃদ্ধা চমৎকার লাঠি খেলায় মুগ্ধ করছেন পথচারীদের। বিনিময়ে কেউ কেউ তাকে দু’টো পয়সা দিচ্ছেন।
করোনাকালীন মন্দায় পেটের জ্বালা মিটাতে এভাবেই পথে নেমেছেন ভারতের পুণের ৮৫ বছরের এক বৃদ্ধা। আর তাকে সহযোগিতার জন্য এগিয়ে এলেন অভিনেতা সোনু সুদ।

সামাজিক মাধ্যমে এই বৃদ্ধা ‘আজি মা’ কিংবা ‘যোদ্ধা আজি মা’ নামেই পরিচিত। ২৪ জুলাই এই বৃদ্ধার চমকপ্রদ লাঠিখেলার একটি ভিডিও ভাইরাল হয়ে পড়ে সামাজিকমাধ্যমে। ভিডিওতে দেখা যায়, রাস্তার পাশে লাঠি খেলা প্রদর্শন করছেন বৃদ্ধা। মাঝেমধ্যে পেটে হাত দিয়ে নমস্কার জানাচ্ছেন। কেউ কেউ তার পাত্রে দু’টো পয়সা রেখে যাচ্ছেন।

ভিডিওটি অন্তত ৩১ লাখ বার শেয়ার হয়েছে টুইটারে। বৃদ্ধাকে শ্রদ্ধা জানিয়ে ভিডিও শেয়ার করেন অভিনেতা রিতেশ দেশমুখ ও সোনু সুদ। তবে সোনু সুদ শুধু ভিডিও শেয়ার করেই ক্ষান্ত দেননি। তিনি অনুভব করেন ওই বৃদ্ধার পরিস্থিতি। এই পড়ন্ত বয়সেও লাঠিখেলা দেখিয়ে দু’পয়সা আয় করতে পথে নামার ব্যথাটা বোঝেন তিনি। তাই শুধু করুণা বা সাহায্য নয়, তিনি ওই বৃদ্ধাকে নিয়ে একটি ছোট প্রশিক্ষণ কেন্দ্র খোলার সিদ্ধান্ত নেন।

আজি মা’য়ের ভিডিও শেয়ার করে সোনু সুদ তার টুইটারে লেখেন, ‘তার সম্পর্কে বিস্তারিত কেউ কি আমাকে জানাবেন দয়া করে? তাকে নিয়ে একটা ছোট ট্রেনিং স্কুল খুলতে চাই, যেখানে তিনি আমাদের দেশের মেয়েদের আত্মরক্ষার কৌশল শেখাবেন। ’

উপমহাদেশে নারীদের নিরাপত্তা ও আত্মরক্ষার বিষয়টা যে সোনুর মাথায় সচেতনভাবেই কাজ করে তা মুহূর্তেই জানান দিলেন এক টুইটে।

এমনিতেই করোনাকালে সোনু সুদ জনমানুষের কাছে অন্যরকম এক মানবিক উচ্চতায় উঠেছেন। লকডাউনে আটকে পড়া পরিযায়ী শ্রমিকদের ঘরে ফেরার ব্যবস্থা করে, স্বাস্থ্যকর্মীদের থাকার জন্য নিজের হোটেল ছেড়ে দিয়ে, কিংবা বিদেশ থেকে শিক্ষার্থী বা আটকে পড়া নাগরিকদের দেশে ফিরতে তিনি সহযোগিতার হাত বাড়িয়েছেন বারবার। আর মানুষের ভালোবাসাও তিনি পেয়েছেন উদাত্তভাবে।

সংকটকালে সোনু সুদের মানবিক রূপটার দারুণ প্রকাশ ঘটেছে। তাই করুণা ভিক্ষা নয়, বৃদ্ধাকে স্থায়ীভাবেই স্বাবলম্বী করতে উদ্যোগী হলেন অভিনেতা।