কালীগঞ্জ ছাত্রলীগের  সংবাদ সম্মেলন

কালীগঞ্জ (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি : মামলার এজাহারে নাম নেই। তারপরও মহিষ চুরি মামলাতে অন্তভুক্ত করা হয়েছে কালীগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারন মনির হোসেন সুমনের। রাজনৈতিক প্রতিপক্ষের ষড়যন্ত্রে ওই মামলাটি প্রত্যাহারের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন করেছে উপজেলা ছাত্রলীগ। বৃহস্পতিবার দুপুরে আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন ছাত্রলীগ উপজেলা শাখার সভাপতি নাজমুল হাসান নাজিম।

লিখিত বক্তব্যে বলা হয়েছে- উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মনির হোসেন সুমন একজন রাজপথের লড়াকু সৈনিক। তার যোগ্য নেতৃত্বে ঈর্ষান্বিত হয়ে প্রতিপক্ষ তাকে ঘায়েল করার চেষ্টা করছে। ইতেপূর্বে সে প্রতিপক্ষের গুলি খেয়ে মৃত্যুর মুখ থেকে বেঁচে এসেছে। কিন্তু একটি মহিষ চুরি মামলাতে জড়াতে চেষ্টা করছে একটি পক্ষ। তারা দৃড়তার সাথে জানান, ওই ঘঁটনার  সাথে সুমন কোনো ভাবেই সম্পৃক্ত নয়। ওই চুরি মামলার আটক ১ নং আসামি প্রতিপক্ষের প্ররোচণায় আদালতে মিথ্যা মনগড়া কথা বলেছে।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত থেকে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আনিচুর রহমান মিঠু মালিতা, ছাত্রী বিষয়ক সম্পাদিকা এমপি কন্যা মুমতারিন ফেরদোস ডরিন, সাংগাঠনিক সম্পাদক রিয়াজ মোল্ল্য ও জাবের হোসেন জুয়েল। এ সময়ে ছাত্রলীগের পৌর, কলেজ ও বিভিন্ন ইউনিয়ন কমিটির নেতৃবৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন।