যশোরে দুর্ঘটনায় দুইজন  নিহত, আহত ৪

নিজস্ব প্রতিবেদক: যশোরে পৃথক দু’টি সড়ক দুর্ঘটনায় দু’জন নিহত ও চারজন আহত হয়েছেন। মঙ্গলবার যশোর-বেনাপোল মহাসড়কের পুলেরহাট ও যশোর-মাগুরা মহাসড়কের খাজুরায় এ দুর্ঘটনা দু’টি ঘটে।

নিহতরা হলেন, যশোরের বাঘারপাড়া উপজেলার ভদ্রবিলা গ্রামের আলী বক্সের ছেলে তৈয়ব আলী (৫০) এবং যশোর সদর উপজেলার ধোপাখোলা এলাকার মৃত আমির হোসেনের ছেলে জাহিদ হোসেন (৩৫)। আহত চারজনকে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

পুলিশ ও হাসপাতাল সূত্র জানায়, মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে যশোর-বেনাপোল মহাসড়কের পুলেরহাট এলাকায় বেনাপোলগামী একটি ট্রাক একটি ইজিবাইককে ধাক্কা দেয়। এতে ইজিবাইক চালক ইদ্রিস আলী ও চার যাত্রী আহত হন। স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেন। দুপুরের দিকে কর্তব্যরত চিকিৎসক ইজিবাইকের যাত্রী জাহিদ নামে একজনকে মৃত ঘোষণা করেন। মৃত জাহিদ হোসেন নলকূপ মিস্ত্রি। তিনি বাড়ি থেকে ইজিবাইকযোগে মঙ্গলবার সকালের দিকে যশোর শহরে যাবার পথে এই দুর্ঘটনার শিকার হন।

এদিকে, মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে পিতা তৈয়ব আলী ও ছেলে সুজন মোটরসাইকেলে চেপে যশোর-মাগুরা মহাসড়ক ধরে খাজুরা এলাকায় যাচ্ছিলেন। হাশিমপুর বাজারের কাছে তাদের মোটরসাইকেলটি একটি গাড়িকে সাইড দিয়ে এগিয়ে যাওয়ার সময় সামনে থাকা একটি বাসের সঙ্গে ধাক্কা লাগে। এতে বাবা-ছেলে আহত হন। স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগে আনেন। সেখানে কর্তব্যরত ডাক্তার তৈয়ব আলীকে মৃত ঘোষণা করেন।

ডা. আহমেদ তারেক সামস বলেন, হাসপাতালে আসার আগে তৈয়ব আলীর মৃত্যু হয়েছে। সুজনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

ঝিনাইদহের বারোবাজার হাইওয়ে থানার ওসি শেখ মাহফুজুর রহমান হাশিমপুরে দুর্ঘটনায় ঘাতক বাসটি আটক করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন।

যশোর কোতোয়ালি থানার ওসি (তদন্ত) শেখ তাসমিম আলম আলাদা দুর্ঘটনায় দু’জনের মৃত্যুর তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, পুলেরহাটে দুর্ঘটনাকবলিত ইজিবাইক ও ট্রাক আটক করা হয়েছে।