করোনা রোগীদের জন্য যশোর ২৫০  শয্যা হাসপাতালের দুয়ার খুললো

মিরাজুল কবীর টিটো : আগামী সপ্তাহ থেকে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে করোনা রোগী ভর্তি শুরু করা হবে। এতদিন করোনায় আক্রান্তদের যশোর শহরের শংকরপুর জেডিএল হাসপাতালে ভর্তি করা হতো। ১ সেপ্টেম্বর থেকে জেডিএল এর সাথে করা চুক্তি শেষ হবে। ফলে নতুন চুক্তি না হওয়ায় ওই মাস থেকে সব করোনা রোগীকে ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতাল ও বক্ষ ব্যাধি হাসপাতালে ভর্তি করে চিকিৎসা দেয়া হবে। হাসপাতালে চালু করা হবে সেন্ট্রাল অক্সিজেন লাইন। এটার সংযোগ থাকবে করোনা ওয়ার্ড,আইসিইউ, অপারেশন থিয়েটার ও করোনারী ওয়ার্ড পর্যন্ত।  যশোর  সার্কিট হাউজে বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত করোনা প্রতিরোধে জেলা সমন্বয় কমিটির সভায় এ বিষয়ে আলোচনা হয়েছে বলে জানান যশোরের সিভিল সার্জন ডাক্তার শেখ আবু শাহীন।

যশোরের জেলা প্রশাসক তমিজুল ইসলাম খানের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন যশোরের সিভিল সার্জন ডাক্তার শেখ আবু শাহীন, ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডাক্তার দিলীপ কুমার রায়, মেডিকেল কলেজেরর অধ্যক্ষ প্রফেসর ডাক্তার আক্তারুজ্জামান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সালাউদ্দিন সিকদার, এনএসআইয়ের উপপরিচালক কবির আহম্মদ, বিএমএ’র সাধারণ সম্পাদক ডাক্তার এমএ বাশার প্রমুখ।

আলোচনা সভায় আরো বলা হয়েছে ডাক্তাররা ১৫দিন ডিউটি দেবেন ও ১৫ দিন ছুটিতে থাকবেন। যশোর আইটি পার্কে তাদের থাকার ব্যবস্থা করা হয়েছে। তারা যদি সেখানে না থেকে নিজেদের ব্যবস্থাপনায় থাকতে চায় তাদের সরকারিভাবে খরচ দেয়া হবে। ডাক্তারদের ১৫ দিনে জন্য ১ হাজার ৮শ’ টাকা, সেবিকাদের ১ হাজার টাকা ও কর্মচারিদের ৬শ টাকা করে দেয়া হবে। ঈদগাহ মাঠের তরকারি ব্যবসায়ীরা যেহেতু আগের স্থানে ফিরে গিয়ে ব্যবসা করছেন সেখানে স্বাস্থ্যবিধি মানা হচ্ছে কিনা সেটা তদারকি করা হবে বলে সভায় জানানো হয়।