নিষ্ঠুর সড়ক দুর্ঘটনা কেড়ে নিলো দুই বন্ধুর প্রাণ

এম আলমগীর, ঝিকরগাছা :
মঙ্গলবার ছিল ছেলেটির জন্মদিন। বাবা তাকে নিয়ে ফেসবুকে একটা পোস্টও দিয়েছিলেন। সন্তানের অনাগত ভবিষ্যতের জন্যে চেয়েছিলেন সকলের আশির্বাদ। কিন্তু ছেলেটি আর নেই! মর্মান্তিক আর নিষ্ঠুর সড়ক দুর্ঘটনা তাকে এ পৃথিবী থেকে বিদায় করেছে। অথচ সেই ছবি ঘুরপাক খাচ্ছে ফেসবুক ওয়ালে। এখন সবই স্মৃতি হয়ে গেলো।
কাব্য দাস (২১) উদীচী যশোরের সহসভাপতি, যশোর মিশনপাড়ার বাসিন্দা জন দীলিপ দাসের ছেলে ও ঢাকা কমার্স কলেজের প্রথম বর্ষের ছাত্র । ১১ আগস্ট ছিল ওর জন্মদিন। ছেলের সাথে ছবি দিয়ে দীলিপ ফেসবুকে ছেলের জন্মদিনকে উইশ করেছিলেন। কাব্য দাসের সাথে পরপারের সঙ্গী হয়েছে বন্ধু যশোর শহরের সার্কিট হাউজপাড়ার বাসিন্দা মাহামুদুল হাসানের ছেলে মাগুরা সরকারি কলেজের অনার্স প্রথম বর্ষের ছাত্র কাজী মুশফিক মাহামুদ প্রিয় (২৪)।
মঙ্গলবার যশোরের যশোর-বেনাপোল মহাসড়কের ঝিকরগাছার বেনেয়ালী গির্জার সামনে কাভার্ড ভ্যানের ধাক্কায় দুই বন্ধু নিহত হন।
পুলিশ জানায়, মঙ্গলবার বিকেলে যশোর শহর থেকে দুই মোটরসাইকেল যোগে ৪ বন্ধু ঝিকরগাছার গদখালীতে ফুল কিনতে যাচ্ছিল। বেনেয়ালী গীর্জার সামনে পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে আসা কাভার্ড ভ্যান ধাক্কা দিলে কাজী মুশফিক মাহামুদ প্রিয় ও শ্যামল কাব্য দাস মোটরসাইকেল থেকে রাস্তার উপর ছিটকে পড়ে। তাদের ব্যবহৃত মোটরসাইকেলটিও রাস্তার পাশে পড়ে যায়। এসময় অপর মোটরসাইকেলে থাকা তাদের বন্ধু আব্দুল¬াহ আল আমান ও সাম্ভি খান সঞ্জু স্থানীয়দের সহযোগিতায় দুইজনকে ঝিকরগাছা হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত্যু ঘোষণা করেন।
ঝিকরগাছা থানার এসআই সাইদুজ্জামান নিহত দুইজনের সুরতহাল প্রতিবেদন করলেও তাদের পরিবারের পক্ষ থেকে কোনো মামলা করবেন না বলে জানানো হয়েছে।