সাতক্ষীরা মণিরামপুর ও মেহেরপুরে দুধ উৎপাদনের মিনি প্লান্ট করা হবে : প্রতিমন্ত্রী স্বপন

মিরাজুল কবীর টিটো : পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য্য বলেছেন আমাদের দেশে প্রতিদিন ১ লক্ষ ৪৫ লিটার গরুর দুধ উৎপাদন হচ্ছে। করোনাকালীন সময়ে শিশুদের জন্য ১০ হাজার লিটার দুধ রিলিফ দেয়া হয়। কিন্তু ন্যায্য দামে বিক্রি হয় না। কোথাও কম আবার কোথাও বেশি দামে দুধ বিক্রি হচ্ছে। এ কারণে পাইলট প্রকল্পের মাধ্যমে প্রথম পর্যায় সাতক্ষীরা,যশোরের মণিরামপুর ও মেহেরপুরে দুধ উৎপাদনের জন্য মিনি প্লান্ট করে দুধ সরবরাহ করা হবে। এটা সফল হলে দেশের বিভিন্ন জেলায় এ প্লান্ট করা হবে। সেই সাথে দুধ উপাদনের মাধ্যমে সমবায়কে এগিয়ে নেয়া যাবে। এজন্য সমবায়ীদের মিনি প্লান্ট করার জন্য বিনামূল্যে ৫শ’ গরু ও ২০ হাজার টাকা দেয়া হবে।

যশোর সার্কিট হাউজে বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত করোনাকালীন এবং পরবর্তী করণীয় সম্পর্কে সমবায়ীবৃন্দের সাথে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন করোনা পরিস্থিতিতে প্রধানমন্ত্রীর সময় উপযোগি পদক্ষেপের কারণে  আমাদের দেশের মানুষ বিশে^র অন্যান্য দেশের চেয়ে ভাল আছে। অর্থনৈতিক ক্ষতি কিংবা কোন সেক্টরে সংকট দেখা দেয়নি। বরং প্রধানমন্ত্রী প্রণোদনা দিয়েছেন।

যশোরের জেলা প্রশাসক তজিমুল ইসলাম খানের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন যশোর সমবায় ব্যাংকের চেয়ারম্যান ও সদর উপজেলার ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান নুর জাহান ইসলাম নিরা, খুলনা বিভাগীয় সমবায় অফিসের যুগ্ম নিবন্ধক মিজানুর রহমান। এসময় আরো বক্তব্য রাখেন কেশবপুরের আস্থা সমবায় সমিতির সাধারণ সম্পাদক উত্তম কুমার, সদরের খ্রিস্টান কো-অপারেটিভ সোসাইটির সভাপতি নির্মল হালদার সিটিজেন সঞ্চয় সমবায় সভাপতি ওয়াহিদুজ্জামান, মণিরামপুর কপালিয়া মৎস্য সমবায় সমিতির সভাপতি পরিতোষ সরকার, অভয়নগর কৃষি সমবায় সমিতির সভাপতি ফারুক হোসেন,ঝিকরগাছার খেয়া সমবায় সমিতির সদস্য মুজিবুল হক, মণিরামপুর পল্লি ঋণ সঞ্চয় সমবায় সমিতির সভাপতি মোশারফ হোসেন, চৌগাছার হাকিমপুর মৎস্যজীবী সমবায় সমিতির সদস্য সুফল চন্দ্র বিশ^াস,বাঘারপাড়ার আইডয়াল ঋনদান সমবায় সমিতির সদস্য মহাসীন আলী প্রমুখ।