লোহাগড়ায় প্রতিপক্ষের হামলায়  হত্যা মামলার দুই সাক্ষি আহত

লোহাগড়া (নড়াইল) প্রতিনিধি: নড়াইলের লোহাগড়ায় আমাদা গ্রামে হত্যা মামলার দুই স্বাক্ষীকে পিটিয়ে আহত করেছে প্রতিপক্ষরা। আহতদের লোহাগড়া হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনার পুলিশ একজনকে আটক করেছে।

এলাকাবাসী ও পুলিশ সুত্রে জানা যায়, উপজেলার আমাদা গ্রামে আধিপত্য বিস্তার করাকে কেন্দ্র করে দীর্ঘদিন ধরে আজাদ মোল্যা ও নাইচ খাঁ গ্রুপের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল। এ বিরোধের জের ধরে দীর্ঘদিন ওই গ্রামে হামলা মামলা চলে আসছে। ২০০৮ সালে শাহি শেখ প্রতিপক্ষের হাতে খুন হয়।

আহতের ভাই মানিক শেখ জানান, আমার পিতা শাহি শেখ ২০০৮ সালে প্রতিপক্ষের হাতে খুন হওয়ার পর আমরা হত্যা মামলা দায়ের করি। এ হত্যা মামলায় আমার ভাই শরিফুল শেখ প্রতিবেশী পিন্টু মল্লিক স্বাক্ষী ছিল। আসামিরা স্বাক্ষীদের স্বাক্ষ্য না দিতে অব্যাহত হুমকি দিয়ে আসছিল। গত শনিবার বিকেলে ওই হত্যা মামলার স্বাক্ষী আমার ভাই শরিফুল শেখ ও প্রতিবেশী পিন্টু মল্লিক বিলের থেকে বাড়ির দিকে আসছিল। ছইদ মোল্যার বাড়ির দক্ষিণ পাশে পৌঁছালে প্রতিপক্ষের লোকজন হামলা চালিয়ে তাদেরকে পিটিয়ে আহত করে। এলাকাবাসী তাদের উদ্ধার করে লোহাগড়া হাসপাতালে ভর্তি করে। লোহাগড়া থানার অফিসার ইনচার্জ সৈয়দ আশিকুর রহমান বলেন, হামলার ঘটনায় রিন্টু মন্ডল নামে একজনকে আটক করা হয়েছে।