স্বাধীনতা সংগ্রামী অ্যাড. রওশন আলী এমপির মৃত্যুবার্ষিকী আজ


নিজস্ব প্রতিবেদক:
যশোরের কৃতি সন্তান স্বাধীনতা সংগ্রামী, বঙ্গবন্ধুর সহোচর অ্যাড. রওশন আলী এমপির ২৬ তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ। ১৯৯৪ সালের এদিন তিনি ৭৩ বছর বয়সে ইন্তেকাল করেন। ১৯২১ সালের ১২ এপ্রিল যশোর সদর উপজেলার তেঘরিয়া গ্রামে মাতুলালয়ে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতার নাম মরহুম মান্দার আলী ও মাতা খোদেজা বেগম। পিতৃ নিবাস সদরের নওদা গ্রামে। রওশন আলী নিজ গ্রামে প্রাথমিকের গন্ডি পার করে ভর্তি হন যশোর সম্মিলনী ইন্সটিউিশনে। তিনি ১৯৩৯ সালে সেখান থেকে প্রবেশিকা ও ১৯৪১ সালে উচ্চ মাধ্যমিক পাশ করে ১৯৫১ সালে কলকাতার রিপন কলেজ থেকে গ্রাজুয়েট হন। ১৯৫১ সালে তিনি কোলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আইন শাস্ত্রে ডিগ্রি অর্জন করে ১৯৫২ সালে আইন পেশায় নিয়োজিত হন ও যশোর আইনজীবী সমিতির সদস্য হন।
রওশন আলী ১৯৫০ সালে আওয়ামী লীগে যোগ দেন। তিনি ১৯৫৫ সালে যশোর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়ে ১৯৭২ সাল পর্যন্ত তিনি এ পদে ছিলেন। এর পর যশোর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হিসেবে আমৃত্যু দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৮৫ সাল থেকে আমৃত্যু বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য হিসাবেও দায়িত্ব পালন করেন তিনি।
১৯৭০ সালে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন নিয়ে যশোর সদর ও বাঘারপাড়া আসন থেকে পাকিস্তান জাতীয় পরিষদের সদস্য (এমএনএ) নির্বাচিত হন। ১৯৭১ সালের স্বাধীনতা যুদ্ধে তিনি ভারতে অবস্থান করেন। তিনি ১৯৭২ সালে খসড়া সংবিধান প্রণয়ন কমিটির সদস্য ছিলেন। বাংলাদেশের গণপরিষদেরও তিনি সদস্য ছিলেন।
১৯৭৩ সালের প্রথম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তিনি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনয়ন নিয়ে বিলুপ্ত যশোর-৯ বর্তমান-৩ (যশোর সদর) আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন। ১৯৭৫ সালে তিনি বাকশালে যোগদান করে যশোরের গর্ভণর হন। এর পর তিনি ১৯৯১ সালের পঞ্চম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে যশোর-৩ আসন থেকে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন নিয়ে পুনরায় সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।
১৯৮৬ সালের তৃতীয় জাতীয় নির্বাচনে প্রার্থী হয়ে তিনি পরাজিত হয়েছিলেন।
১৯৮৫ সালে তিনি রাষ্ট্রপতি স্বর্ণপদক পান। তিনি ১৯৮৫ সালে বাংলাদেশ কো অপারেটিভ ইন্সুরেন্সের প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক ছিলেন। তিনি ১৯৮২-৮৩ এবং ১৯৮৬ সাল পর্যন্ত যশোর আইনজীবী সমিতির তিনবারের নির্বাচিত সভাপতি ছিলেন। তিনি বাংলাদেশ জাতীয় সমবায় শিল্প সমিতি ও জাতীয় সমবায় ইউনিয়নের সভাপতি ছিলেন।
তিনি ১৯৪০ সালে লুৎফুন্নেছাকে বিয়ে করেন। পারিবারিক জীবনে তিন ছেলে ও চার মেয়ের জনক ছিলেন তিনি।
মরহুম রওশন আলী স্মরণে যশোর জেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে জেলা আইনজীবী সমিতির ২নম্বর মিলনায়তনে আলোচনাসভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হবে বলে জানিয়েছেন সংগঠনের সাবেক জেলা উপদফতর সম্পাদক ওহিদুল ইসলাম তরফদার। এছাড়া নওদা গ্রাম জামে মসজিদে বাদ জোহর দোয়া, কবর জিয়ারত ও এতিমখানায় খাবার বিতরণ করা হবে। পরিবারের পক্ষ থেকে মরহুমের ছেলে অ্যাড. আবু সেলিম রানা সবাইকে অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকার অনুরোধ করেছেন।