৩ কিশোর হত্যায় আটক কর্মকর্তারা রিমান্ড শেষে কারাগারে

নিজস্ব প্রতিবেদক : যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে ৩ কিশোরের খুনের ঘটনায় তত্ত্বাবধায়কসহ তিন কর্মকর্তাকে রিমান্ড শেষে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

বুধবার (১৯ আগস্ট) বিকেলে যশোর জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করা হলে বিচারক তাদের কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা যশোর চাঁচড়া ফাড়ির ইনচার্জ পরিদর্শক রকিবুজ্জামান  বলেন, জিজ্ঞাসাবাদে বন্দী নির্যাতন ও খুনের ব্যাপারে তাদের কাছ থেকে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য মিলেছে। এ ব্যাপারে আরও অধিকতর জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ফের তাদের রিমান্ড আবেদন করা হবে।

রিমান্ড শেষে কারাগারে পাঠানো তিন কর্মকর্তা হলেন, যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রের তত্ত্বাবধায়ক (সহকারী পরিচালক) আব্দুল্যা আল মাসুদ, সহকারী তত্ত্বাবধায়ক (প্রবেশন অফিসার) মাসুম বিল্লাহ, ফিজিক্যাল ইন্সট্রাক্টর একেএম শাহানুর আলম।

এর আগে রিমান্ডে নেওয়া কেন্দ্রের আরো দুই কর্মকর্তা সাইকো সোস্যাল কাউন্সিলর মো. মুশফিকুর রহমান ও কারিগরি প্রশিক্ষক (ওয়েল্ডিং) ওমর ফারুককে রিমান্ড শেষে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

গত ১৩ আগস্ট যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে নির্যাতনে নিহত হয় তিন বন্দী কিশোর ও আহত হয় আরো ১৫ জন। এ ঘটনায় পুলিশ ওই কেন্দ্রের পাঁচ কর্মকর্তাকে আটক করে আদালতের মাধ্যমে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করে।

এদিকে হত্যা নির্যাতনের ঘটনায় সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের গঠিত তদন্ত কমিটি আরো সাত দিন সময় বাড়ানোর জন্য আবেদন জানিয়েছে। তবে সমাজসেবা অধিদপ্তর গঠিত তদন্ত কমিটির রিপোর্ট যেকোন সময় সমাজসেবা অধিদপ্তর ঢাকার মহাপরিচালকের কাছে জমা হতে পারে। তদন্ত কমিটি সংশিষ্ট একটি সূত্র বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।