ঝিকরগাছায় মানা হচ্ছে না স্বাস্থ্যবিধি : এক সপ্তাহে আক্রান্ত ৫৮

এম আলমগীর, ঝিকরগাছা : যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলায় করোনা ভাইরাস সংক্রমণের পরিস্থিতি দিনদিন ভয়াবহ রুপ নিচ্ছে। গত এক সপ্তাহে করোনা শনাক্ত হয়েছে ৫৮ জন এবং ১ জনের মৃত্যু হয়েছে। কিন্তু  প্রশাসন ও সাধারণ মানুষের মধ্যে কোন প্রতিক্রিয়া নেই। কোন নিয়ম নীতি বা স্বাস্থ্যবিধি কেউ মানছে না। সব কিছু চলছে স্বাভাবিক নিয়মেই।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. রাশিদুল আলমের তথ্য মতে, রোববার নমুনা পরীক্ষার ফলাফলে ১৪ জন করোনা শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে উপজেলায় মোট ২১৫ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে ১৪০ জন সুস্থ হয়েছেন।

আক্রান্ত ১৪ জন হলেন, পটু জামান (৬২), আব্দুর রউফ (৮৫), মাহমুদা বেগম মলি (৩৭), রুবেল মিয়া (২১), হাফিজুর রহমান (৫৫), আমিনুর ইসলাম (২৮), মইনউদ্দীন নাইম (২৫), নওরিন সুলতানা (১৬), নিগার সুলতানা (২২), আমিনুর রশিদ (৫৫), ইকরা উদ্দীন (২০), মইনুল হুসাইন (৩৫), জিল্লুর কাদের (৫৩) ও আশরাফুল ইসলাম (২৯)।

এছাড়া ২২ আগস্ট ১২ জন, ২১ আগস্ট ১২ জন, ২০ আগস্ট ৩ জন, ১৮ আগস্ট ৪ জন, ১৭ আগস্ট ৭ জন ও ১৫ আগস্ট ৬ জনসহ গত এক সপ্তাহে ৫৮ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের তথ্য অনুযায়ী, এ পর্যন্ত উপজেলায় ৮১৭ জনের করোনা ভাইরাসের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে এবং ২১৫ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে। আক্রান্তের মধ্যে ১৪০ জন সুস্থ হয়েছে। হোম কোয়ারেন্টাইনে আছে ৭৫ জন।

এদিকে গত ১৮ আগস্ট উপজেলার বাঁকড়া ইউনিয়ন বিএনপির সাধারন সম্পাদক, বিশিষ্ট সমাজসেক ও শিক্ষানুরাগী মশিয়ার রহমান জ্বর, সর্দি রোগে আক্রান্ত হয়ে খুলনা মেডিকেল কলেজের চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন। খুলনা মেডিকেলে তার নমুনা দেয়া হয়েছিল। তার নমুনা পরীক্ষার ফলাফলে করোনা ভাইরাসের উপস্থিতি ছিল বলে নিশ্চিত করেছেন মরহুমের ভাইপো আমিনুর রহমান রবি। তার পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের করোনা নেগেটিভ এসেছে বলেও তিনি জানিয়েছেন।

গত এক সপ্তাহে করোনা ভাইরাস সংক্রমণের হার ব্যাপকভাবে বৃদ্ধি পেলেও সবকিছু স্বাভাবিক নিয়মেই চলছে। প্রশাসন বা সাধারণ মানুষের মধ্যে সংক্রমণের কোন প্রতিক্রিয়া লক্ষ্য করা যাচ্ছে না বলে ভুক্তভোগীরা দাবি করেছেন। তারা আরো জানান, কেউ কোন স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলছে না। সরকারি ভাবে মাস্ক ব্যবহারের আইন করলেও তা নিয়ে কারও কোন মাথা ব্যথা নেই। প্রশাসন নিরব ভুমিকা পালন করে চলেছে।