ম্যাজিস্ট্রেট সেজে অভিযান, নারীসহ আটক ৪


নিজস্ব প্রতিবেদক, মণিরামপুর
ম্যাজিস্ট্রেট সেজে অভিযান চালানোর অভিযোগে মণিরামপুরের ঢাকুরিয়া বাজার থেকে নারীসহ ৪জনকে আটক করেছে জনতা। এ সময় গণপিটুনি থেকে বাঁচতে তারা ইউনিয়ন পরিষদ ভবনে আশ্রয় নেয়।
পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, মঙ্গলবার দুপুরে এক নারীসহ ৪জন একটি প্রাইভেট কারে ঢাকুরিয়া বাজারে আসে। এ সময় জনগণের সন্দেহ হলে তাদের আটক করতে উদ্যত হয়। পরিস্থিতি এড়াতে তারা পরিষদ ভবনে ঢুকে পড়ে। আটককৃতরা হলেন শাহদাৎ হোসেন (৩৫), গোলাম মোস্তফা (২৮), ইতি রানী (২২) ও জহুরুল ইসলাম (৪০)। আটক এ ৪জনের মধ্যে জহরুল ইসলামে বাড়ি কোটচাঁদপুর, অপর ৩জনের বাড়ি খুলনায় বলে জানা গেছে।
সূত্র জানায়, আটক ৪ জনের মধ্যে শাহদাৎ হোসেন নিজেকে ম্যাজিস্ট্রেট দাবি করে অভয়নগর উপজেলার মাগুরার একটি চাতাল মিলে যায়। তারা বিভিন্ন কাগজপত্র দেখার নামে টাকা দাবি করলে সন্দেহ হয় চাতাল মালিকের। এক পর্যায়ে তারা পরিস্থিতি এড়াতে দ্রুত ঘটনাস্থল থেকে সটকে পড়ে। তারা ঢাকুরিয়া বাজারে এসে নিরাপদ মনে করে দাঁড়ায়। কিন্তু পিছু ছাড়েনি এলাকাবাসী। বিষয়টি জানানোর পর ঢাকুরিয়া বাজারের লোকজনের সহযোগিতায় আটক করা হয় তাদের।
বিষয়টি নিশ্চিত করে চেয়ারম্যান এরশাদ আলী জনান, অভয়নগরের মাগুরায় চাঁদাবাজি করতে যেয়ে তারা জনগণের ধাওয়া খেয়ে পরিষদে এসে উঠেছিল। খবর পেয়ে মণিরামপুর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে যান। ওসি রফিকুল ইসলাম জানান, অভয়নগর উপজেলার মাগুরার একটি প্রতিষ্ঠানে চাঁদাবাজি করতে যায় তারা। এ কারণে আটক ৪ জনকে অভয়নগর পুলিশের হাতে দেয়া হয়েছে।