এবারের আইপিএল থেকে সরে গেলেন যারা

স্পন্দন স্পোর্টস ডেস্ক : আইপিএল মানেই টাকার ঝনঝনানি। বিশ্বের সবচেয়ে বড় এই ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেট লিগে সুযোগ পাওয়া মানেই কপাল খুলে যাওয়া ক্রিকেটারদের। আইপিএলের জন্য জাতীয় দলকেও ‘না’ বলে দেন অনেক ক্রিকেটার।

এমন এক লোভনীয় টুর্নামেন্ট থেকে কি না এবার একের পর এক ক্রিকেটারের সরে যাওয়ার খবর শোনা যাচ্ছে! সর্বশেষ আজ (শুক্রবার) আইপিএল থেকে সরে দাঁড়ানো ক্রিকেটারদের তালিকায় নাম লিখিয়েছেন ভারতের অভিজ্ঞ স্পিনার হরভজন সিং।

চলুন এক নজরে দেখে নেয়া যাক, এখন পর্যন্ত কোন কোন ক্রিকেটার আইপিএলের ১৩তম আসর থেকে সরে দাঁড়ালেন…

১. জেসন রয় (দিল্লি ক্যাপিটেলস) : ইংলিশ এই ওপেনার গত মঙ্গলবার ওল্ড ট্রাফোর্ডে অনুশীলনের সময় চোটে পড়েছেন। ফলে পাকিস্তানের বিপক্ষে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজটিও খেলতে পারেননি। ৩০ বছর বয়সী এই ব্যাটসম্যানের বদলে দিল্লি নিয়েছে অস্ট্রেলিয়ান বোলিং অলরাউন্ডার ড্যানিয়েল সামসকে।

২. সুরেশ রায়না (চেন্নাই সুপার কিংস) : ভারতের সাবেক এই অলরাউন্ডারই এবারের আইপিএল থেকে সরে যাওয়া প্রথম বড় তারকা। ৩৩ বছর বয়সী এই ক্রিকেটার ব্যক্তিগত কারণ দেখিয়ে সরে গেছেন। তার হঠাৎ এমন সিদ্ধান্তে বিপদে পড়েছে দল। এখন পর্যন্ত রায়নার বিকল্প কাউকে নেয়নি চেন্নাই।

৩. কেন রিচার্ডসন (রয়েল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরু) : অসি এই পেসার আইপিএল থেকে সরে গেছেন প্রথমবারের মতো বাবা হচ্ছেন বলে। বিরাট কোহলির দলে রিচার্ডসনের স্থলাভিষিক্ত হিসেবে নেয়া হয়েছে তারই স্বদেশি লেগস্পিনার অ্যাডাম জাম্পাকে।

৪. লাসিথ মালিঙ্গা (মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স) : লঙ্কান এই পেস কিংবদন্তির না খেলা মুম্বাইয়ের জন্য বড় ধাক্কা। ৩৭ বছর বয়সী এই পেসার আইপিএলের ইতিহাসের সবচেয়ে সফল বোলার। ব্যক্তিগত কারণে সরে গেছেন তিনিও। মালিঙ্গার বদলে রোহিত শর্মার দল নিয়েছে অসি পেসার জেমস প্যাটিনসনকে।

৫. হ্যারি গার্নে (কলকাতা নাইট রাইডার্স) : কাঁধের চোটে আইপিএল থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন কলকাতা নাইট রাইডার্সের ইংলিশ পেসার হ্যারি গার্নে। তার জায়গায় এখনও কাউকে নেয়নি কেকেআর। তবে বাংলাদেশি পেসার মোস্তাফিজুর রহমানের নামটি জোরেসোরে শোনা যাচ্ছে।

৬. হরভজন সিং (চেন্নাই সুপার কিংস) : সুরেশ রায়নার পর চেন্নাই শিবিরে দ্বিতীয় ধাক্কা হরভজনের সরে যাওয়া। কি কারণে তিনি এমন সিদ্ধান্ত নিলেন সেটি এখনও পরিষ্কার নয়। তাই ভারতের বর্ষীয়ান এই স্পিনারের স্থলাভিষিক্ত হিসেবে কারও নাম ঘোষণা করেনি চেন্নাই।