বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গবন্ধু কন্যার একই সংকল্প বাংলাদেশ হবে উন্নত পৃথিবীর উন্নয়নের রোল মডেল : শেখ আফিল উদ্দিন এমপি

 

শেখ কাজিম উদ্দিন, বেনাপোল: যশোর-১ (শার্শা) আসনের এমপি আলহাজ শেখ আফিল উদ্দিন বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান তাঁর জাগ্রত স্বপ্নে বাঙালী জাতির উন্নয়নের রুপরেখা এঁকে এদেশকে পরাধীনতা থেকে মুক্ত করে স্বাধীন বাংলাদেশের জন্ম দিয়েছিলেন আর বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাবার উন্নয়নের সাথে একাত্মতা পোষণ করে বঙ্গবন্ধুর রেখে যাওয়া অসমাপ্ত স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ সকল বাধা বিপত্তি পেরিয়ে তিলে তিলে গড়ে চলেছেন। কি অপূর্ব মিল বঙ্গবন্ধু এবং বঙ্গবন্ধুর কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মধ্যে। যাদের দু’জনের সংকল্প বাংলাদেশের উন্নয়ন। বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গবন্ধুর কন্যা প্রধানমন্ত্রীর একই সংকল্প “বাংলাদেশ হবে উন্নত পৃথিবীর উন্নয়নের রোল মডেল”।

শনিবার বেলা ১০ টায় যশোরের শার্শা উপজেলার লক্ষণপুর স্কুল এন্ড কলেজ’র ৪তলা একাডেমিক ভবনের ফিতা কেটে উদ্বোধন, দোয়া ও কৃতি শিক্ষার্থীদের পুরস্কার বিতরণ শেষে প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন তিনি।

শার্শা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান তথা লক্ষণপুর স্কুল এন্ড কলেজ’র ম্যানিজিং কমিটির সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল হক মঞ্জুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উক্ত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সাংসদ শেখ আফিল উদ্দিন আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়নের ধারায় আজ লক্ষণপুর ইউনিয়নের মতো সাবেকি এক ভুতুড়ে পল্লীতে আমরা ২ কোটি ৮৮ লক্ষ টাকা ব্যয়ে ৪-তলা বিশিষ্ট স্কুল এন্ড কলেজ উদ্বোধন করতে পেরেছি, রাস্তা পাকা করেছি, সারের জন্য হাহাকার নেই, যা কৃষকের দোরগোড়ায় গিয়ে ডাকছে আমাকে ব্যবহার করো, গ্রামের একটি বাড়িও বিদ্যুৎ বিহীন নেই। এটিই আওয়ামী লীগের উন্নয়ন। যা বঙ্গবন্ধু স্বপ্ন দেখেছিলেন।

পরে, একইদিন বিকেল ৪টায় সময় শার্শা উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে উপজেলা কমপ্লেক্স অডিটোরিয়ামে ২০১৯-২০ অর্থ বছরে যশোরের শার্শা উপজেলার এডিপি এবং রাজস্ব বাজেটের অর্থ দ্বারা বাস্তবায়িত প্রকল্প সমূহের মাধ্যমে শার্শা উপজেলার জনগণের কল্যাণে খেলাধূলা সামগ্রী, দারিদ্র ও মেধাবী ছাত্রীদের বাইসাইকেল, দুস্থ মহিলাদের সেলাইমেশিন, ডেঙ্গু প্রতিরোধে হ্যান্ড স্প্রে, মেশিন ও ঔষধ বিতরণ, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বেঞ্চ ও সিলিং ফ্যান সরবরাহ, বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে ও বাজারে ডাস্টবিন সরবরাহ এবং ছাত্রীদের মাঝে স্বাস্থ সচেতনতার জন্য ন্যাপকিন বিতরণ শেষে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য প্রদান করেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি আলহাজ শেখ আফিল উদ্দিন এমপি।

শার্শা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পূলক কুমার মন্ডলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে সাংসদ শেখ আফিল উদ্দিন বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা খুব যতœ করে বাংলাদেশকে সাজিয়ে তুলছেন। যার অংশিদার আমাদেরকেও হতে হবে। সোনার বাংলাদেশ গড়তে হলে আমাদেরকে সোনার মানুষ হিসেবে তৈরি হতে হবে। নতুবা উন্নয়নের উন্নত শিখরে পৌঁছাতে গেলে আমাদের আওয়ামী লীগ সরকারের অনেক সময় লেগে যাবে। তাই, প্রত্যেক ঘরে ঘরে সোনার মানুষ তৈরি করতে হবে। আমাদের ছেলেমেয়েদের মানুষের মতো মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে হবে। প্রতিযোগিতার যুগে আমাদের সন্তানদের লেখাপড়া ও খেলাধুলার মাধ্যমে যোগ্য প্রতিযোগি করে গড়ে তুলে সোনার মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে হবে। তবেই, আপনার আমার পরিবারে যেমন নিজস্ব আলো জ¦লবে তদ্রুপ আপনার বাড়ির আলোয় গোটা বাংলাদেশ আলোকিত হবে। আর সেদিনই বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলাদেশ গড়ার স্বপ্ন এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার তিলে তিলে গড়া সোনার বাংলা গড়ার কষ্ট সার্থক হবে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, শার্শা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ নুরুজ্জামান, উপজেলা প্রকৌশলী মামুন খান, মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা হাফিজুর রহমান চৌধুরী, শার্শা থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) বদরুল আলম খান, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আলহাজ সালেহ আহমেদ মিন্টু, যুগ্মসম্পাদক ও যশোর জেলা পরিষদের সদস্য অধ্যক্ষ ইব্রাহিম খলিল, যশোর জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক শিক্ষা বিষযক সম্পাদক আসিফ-উদ-দৌলা অলোক সরদার, শার্শা উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মোজাফফর হোসেন, লক্ষণপুর স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ শাহজাহান কবির, বেনাপোল পৌর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আলহাজ এনামুল হক মুকুল, সাধারণ সম্পাদক আলহাজ নাসির উদ্দিন, শার্শা উপজেলা যুবলীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের সদস্য অহিদুজজামান অহিদ, সাধারণ সম্পাদক ও সদর ইউপি চেয়ারম্যান সোহরাব হোসেন, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আব্দুর রহিম সরদার, বেনাপোল ইউপি চেয়ারম্যান আরহাজ বজলুর রহমান, কায়বা ইউপি চেয়ারম্যান হাসান ফিরোজ আহদে টিংকু, গোগা ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ আব্দুর রশিদ, ডিহি ইউপি চেয়ারম্যান হোসেন আলী, নিজামপুর ইউপি চেয়ারম্যান আবুল কালাম আযাদ, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল ওহাব, সাধারণ সম্পাদক নাসির উদ্দিন, লক্ষণপুর ইউপি চেয়ারম্যান আনোয়ারা বেগম, সাবেক চেয়ারম্যান কামাল হোসেন, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শামছুর রহমান, আওয়ামী লীগ নেতা প্রভাষক মোস্তফা, মোস্তফা, বাহাদুরপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমানসহ স্থানীয় প্রশাসন ও আওয়ামী লীগের সকল সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীরা।