ভোমরা বন্দর দিয়ে এলো ৭২১ টন ভারতীয় পেঁয়াজ

জেলা প্রতিনিধি সাতক্ষীরা :

কোনো ঘোষণা ছাড়াই পেঁয়াজ রফতানি বন্ধ ঘোষণা করে দেয় ভারত। এতে সাতক্ষীরার ভোমরা স্থল বন্দরের ব্যবসায়ীদের ১৬৫ ট্রাক পেঁয়াজ ভারতে আটকা পড়ে যায়।

তবে ভারত সরকারের সিদ্ধান্তে আগে এলসি করা পেঁয়াজের ওপর নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করায় শনিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) দুপুর থেকে ভোমরা বন্দর দিয়ে পেঁয়াজ আমদানি শুরু হয়। সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা পর্যন্ত ৩১টি পেঁয়াজের ট্রাক দেশে প্রবেশ করেছে।

ভোমরা বন্দরের রাজস্ব কর্মকর্তা মহসিন হোসেন বলেন, দুপুর থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত ৩১ ট্রাকে ৭২১ টন পেঁয়াজ দেশে প্রবেশ করেছে। ভারত কেন পেয়াজ রফতানি বন্ধ করেছিল সে বিষয়ে লিখিতভাবে কিছু জানায়নি। যে পেঁয়াজের ট্রাকগুলো দেশে প্রবেশ করেছে সেগুলো আগে এলসি করা।

ভোমরা সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান নাসিম বলেন, অনুমোদন করা পেঁয়াজের ট্রাক ৪০-৪৫টি। ১২৫ ট্রাক পেঁয়াজ এলসি করা রয়েছে। ভারত সরকার ডকুমেন্ট পাস (অনুমোদন) করা ট্রাকগুলো ছেড়ে দিয়েছে। বাকিগুলো দেয়নি। পেঁয়াজ রফতানির বিষয়ে এখনও কোনো সিদ্ধান্তের কথা জানায়নি ভারত।

ভোমরা সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের কোষাধ্যক্ষ মাকসুদ খান বলেন, ১৪ সেপ্টেম্বর থেকে পেঁয়াজ রফতানি বন্ধ করে দেয় ভারত। এরপর আগের ডকুমেন্ট পাস করা ট্রাকগুলো বাংলাদেশে প্রবেশের অনুমতি দেয়া হয়। ভোমরাসহ তিনটি বন্দর দিয়ে ২৫ হাজার মেট্রিক টন পেঁয়াজ রফতানির অনুমতি দিয়েছে ভারত সরকার। সে অনুমতিতে ডকুমেন্ট পাসকৃত ট্রাকগুলো দেশে প্রবেশ করছে।