যশোরে কাজী সমিতির সভাপতি সম্পাদকসহ তিন জনের বিরুদ্ধে আইনজীবীর মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক : যশোর সদর উপজেলা কাজী সমিতির সভাপতি মনিরুল ইসলামসহ ৩ কাজীর বিরুদ্ধে রোববার আদালতে মানহানির অভিযোগে মামলা হয়েছে। রোববার যশোর আইনজীবী সমিতির সদস্য মাসুদুর রহমান বাদী হয়ে এ মামলা করেছেন। জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক মো.সাইফুদ্দীন হোসাইন অভিযোগ আমলে নিয়ে আসামিদের প্রতি সমন জারির আদেশ দিয়েছেন।

আসামিরা হলো যশোর পৌরসভার ৫ নম্বর ওয়ার্ডের কাজী, সদর উপজেলা কাজী সমিতির সভাপতি মনিরুল ইসলাম, ১ ও ৯ নম্বর ওয়ার্ডের কাজী জেলা কমিটির সাধারণ সাম্পাদক মোশাররফ হোসেন ও সদর উপজেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক রামনগর ইউনিয়নের কাজী কামাল হোসেন।

মামলার অভিযোগে জানা গেছে, গত ৯ সেপ্টেম্বর আসামিরা প্রেসক্লাব যশোরে সংবাদ সম্মেলন করেন। এই সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, শহরের আদালত পাড়ার কিছু উকিল ও মহুরি কাজী হুসাইন (বিবাহ ও তালাক রেজিস্ট্রার) ও তার সহকারীর সাথে একজোট হয়ে অবাধে বাল্য বিয়ে ও তালাক সংক্রান্ত বেআইনি কর্মকাণ্ডে জড়িত। কিন্তু প্রকৃতপক্ষে যশোরের আইনজীবীরা বাল্য বিবাহরোধে বিভিন্ন সমাজিক প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে জনগণকে সচেতন করে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে আসছেন। এ কারণে বাল্য বিবাহ দেয়া সংক্রান্ত কোনো কাজের সাথে আইনজীবীদের কোনো ভূমিকা নেই। মূলত ওই সংবাদ সম্মেলনে আসামিরা পরস্পর যোগসাজসে আইনজীবীদের সামাজিক মর্যাদাহানির অসৎ উদ্দেশ্যে অসত্য বক্তব্য দিয়েছেন। এতে আইনজীবীদের সম্মানহানি হওয়ায় তিনি আদালতে এ মামলা করেছেন।