আগুনে মালামাল পুড়ে ছাই ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী দিশেহারা

মাগুরা প্রতিনিধি : আট বছর বয়সে মাত্র ৪০ টাকা পুঁজি নিয়ে রাস্তার পাশে চপ-সিঙ্গাড়া তৈরি করে বিক্রি শুরু করেন মো: মাহামুদ শেখ (৩৫)। তারপর গ্রামের তিন রাস্তার মোড়ে একটি মুদি দোকান করেন। বিশ বছর ধরে তিল তিল করে গড়ে তুলেছেন মুদি দোকানটি।

শনিবার গভীর রাতে পূর্বশত্র“তার জেরে দাহ্য পদার্থ দিয়ে ধরিয়ে দেয়া আগুনে দোকানটি পুড়ে সম্পূর্ণ ভষ্মীভূত  হয়ে গেছে। সেই সাথে পুড়ে ছাই হয়ে গেছে ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী মাহামুদের স্বপ্ন।

শনিবার রাত সাড়ে বারোটার দিকে মাগুরার মহম্মদপুর উপজেলা সদরের সূর্যকুন্ডু গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। মাহামুদ পার্শ্ববর্তী লাহুড়িয়া গ্রামের মৃত হারুন শেখের ছেলে। এতে ওই ব্যবসায়ীর দোকানে থাকা প্রায়  তিন লাখ টাকার মালপত্র পুড়ে ছাই হয়ে যায়। সবাই যখন আগুন নেভাতে ব্যস্ত তখন দোকান থেকে ৩শ’  গজ দূরে লাহুড়িয়ার মাহামুদের বাড়িতে চুরিও সংগঠিত হয়। ঘটনার রাতে তিনি দোকানে ঘুমিয়ে ছিলেন বলে জানা গেছে। এ ঘটনার সাথে জড়িত সন্দেহে সূর্যকুন্ডু গ্রামের ইব্রাহিম ফকির ও হজরত ফকির নামের দুই ভাইকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে।

এক মাস আগে একটি চুরির ঘটনায় প্রতিবেশি এক দোকানদার স্থানীয় দুই ব্যক্তির নামে মামলা করার জের ধরে আগুন দেয়া হয়েছে বলে ক্ষতিগ্রস্ত দোকান মালিক মাহামুদ শেখ অভিযোগ করেন।

মাহামুদ শেখ ও গ্রামবাসীর সাথে কথা বলে জানা গেছে, মহম্মদপুর উপজেলা সদরের সূর্যকুন্ডু সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রবেশে পথে তিন রাস্তার মোড়। এখানে মাহামুদ শেখ, ইকবাল শিকদার  ও নূরুল ইসলামের তিনটি ক্ষুদ্র মুদি দোকান রয়েছে। গত আগস্ট মাসের ২৮ তারিখ রাতে একযোগে তিনটি দোকানে চুরি হয়। এ ঘটনায় ইকবাল শিকদার সন্দেহমূলক একই গ্রামের দুই ভাই ইব্রাহিম ফকির ও হজরত ফকিরের নামে মামলা করেন। পুলিশ এ ঘটনায় ১৯ সেপ্টেম্বর বিকেলে মাহামুদ শেখের  দোকানে এসে তার বক্তব্য জানতে চান।

শনিবার রাত নয়টার দিকে মাহামুদ শেখ প্রতিদিনের মতো বন্ধ করে দোকানে ঘুমিয়ে পড়েন। রাত সাড়ে বারোটার দিকে দোকানের চার পাশে আগুন জ¦লতে দেখে গ্রামের লোক  এসে মাহামুদকে বের করেন। তারপর তারা প্রায় আধাঘণ্টা চেষ্টা করে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন। এর মধ্যে আগুনে সব পুড়ে ছাই হয়ে যায়। পরে খবর পেয়ে উপজেলা সদর থেকে ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট ঘটনাস্থলে আসে।

মাহামুদ শিকদার জানান, আগুনে তার দোকানে থাকা টিভি ফ্রিজ, গ্যাসসিলিন্ডার চাল, ডাল, জ¦ালানি তেলসহ প্রায় তিন লাখ টাকার মালপত্র পুড়ে গেছে। সবাই যখন আগুন নেভাতে ব্যস্ত-  এই সুযোগে দোকানে অদূরে লাহুড়িয়াপাড়া গ্রামে তার নির্জন বাড়ি থেকে নগদ ১৮ হাজার টাকা, চাল, সিলিঙ ফ্যান ও গ্যাসের চুলা চুরি করে নিয়ে যায়। তিনি বলেন, তার জীবনের তিল তিল করে গড়া শেষ সম্ব^লটুকু শেষ হয়ে গেছে।

স্থানীয় সূর্যকুন্ডু  গ্রামের অধিবাসী মিজানুর রহমান মোল্যা, আলী আকবর শেখ ও সদর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক সদস্য শেখ আব্দুল মান্নান জানান, পূর্বপরিকল্পিতভাবে আগুন দেয়া হয়ছে। আমরা আগুন নেভাতে এসে দেখি দোকানে পেছনের বেড়ায় আগুন জ¦লছে। সেখানে আগুন ধরার কিছু নেই।

এ ঘটনায় জিজ্ঞাবাদের  জন্য সূর্যুকুন্ডু গ্রামের মুক্তাদির ফকিরের দুই ছেলে ইব্রাহিম ফকির ও হজরত ফকিরকে আটক করেছে  বলে পুলিশ জানায়।

মহম্মদপর উপজেলা ফায়ার সার্ভিস ইউনিট স্টেশন মাস্টার নূরুল ইসলাম জানান, তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

মহম্মদপুর থানা ভারপ্রাপ্ত র্কমকর্তা (ওসি) তারক বিশ্বাস জানান, ঘটনাটি আমরা জেনেছি। এ বিষয়ে একটি চুরি মামলা হয়েছে ।চুরির সাথে জড়িতদের আটকের চেষ্টা চলছে ।