যশোর সদর উপজেলা উপনির্বাচন চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের প্রার্থী নুর জাহান ইসলাম নীরা

মিরাজুল কবীর টিটো: সব জল্পনা কল্পনার অবসান ঘটিয়ে যশোর সদর উপজেলার উপনির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন পেলেন জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি, ভারপ্রাপ্ত উপজেলা চেয়ারম্যান নুর জাহান ইসলাম নীরা। সোমবার আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটি সভা করে তাকে দলীয় চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা দেন। মনোনয়ন পাওয়ার পর এক প্রতিক্রিয়ায় তিনি প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন। সেই সাথে যশোর সদর উপজেলাবাসী ও দলীয় নেতৃবৃন্দের প্রতি আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়ে বলেছেন, সবাইকে সাথে নিয়ে ডিজিটাল উপজেলা গড়ার কাজ করবো। সেই সাথে উপজেলাকে সন্ত্রাস ও মাদকমুক্ত করার চেষ্টা অব্যাহত থাকবে। ধনী,গরিব বিবেচনা না করে সকলকে সঠিক সেবা প্রদান করা হবে। সেবা নিতে এসে কোনো মানুষকে দুর্ভোগে পড়তে না হয় সেদিকে খেয়াল রাখা হবে।

নুর জাহান ইসলাম নীরা ১৯৮১ সাল থেকে ছাত্রলীগের রাজনীতি করার মধ্যদিয়ে রাজনীতিতে প্রবেশ করেন। ওই সময় সরকারি মহিলা কলেজে লেখাপড়াকালীন কলেজ ছাত্রলীগের সাংস্কৃতিক সম্পাদক  ও পরবর্তী জেলা ছাত্রলীগের সহসম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৯৩ সালে  যশোর পৌরসভার সাবেক ২ নম্বর ওয়ার্ড বর্তমান ৪ নম্বর ওয়ার্ডেল কাউন্সিলর নির্বাচিত হন। ১৯৯৭ সালে তৃণমূল নেতাকর্মীরা ভোটে তাকে জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নির্বাচিত করেন। ২০১৯ সালের উপজেলা নির্বাচনে ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। এবছরের ১৯ ফেব্রুয়ারি  যশোর-৬,কেশবপুর আসনে সংসদ উপনির্বাচনে দলীয় প্রার্থী হিসেবে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহীন চাকলাদার পদত্যাগ করেন। নির্বাচন কমিশন ২৪ ফেব্রুয়ারি উপজেলার চেয়ারম্যান পদটি শূন্য ঘোষণা করে নীরাকে ভারপ্রাপ্ত উপজেলা চেয়ারম্যানে দায়িত্ব দেন। আগামী ২০ অক্টোবরের উপজেলার উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটি সোমবার তাকে দলীয় প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা করেছে। এবার সদরে উপজেলা চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ দলীয় প্রার্থী হওয়ার জন্য ২০ জন আবেদন করেন। কিন্তু সবাইকে টপকে নুর জাহান ইসলাম নীরা মনোনয়ন পেলেন।

আগামী ২০ অক্টোবর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।