যশোরে সন্ত্রাসী পিচ্চি রাজাসহ আটক ৮, বোমা ও ইয়াবা উদ্ধার

নিজস্ব প্রতিবেদক: যশোর শহরের খড়কি কলাবাগান এলাকায় অভিযান চালিয়ে সন্ত্রাসী পিচ্চি রাজাসহ ৮ জনকে আটক করেছে পুলিশ। এ সময় তাদের আস্তানা থেকে ১০টি তাজা বোমা, ইয়াবা ট্যাবলেট ও ধারালো অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে।

কোতয়ালি থানা পুলিশের এএসআই আল মিরাজ খাঁন জানান, মঙ্গলবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে গোপন সংবাদে জানতে পারেন, খড়কি কলাবাগান রেললাইন এলাকায় সন্ত্রাসী পিচ্চি রাজা বহিরাগত কয়েকজন সহযোগীকে নিয়ে অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডের জন্য অবস্থান করছে। এ খবর পেয়ে সেখানে অভিযান চালানো হয়।  এ সময় সন্ত্রাসী পিচ্চি রাজা ও তার ৭ সহযোগীকে রেললাইন সংলগ্ন বস্তির একটি বাড়ি থেকে আটক করা হয়। এরপর ঘরে তল্লাশি চালিয়ে ১০টি তাজা বোমা, ৮০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট ও একটি হাসুয়া উদ্ধার করা হয়।

সূত্র জানায়, আটক ৮ সন্ত্রাসী হলো, যশোর শহরের খড়কি কলাবাগান রেললাইন এলাকার মুজিবর ওরফে জাহাঙ্গীরের ছেলে রাজা হোসেন ওরফে পিচ্চি রাজা, খুলনার তেরখাদা উপজেলার পাতলা গ্রামের আজমল লস্করের ছেলে রাজীব লস্কর, বায়েজীদ লস্কারের ছেলে সাব্বির লস্কর, তফসীর মোল্লার ছেলে বিল্লাল মোল্লা, দেলোয়ার ঘরামির ছেলে আকাশ ঘরামি, মাদারীপুরের আমতলা এলাকার মৃত ওলিয়ার রহমানের ছেলে স্বাধীন, ঘটকচর এলাকার মৃত শাহাদত হোসেনের ছেলে শামীম হোসেন ও খুলনার রেলওয়ে হাসপাতাল রোডের আমির হোসেনের ছেলে মনির হোসেন।  পুলিশ জানায়, আটক পিচ্চি রাজার বিরুদ্ধে কোতয়ালি থানায় হত্যা, অস্ত্র, বিস্ফোরক ও ডাকাতির প্রস্তুতিসহ ৭টি মামলা রয়েছে।

স্থানীয়রা জানান, খড়কি কলাবাগান রেললাইন এলাকার মুজিবর ওরফে জাহাঙ্গীরের ছেলে রাজা হোসেন ওরফে পিচ্চি রাজা ও তার সহযোগীদের অত্যাচারে তারা অতিষ্ঠ। তবে সন্ত্রাসীরা এলাকায় ঠিকমতো থাকেনা। মাঝে মধ্যে তারা এলাকায় ফিরে এসে নানা অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড চালায়। সোমবার রাতে পিচ্চি রাজা খুলনা থেকে ৯ জন সন্ত্রাসীকে এলাকায় নিয়ে আসে। ওই রাতেই পিচ্চি রাজা ধারালো অস্ত্র দিয়ে বস্তির কয়েকটি বাড়ির টিন কেটেছে। এ ঘটনায় বস্তির বাসিন্দারের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। মঙ্গলবার সকালে পিচ্চি রাজার দুজন সহযোগী খুলনায় ফিরে যায়। এরপর অন্য সন্ত্রাসীরা পিচ্চি রাজার বাড়িতে অবস্থান করতে থাকে। এ খবর পেয়ে দুপুরে কোতয়ালি থানার পুলিশ বস্তিতে অভিযান চালায়। এ সময় সেখান থেকে পিচ্চি রাজাসহ ৮ জনকে বোমা ও ইয়াবাসহ আটক করে পুলিশ।