পুরস্কার নিলো সারাদেশের প্রথম যশোর সিভিল সার্জন অফিস ও ষষ্ঠ ২৫০ শয্যা হাসপাতাল

বিল্লাল হোসেন : স্বাস্থ্যসেবায় ব্যাপক অবদান রাখায় স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাতীয় পুরস্কার- ২০১৯ তালিকায় সারাদেশে প্রথম স্থান অধিকার করেছে যশোর সিভিল সার্জন অফিস। আর জেলা হাসপাতাল ক্যাটাগরিতে ৬ষ্ঠ হয়েছে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতাল। এছাড়া বিভাগীয় ক্যাটাগরিতে প্রথম মণিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স। আর কমিউনিটি হেলথ সার্ভিস ক্যাটাগরিতে ৬ষ্ঠ অভয়নগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও উপজেলা ক্যাটাগরিতে প্রথম হয়েছে কেশবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স। এই তথ্য জানিয়েছেন যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. দিলীপ কুমার রায় ও  যশোরের সিভিল সার্জন ডা. শেখ আবু শাহীন। তারা জানান, দেশসেরার স্বীকৃতি স্বরুপ বৃহস্পতিবার (৮ অক্টোবর) প্যানপ্যাসিফিক হোটেল সোনারগাঁওয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে সেরা প্রতিষ্ঠান প্রধানদের হাতে পুরস্কার (সম্মাননা ক্রেস্ট ও সনদপত্র) তুলে দিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. জাহিদ মালেক। এসময় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. দিলীপ কুমার রায় জানান, পুরস্কার গ্রহণের পর বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় তিনিসহ ৫ প্রতিষ্ঠানের প্রধান যশোরে ফিরেছেন। এই পুরস্কারের মাধ্যমে সারাদেশে যশোরের সুনাম ছড়িয়ে গেলো। যশোর ছাড়া আর কোন জেলায় একসাথে ৫ টি প্রতিষ্ঠান দেশসেরার তালিকায় স্থান পায়নি। যশোরের সিভিল সার্জন ডা.শেখ আবু শাহীন জানান, সারাদেশের মধ্যে যশোর সিভিল সার্জন অফিস প্রথম স্থান অধিকার করেছে। এরচেয়ে বড় আনন্দ আর কি হতে পারে। এটা যশোরবাসীর জন্য গৌরব । আগামীতে এই ধারা অব্যাহত রাখার জন্য আপ্রাণ চেষ্টা থাকবে। প্রথমবারের মতো দেশসেরার পুরস্কার পাওয়া অভয়নগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের প্রধান কর্মকর্তা ডা. মাহমুদুর রহমান রিজভী জানান, এটি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের পরিছন্নকর্মী থেকে শুরু করে সকল মেডিকেল অফিসারের পরিশ্রমের ফল। তাদের সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন তিনি।

উল্লেখ্য, এবার সারাদেশে জেলা পর্যায়ে হাসপাতাল ক্যাটাগরিতে ৭ টি হাসপাতাল, সিভিল সার্জন অফিস কাট্যাগরিতে  ৫টি সিভিল সার্জন অফিস, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ক্যাটাগরিতে ১০ টি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স , কমিউনিটি হেলথ সার্ভিস ক্যাটাগরিতে ১০ টি ও বিভাগীয় ক্যাটাগরিতে ২ টি স্বাস্থ্য প্রতিষ্ঠানের দেশসেরা ঘোষণা করা হয়।