ধর্ষণ বিরোধী সমাবেশ করলো পুলিশ

স্পন্দন ডেস্ক : নিরাপদ দেশ গড়ি, নারী নির্যাতন বন্ধ করি’ এ স্লোগানকে সামনে রেখে সারাদেশে নারী ও শিশু ধর্ষণ ও নির্যাতন বিরোধী বিট পুলিশিং সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। বিস্তারিত প্রতিনিধিদের পাঠানো রিপোর্টে-

যশোর : সারাদেশের মতো যশোরেও কমিউনিটি পুলিশিং ফোরামের উদ্যোগে ধর্ষণসহ নারী নির্যাতন বিরোধী সমাবেশ হয়েছে। স্বস্ব বিট পুলিশিং এর কার্যালয়ে স্থানীয় সকল শ্রেণির নারী পুরুষের উপস্থিতিতে আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়।

যশোরে মূল অনুষ্ঠানটি হয়েছে শনিবার বিকেলে শহরের স্টেডিয়াম পাড়ায়। ওই এলাকার বিট পুলিশিং এর উদ্যোগে আয়োজিত সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন পুলিশ সুপার আশরাফ হোসেন।

তিনি বলেছেন, নারীর প্রতি সহিংসতা-নির্যাতন প্রতিরোধ করতে যশোর জেলা পুলিশের জিরো টলারেন্স নিয়ে কাজ করছে। শুধু পুলিশ বিভাগ নয়, সরকারের পক্ষ থেকে এ ধরনের কর্মকান্ডে কোনো ছাড় দেয়া হচ্ছে না। সমাজের বিভিন্ন স্তরে নারীর প্রতি সহিংসতা, নিপীড়ণ ও নারীর জন্য একটি অনিরাপদ জায়গা তৈরি করে ফেলেছে। এটি আজকে সামাজিক পতন হিসেবে দেখা দিয়েছে। এ থেকে আমরা সবাই কীভাবে মুক্তি পেতে পারি সে লক্ষ্যে কাজ করতে হবে। সমাবেশ থেকে ধর্ষণ ও নির্যাতন প্রতিরোধে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তোলার আহ্বান জানান তিনি। নারী নিপীড়ন বন্ধ করতে হলে মানুষকে সচেতন হতে হবে। প্রতিটি পরিবারে নৈতিক শিক্ষার চর্চা করা জরুরি বলেও মত দেন পুলিশ সুপার।

সভায় সভাপতিত্ব করেন কোতয়ালি থানার ওসি মনিরুজ্জামান। বক্তব্য রাখেন প্রেসক্লাব যশোরের সভাপতি জাহিদ হাসান টুকুন, যশোর পৌর ৫ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর হাবিবুর রহমান চাকলাদার মনি, জেলা পুলিশিং ফোরামের সদস্য সচিব অধ্যক্ষ জেএম ইকবাল হোসেন, স্টেডিয়াম পাড়া আঞ্চলিক কমিউনিটি পুলিশিং ফোরামের সভাপতি অ্যাডভোকেট বদরুদ্দোজা বদর, সাধারণ সম্পাদক হায়াতুজ্জামান মুকুল প্রমুখ।

এদিকে সকালে যশোর শিক্ষাবোর্ড সরকারি মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজে বিট পুলিশিং এর উদ্যোগে নারী নির্যাতন বিরোধী সমাবেশ হয়েছে। সেখানে প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন কলেজ অধ্যক্ষ লে.কর্নেল গোলাম মোস্তফা বিশেষ অতিথি ছিলেন যশোরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ক সার্কেল গোলাম রব্বানী, উপশহর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এহসানুর রহমান লিটু। সভাপতিত্ব করেন কোতয়ালি থানার ওসি মনিরুজ্জামান।

এছাড়া আরো বক্তব্য রাখেন, যশোর ইনস্টিটিউটের সহসভাপতি কাসেদুজ্জামান সেলিম, উপশহরের প্যানেল চেয়ারম্যান হাসান জহির, স্কুলের সহকারী শিক্ষক ফরিদা ইয়াসমিন ও ৮ নম্বর ওয়ার্ডের মেম্বার মশিউর রহমান মিনু।

যশোর পৌরসভার ৭ নম্বর ওয়ার্ড কমিউনিটি পুলিশিং ফোরামের উদ্যোগে বিট পুলিশিং এর কার্যালয়ে শংকরপুর ছোটনের মোড়ে এক নারী নির্যাতন বিরোধী সমাবেশ শনিবার সকালে অনুষ্ঠিত হয়। সভায় প্রধান অতিধি ছিলেন চাঁচড়া পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ইন্সপেক্টর রোকিবুজ্জামান। শফিকুরল ইসলাম তোতার সভাপতিত্বে সভায় আরো বক্তব্য রাখেন, বিশিষ্ট সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব হারুন অর রশিদ, সহসভাপতি সাংবাদিক মীর মঈন হোসেন মুসা, বিট পুলিশিং এর দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এসআই মফিজুল ইসলাম, রবি মোল্লা প্রমুখ।

এছাড়া শনিবার সকালে সদর উপজেরার নরেন্দ্রপুর ইউনিয়ন কমিউনিটি পুলিশিং ফোরামের উদ্যোগে এক সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন কোতয়ালি থানার পরিদর্শক (অপারেশন) আবু হেনা মিলন।

বাগেরহাট : ধর্ষণ ও নারী নির্যাতনের বিরুদ্ধে জনসচেতনাতা তৈরি করতে জেলার ৯টি উপজেলা ও তিনটি পৌরসভায় ৮৪টি বিটে ধর্ষণ ও নারী শিশু নির্যাতন বিরোধী সমাবেশ করছে বাগেরহাট পুলিশ।

শনিবার সকাল সাড়ে ১১ টায় বাগেরহাট শহরের যদুনাথ ইনষ্টিটিউট থেকে এই সমাবেশের সুচনা করেন বাগেরহাট পুলিশ সুপার পংকজ চন্দ্র রায়। সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, সহকারী পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) শফিন মাহমুদ, বাগেরহাট পৌরসভার প্যানেল মেয়র তালুকদার আব্দুল বাকী, সদর উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রিজিয়া পারভীন, বাগেরহাট প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি আহাদ উদ্দিনহায়দার, পৌর কাউন্সিলর নাসির উদ্দিন, শামিম হাসান প্রমুখ। এসময় পুলিশ সদস্য, সুশীল সমাজের প্রতিনিধি, শিক্ষথী ও বিভিন্ন শ্রেণি পেশার লোকজন উপস্থিত ছিলেন। জেলার ৯টি উপজেলা ও তিনটি পৌরসভায় ৮৪টি বিট থেকে ধর্ষণ ও নারী শিশু নির্যাতন বিরোধী সমাবেশ বিকাল ৩টা পর্যন্ত চলবে বলে জানান এসপি।

কপিলমুনি (খুলনা) : কপিলমুনিতে নারী নির্যাতন, ধর্ষণ ও নারীর অধিকার বিষয়ক সচেতনতামূলক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার দুপুরে মেহেরুন্নেছা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় মিলনায়তনে বিট পুলিশিং কমিটি আয়োজিত সভায় সভাপতিত্ব করেন পাইকগাছা অফিসার ইনচার্জ ওসি এজাজ শফী ।

সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন খুলনা জেলা প্রশাসক মোঃ হেলাল হোসেন। প্রধান বক্তা ছিলেন খুলনা জেলা পুলিশ সুপার শফিউল্লাহ। বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এ বি এম খালিদ হোসেন সিদ্দিকী, সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোহাম্মদ আরাফাতুল আলম, কপিলমুনি ইউপি চেয়ারম্যান কওছার আলী জোয়ার্দার, পাইকগাছা উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আনন্দ মোহন বিশ্বাস, লতা ইউপি’র সাবেক চেয়ারম্যান কাজল কান্তি বিশ্বাস, প্রধান শিক্ষিকা রহিমা আখতার শম্পা, ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি যুগোল কিশোর দে, বিট অফিসার পুলিশ পরিদর্শক সঞ্জয় দাশ, প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রাজ্জাক রাজু, সাবেক সহসভাপতি জি এম আসলাম হোসেন,  সাংবাদিক এইচ এম হাশেম, পাইকগাছা সাংবাদিক জোটের সদস্য সচিব পলাশ কর্মকার, মিলন দাশ, মহিলা আ’লীগ নেতা মাসুমা খাতুন, ইউপি সদস্য আব্দুল আজিজ বিশ্বাস, আব্দুস সালাম মোড়ল  প্রমুখ। সভা সঞ্চালনা করেন কপিলমুনি ইউনিয়ন আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ ইকবাল হোসেন খোকন।

মণিরামপুর  : ‘নিরাপদ   দেশ  গড়ি,   নারী  নির্যাতন   বন্ধ   করি’  স্লোগানকে সামনে রেখে সারাদেশের মত নারী নির্যাতন ও ধর্ষণের বিরুদ্ধে জনসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে মণিরামপুরে বিট পুলিশিং সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার মণিরামপুর পৌরসভাস  উপজেলার ১৭টি  ইউনিয়নে পৃথকভাবে বিট পুলিশিং কার্যক্রমের উদ্বোধন হয়েছে।  শনিবার  সকালে  উপজেলার   ভোজগাতী ইউনিয়নে  থানা পুলিশের আয়োজনে ইউনিয়ন পরিষদ হলরুমে বিট পুলিশিং সমাবেশের উদ্বোধন করেন ও আলোচনা সভায় প্রধান   অতিথি   হিসেবে  বক্তব্য রাখেন থানার অফিসার ইনচার্জ রফিকুল ইসলাম। মণিরামপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ও ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুর রাজ্জাকের সভাপতিত্বে ও পলিশের উপপরিদর্শক দেবাশিষ   মন্ডলের   সঞ্চালনায় এতে বিশেষ অতিথির   বক্তব্য   রাখেন, ভোজগাতী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আনিসুর রহমান তজু, সাধারণ   সম্পাদক  শহিদুল   ইসলাম   মোড়ল,   টুনিয়াঘরা মহিলা   আলিম   মাদরাসা   অধ্যক্ষ  হাবিবুর   রহমান,   উপজেলা যুবলীগের  যুগ্ম আহবায়ক শরিফুল ইসলাম  রিপন,  ইউপি   সদস্য   নাসিমা   খাতুন,   স্কুল  শিক্ষার্থী   ফাহমিদা ইয়াসমিন মিম।

এ   সময়ে   অন্যান্যের   মধ্যে   উপস্থিত   ছিলেন  আওয়ামী লীগ নেতা ইউপি সদস্য খবির হোসেন খুররম, জাকির হোসেন, ইউনিয়ন যুবলীগ নেতা ফারুফ হোসেন, ইউনিয়ন ছাত্রলীগের আহবায়ক হারুন-অর রশিদসহ ইউনিয়নের বিভিন্ন ওয়ার্ডের উল্লেখ যোগ্য সংখ্যক নারী-পুরুষ,   সাংবাদিক, প্রতিনিধি, শিক্ষক, মসজিদের ইমামসহ সমাজের বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ।

ফুলতলা (খুলনা) : ফুলতলার ২ নম্বর দামোদর বিট পুলিশিং এর উদ্যোগে মাদক, সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ, ইভটিজিং, বাল্য বিবাহ, নারী ও শিশু নির্যাতন সংক্রান্ত এক সমাবেশ শনিবার সকালে পরিষদ চত্বরে অনুষ্ঠিত হয়। কমিউনিটি পুলিশিং ফোরাম দামোদর ইউনিয়নের সভাপতি ক্যাপ্টেন আবুল কাশেমের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক নূর হোসেনর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সমাবেশে প্রধান অতিথি ছিলেন ওসি মাহাতাব উদ্দিন। বিশেষ অতিথি ছিলেন দামোদর ইউপি চেয়ারম্যান শরীফ মোহম্মদ শিপলু ভূঁইয়া, প্রধান শিক্ষক তাপস কুমার বিশ্বাস, মোশারফ হোসেন মোড়ল। অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন, বিট কর্মকর্তা এসআই মধুসূদন পান্ডে, বিট ইনচার্জ মেসবা উদ্দিন ও শফিকুল ইসলাম,  ইউপি সদস্য মিসেস কেয়া, বেগম শামছুন নাহার, মাসুদ পারভেজ মুক্ত, আলম গাজী, নজরুল ইসলাম, ইব্রাহীম গাজী, কবির মহলদার, প্রধান শিক্ষক গোলাম মোস্তফা, পুলিশিং ফোরাম নেতা অজয় নন্দী, মোহায়মিন সরদার মবি, আমিনুল ইসলাম, সরদার ইদ্রিস আলী, প্রনব কুমার বসু, মোঃ মাহাবুব আলম খোকন, আঃ গনি গাজী, প্রদ্যুৎ বিশ্বাস, বিজয় কৃষ্ণ হালদার, কায়েশ উজ্জামান পিকলু, আঃ জব্বার, আবু মুসা সোহেল, আঃ জলিল শেখ, নজরুল ইসলাম, তাসমির হাসান, সুজন শীল প্রমুখ। সমাবেশে নেতৃবৃন্দ ধর্ষণের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদন্ড ঘোষণা করায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন জানানো হয়।

মাগুরা : মাগুরা পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ডকে মাদকমুক্ত, এলাকার শৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রয়ে ইতোমধ্যে পুলিশের পক্ষ থেকে বিট পুলিশিং কার্যক্রম শুরু হয়েছে। এ উপলক্ষে শনিবার সকাল ১১ টায় মাগুরা পৌরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ডে পশু হাসপাতাল পাড়ায় পিটিআই সড়কে বিট পুলিশিং কার্যক্রমের উদ্বোধন হয়েছে ।

এ সময় মাগুরা সদর থানার এসআই গুরুদাস, এএসআই আনিচুর রহমান ও ৯ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আবু রেজা নান্টুসহ এলাকার গণমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন ।

বিট পুলিশিং এর কাযক্রমকে এলাকাবাসী সাধবাদ জানান। এলাকার শান্তি-শৃঙ্খলা,নারী নির্যাতন, মাদকমুক্ত করতে বিট পুলিশিং কাজ করবে। এখন থেকে এলাকায় কোন অসংগতি, শান্তি-শৃঙ্খলা ভঙ্গ বা কোন মাদক ব্যবসায়ী যদি খাবার কাজে লিপ্ত থাকে তবে এলাকাবাসী বিট পুলিশিংকে অবহিত করলে তারা আইনের মাধ্যমে ব্যবস্থা নেবে ।

কালীগঞ্জ (ঝিনাইদহ)  : ‘নিরাপদ দেশ গড়ি, নারী নির্যাতন বন্ধ করি’ এ শ্লোগানকে সামনে রেখে ঝিনাইদহে কালীগঞ্জে নারী ধর্ষণ ও নির্যাতন বিরোধী বিট পুলিশিং সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। কালীগঞ্জ থানা পুলিশের আয়োজনে শনিবার সকালে ভূষণস্কুল মাঠ সংলগ্ন জেলা পরিষদ অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত সমাবেশের প্রধান অতিথি ছিলেন ঝিনাইদহ ৪ আসনের সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজীম আনার।

কালীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মুহা: মাহফুজুর রহমান মিয়ার সভাপতিত্বে কালীগঞ্জ থানার ২ নম্বর বিটে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন কালীগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আশরাফুল আলম আশরাফ, কালীগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি জামির হোসে, সোনার বাংলা ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক শিবুপদ বিশ^াস, ৬ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আনোয়ার হোসেন ও ২ নম্বর বিট পুলিশিং এর ইনচার্জ এসআই রিফাত ইমরানসহ বিভিন্ন স্কুল কলেজ শিক্ষা প্রতিষ্টানের শিক্ষক ও ছাত্রছাত্রীবৃন্দ।

এছাড়াও পৌরসভার ১ নম্বর বিটের ইনচার্জ কালীগঞ্জ থানার সেকেন্ড অফিসার মনজুরুল ইসলামের সভাপতিত্বে ধর্ষণ ও নারী নির্যাতনের প্রতিবাদে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। বক্তব্য রাখেন কালীগঞ্জ পৌরসভার কাউন্সিলর ফাইজুর রহমান চুন্নু, বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদের কালীগঞ্জ উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক প্রশান্ত কুমার খাঁ প্রমুখ।

৩ নম্বর বিটের ইনচার্জ কালীগঞ্জ থানার এসআই সুজাত আলীর সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান শিবলী নোমানী, কালীগঞ্জ পৌরসভার কাউন্সিলর মোক্তার হোসেন, ও রেজাউল ইসলাম রেজা প্রমুখ। উল্লেখ্য দিনব্যাপী কালীগঞ্জ উপজেলায় ১৪টি বিটে এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। সমাবেশে মসজিদের ইমাম, শিক্ষক, সাংবাদিকসহ নানা শ্রেণি পেশার মানুষ অংশ নেয়। এ সময় বক্তারা, নারী ধর্ষন ও নির্যাতন বন্ধে সমাজের সর্বস্তরের মানুষকে কাজ করার আহ্বান জানান।

কয়রা (খুলনা) : কয়রা থানা পুলিশ প্রশাসনের উদ্যোগে সারা দেশের মত কয়রায় নারী ধর্ষণ ও নির্যাতন বিরোধী বিট পুলিশিং সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। শনিবার সকালে এ উপলক্ষে র‌্যালি শেষে মদিনাবাদ মডেল সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের হলরুমে প্রধান শিক্ষক বিকাশ চন্দ্র মন্ডলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন কয়রা থানার অফিসার ইনচার্জ রবিউল হোসেন। বিশেষ অতিথি ছিলেন কয়রা সদর ইউপি চেয়ারম্যান মোহাঃ হুমায়ুন কবির। কয়রা থানার বিট পুলিশিং অফিসার এসআই কিশোর কুমার দত্তের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন সাংবাদিক সদর উদ্দিন আহমেদ, প্রভাষক আনিসুজ্জামান, এসআই ইব্রাহিম হোসেন, এ এএসআই  আবু সুফিয়ান, ইউপি সদস্য ললিতা বর্মন, শিক্ষার্থী সিমা আক্তার, ফতিমা বিনতে আনিস মেঘলা প্রমুখ। এ ছাড়া একই সাথে কয়রা উপজেলার ৯ টি ইউনিটে বিট পুলিশিং উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। স্থানীয় জনপ্রতিনিধি,সাংবাদিক, শিক্ষক, শিক্ষার্থী সহ বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

মাগুরা : মাগুরা পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ডকে মাদকমুক্ত, এলাকার শৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণে ইতোমধ্যে পুলিশের পক্ষ থেকে বিট পুলিশিং কার্যক্রম শুরু হয়েছে । এ উপলক্ষে শনিবার সকাল ১১ টায় মাগুরা পৌরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ডে পশু হাসপাতাল পাড়ায় পিটিআই সড়কে বিট পুলিশিং কার্যক্রমের উদ্বোধন হয়েছে।

এ সময় মাগুরা সদর থানার এসআই গুরুদাস, এএসআই আনিচুর রহমান ও ৯ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আবু রেজা নান্টুসহ এলাকার গণমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন ।

সাতক্ষীরা :  ‘এই হোক অঙ্গিকার, নারী নির্যাতন নয় আর’ এ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে সাতক্ষীরা জেলা পুলিশের উদ্যোগে নারী নির্যাতন প্রতিরোধকল্পে র‌্যালি ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার সকালে সাতক্ষীরা সদর থানা হতে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের হয়ে শহীদ আব্দুর রাজ্জাক পার্কে সমাবেশ হয়।

সাতক্ষীরা জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমানের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সাতক্ষীরা ২ আসনের সংসদ সদস্য, নৌ কমান্ডো  বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর মোস্তাক আহমেদ রবি।

বিশেষ অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদরসার্কেল) মীর্জা সালাহ্ উদ্দিন আহমেদ, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও পৌর কাউন্সিলর জ্যোৎ¯œা আরা প্রমুখ। অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন নারী নেত্রী আকলিমা ইসলাম লিমা। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সদর উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান কোহিনুর ইসলাম, ডিবি’র অফিসার ইনচার্জ ইয়াছিন আলম চৌধুরী, সদর থানার তদন্ত ওসি বোরহান উদ্দিন, ওসি অপারেশন বিপ্লব কান্তি, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শেখ শফি উদ্দিন শফি, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সুলেখা দাস, রোখসানা পারভীন, সাংগঠনিক সম্পাদক রওশানারা রুবি,  দফতর তহমিনা ইসলামসহ জেলা পুলিশের সদস্য ও জেলার বিভিন্ন নারী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ও সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। সমগ্র অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন সাব ইন্সপেক্টর হাজ্জাজ মাহমুদ।

ঝিনাইদহ : ‘নিরাপদ দেশ গড়ি, নারী নির্যাতন বন্ধ করি’ এ শ্লোগানকে সামনে রেখে ঝিনাইদহে নারী ধর্ষণ ও নির্যাতন বিরোধী বিট পুলিশিং সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শনিবার সকালে শহরের জোহান ড্রীম ভ্যালী পার্ক মিলনায়তনে এ সমাবেশে করে সদর থানা পুলিশ। এতে ঝিনাইদহের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আনোয়ার সাঈদ, সদর থানার ওসি মোহাম্মদ মিজানুর রহমান, সিও সংস্থার নির্বাহী পরিচালক সামসুল আলম, মসজিদের ইমাম, শিক্ষকসহ নানা শ্রেলি পেশার মানুষ অংশ নেয়।

এ সময় বক্তারা, নারী ধর্ষণ ও নির্যাতন বন্ধে সমাজের সর্বস্তরের মানুষকে কাজ করার আহ্বান জানান। জেলা পুলিশের আয়োজনে একই সময়ে জেলার ৬ উপজেলার বিভিন্ন স্থানে নারী ধর্ষণ ও নির্যাতন বিরোধী বিট পুলিশিং সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

মোংলা : মোংলায় ‘নারী ধর্ষণ ও নিযার্তন বিরোধী বিট পুলিশিং সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। মোংলা থানা পুলিশের আয়োজনে শনিবার সকালে টি,এ ফারুক স্কুল এন্ড কলেজে প্রথম এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকতা ইকবাল বাহার চৌধুরী। এ সময় অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকতার ইসরাত জাহান, টি,এ ফারুক স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ আবু সাইদ খান, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ আ: রহমান, সাধারণ সম্পাদক আলহাজ শেখ কামরুজ্জামান জসিম, যুবলীগের সভাপতি কবির হোসেন, সাংবাদিক জসিম উদ্দিন ও আবু হোসাইন সুমন। এরপর পযার্য়ক্রমে দিগন্ত সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও সেন্ট পলস উচ্চ বিদ্যালয়সহ ১০টি ভেন্যুতে এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে পুরুষের পাশাপাশি নারীদের উপস্থিতিও ছিল চোখে পড়ার মত।

দেবহাটা (সাতক্ষীরা) : দেবহাটার নওয়াপাড়া ইউনিয়নের বিট পুলিশিং এর আয়োজনে ধর্ষণ ও নারী নির্যাতন বিরোধী র‌্যালি ও আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার সকালে আসকারপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় চত্বরে নওয়াপাড়া বিট পুলিশিং এর আয়োজনে নারী নির্যাতন বিরোধী র‌্যালি ও আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন দেবহাটা থানার অফিসার ইনচার্জ বিপ্লব কুমার সাহা। দেবহাটা থানার সেকেন্ড অফিসার ও বিট কর্মকর্তা এসআই নয়ন চৌধুরীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন খুলনা রেঞ্জ ডিআইজি অফিসের পুলিশ সুপার তোফায়েল আহম্মেদ। বিশেষ অতিথি ছিলেন যথাক্রমে সিনিয়র সহকারী সিনিয়র পুলিশ সুপার দেবহাটা সার্কেল শেখ ইয়াছিন আলী, দেবহাটা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও নওয়াপাড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মুজিবর রহমান, দেবহাটা থানার ওসি (তদন্ত) উজ্জ¦ল কুমার মৈত্র এবং আসকারপুরের সমাজসেবক আকদাস হোসেন মন্টু। এ সময় অন্যান্যের মধ্যে দেবহাটা উপজেলা জাতীয় পার্টির সাংগঠনিক সম্পাদক ও নওয়াপাড়া পুলিশিং ফোরামের সাধারণ সম্পাদক আনিছুর রহমান বকুল, ইউপি সদস্য আবুল কাশেম, ইউপি সদস্য আকবর আলী, ইউপি সদস্য আসমাতুল্লাহ্ সরদার, ইউপি সদস্য মিজানুর রহমান ও ইউপি সদস্যা কল্পনা রাণীসহ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

শালিখা (মাগুরা) : যৌন হয়রানিসহ নারীর প্রতি সকল প্রকার সহিংসতা প্রতিরোধে সচেতনতামূলক মত বিনিময় অনুষ্ঠিত হয় শনিবার। মাগুরা জেলার শালিখা থানা পুলিশের, বিট নম্বর ২ এর  তালখড়িতে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন শালিখা থানার অফিসার ইনর্চাজ তরীকুল ইসলাম। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন এস আই ফরিদুজ্জামান। বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগ নেতা অ্যাডঃ শামসুর রহমান, ভারপ্রাপ্ত ইউপি চেয়ারম্যান আঃ  মান্নান, আওয়ামী যুবলীগ তালখড়ি ইউনিয়ন শাখার সভাপতি মজনু মিয়া, সাধারণ সম্পাদক লাইচুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক ও ইউপি সদস্য আঃ কাদির প্রমুখ। অন্যদিকে ধনেশ্বরগাতী ইউনিয়ন পরিষদ চত্ত্বরে অনুষ্ঠিত অনুরুপ সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন শালিখা থানার অফিসার ইনর্চাজ তরীকুল ইসলাম। বিশেষ অতিথি ছিলেন ইউপি চেয়ারম্যান বিমলেন্দু শিকদার। সভায় সভাপতিত্ব করেন বিট নম্বর ১ এর ইনচার্জ এসআই মুনছুর আলী।

ডুমুরিয়া (খুলনা) : খুলনার ডুমুরিয়ায় নারী ধর্ষণ ও নির্যাতন বিরোধী বিট পুলিশিং সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। ‘নারী ধর্ষণ ও নির্যাতন বন্ধ করি, নারী বান্ধব দেশ গড়ি’ এ প্রতিপাদ্য বিষয়কে সামনে রেখে দেশব্যাপী কর্মসুচির অংশ হিসেবে শনিবার সকালে ডুমুরিয়া উপজেলার ১৪টি ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে একযোগে এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। গুটুদিয়া ইউনিয়ন পরিষদে অনুষ্ঠিত সমাবেশে প্রধান অতিথি ছিলেন খুলনা রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি মোঃ হাবিবুর রহমান বিপিএম। ইউপি চেয়ারম্যান আবুল হাসানের সভাপতিত্বে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (দক্ষিণ) আবুল কালাম আজাদ, থানা অফিসার ইনচার্জ আমিনুল ইসলাম বিপ্লব, শিক্ষক শংকর মন্ডল, এসআই আল আমীন, আ’লীগ নেতা কাজী নুরুল ইসলাম, মেম্বর আঃ গফ্ফার, সরদার মাসুদ রানা প্রমুখ। ডুমুরিয়া (সদর) ইউনিয়ন পরিষদে চেয়ারম্যান গাজী হুমায়ুন কবির বুলুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে বক্তব্য দেন পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) এম রফিকুল ইসলাম, এসআই ইলিয়াস হোসেন, হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের রতন কুন্ডু, মেম্বর আঃ হামিদ, শেখ ইকবাল, শেখ হুমায়ুন কবির, জাহানারা বেগম, সিরাজুল ইসলাম, শেখ হাবিবুর রহমান, হাফিজ খান, ছাত্রলীগ নেতা সোহেল আহমেদ লিটন প্রমুখ।

পাইকগাছা : সারা দেশের ন্যায় পাইকগাছা, বিভিন্ন ইউনিয়ন ও পৌরসভায় বিট পুলিশিং আয়োজনে নারী ধর্ষণ ও নির্যাতন বিরোধী সমাবেশ ও র‌্যালি অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার সকালে অনুষ্ঠিত সভায় সভাপতিত্ব করেন লস্কর ইউপি চেয়ারম্যান কে,এম, আরিফুজ্জামান তুহিন। ইউপি সদস্য রফিকুল ইসলামের পরিচালনায় সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন সহকারী পুলিশ সুপার ডি সার্কেল হুমায়ুন কবির। অপরদিকে, পাইকগাছা পৌরসভা কার্যালয়ে মেয়র সেলিম জাহাঙ্গীরের সভাপতিত্বে বিট পুলিশিং সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন, ওসি এজাজ শফী। বিশেষ অতিথি ছিলেন প্যানেল মেয়র এস,এম, ইমদাদুল হক, প্রাক্তন অধ্যাপক রমেন্দ্রনাথ সরকার, জি,এম, আজহারুল ইসলাম কাউন্সিলরবৃন্দ। উপজেলার ১০টি ইউনিয়নে একই কর্মসূচি পালিত হয়।

কালিগঞ্জ (সাতক্ষীরা):  কালিগঞ্জের তারালী ও চাম্পাফুল ইউনিয়নে নারী ধর্ষণ ও নির্যাতন বিরোধী বিট পুলিশিং সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছ। শনিবার সকালে উপজেলার চাম্পাফুল ইউনিয়নের ইউপি চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হক মোজামের সভাপতিত্বে ও পূর্ব চাম্পাফুল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শেখ মুস্তাফিজুর রহমানের সঞ্চালনায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন খুলনা রেঞ্জের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ তোফায়েল আহমেদ। সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন দেবহাটা সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (কালিগঞ্জ সার্কেলে অতিরিক্ত দায়িত্বপ্রাপ্ত) মোহাম্মদ ইয়াছিন আলী, থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) দেলোয়ার হুসেন প্রমুখ।

এ সময় বক্তব্য রাখেন, জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত শিক্ষক প্রাণকৃষ্ণ সরকার, ইউপি সদস্য ঠাকুর দাস সরকার, ইউপি সদস্য (সংরক্ষিত) রাধারাণী অধিকারী, স্থানীয় বাসিন্দা রাজিয়া খাতুন, প্রিয়াঙ্কা বিশ্বাসসহ গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ। পরবর্তীতে অতিথিবৃন্দ তারালী ইউনিয়নে সমাবেশ করেন। সেখানে ইউপি চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এনামুল হোসেন ছোট’র সভাপতিত্বে এবং ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি সরদার আশরাফুল ইসলামের সঞ্চালনায় সভা অনুষ্ঠিত হয়। এছাড়াও উপজেলার প্রতিটি ইউনিয়নে বিট পুলিশিং সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

কচুয়া(বাগেরহাট) : নারী ধর্ষণ ও নির্যাতন বিরোধী  বিট পুলিশিং সমাবেশ শনিবার বিট পুলিশ কচুয়া, বাগেরহাটের উদ্যোগে উপজেলার ৭টি ইউনিয়নে অনুষ্ঠিত হয়। প্রতিটি ইউনিয়ন পরিষদের সামনে সকালে বিট পুলিশিং সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

সমাবেশে প্রধান অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বাগেরহাট সদর সার্কেল মোঃ মাহমুদ হাসান। কচুয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শিকদার হাদিউজ্জামানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে উদ্বোধক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কচুয়া থানার অফিসার ইন চার্জ মনিরুল ইসলাম। সমাবেশে বক্তৃতা করেন মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা নাজমুন নেছা, অফিসার ইন চার্জ কচুয়া থানা (ভারপ্রাপ্ত) সরদার ইকবাল হোসেন, কচুয়া ডিগ্রি কলেজের উপাধ্যক্ষ এসএম নাজমুল হুদা মিয়া, বিট পুলিশিং এর  এসআই জহিরুল ইসলাম, এসআই  মামুন, গোপালপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এসএম আবু বক্কার সিদ্দিক, বাধাল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সকীব অহিদুল ইসলাম, রাড়িপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান তাসলিমা বেগম, মঘিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাড. পঙ্কজ কান্তি অধিকারী, গজালিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সেখ নাসির উদ্দিন, ধোপাখালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মকবুল হেসেন, প্রেসক্লাব সাধারণ সম্পাদক কাজী সাইদুজ্জামান, সহ সুপার মাওঃ সাখাওয়াত হোসেন, শিক্ষক সমিতির সভাপতি সেখ সরোয়ার হোসেন, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি সেখ ফারুখ হোসেন, ইউপি সদস্যা জেসমিন আক্তারসহ বিভিন্ন নারী সংগঠনের সভাপতি সম্পাদক, ইউনিয়নের পরিষদের সদস্য সদস্যা, বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের সভাপতি সম্পাদকবৃন্দ এবং এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

কচুয়া উপজেলার ধোপাখালী, গজালিয়া, মঘিয়া, গোপলপুর, বাধাল ও রাড়িপাড়া ইউনিয়ন পরিষদে অনুরূপ ভাবে পযাক্রমে নারী ধর্ষণ ও নির্যাতন বিরোধী  বিট পুলিশিং সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।